পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অতিসার যন্ত্রণ নিবারণ হয়। পেটের নিম্নভাগ স্ফীত ও টিপিলে উদরে অত্যন্ত কষ্টবোধ থাকিলে মুলবারের অারক প্রয়োগ করা আবশুক। বমন কিম্ব বমনোদ্বেগ থাকিলে ইপিক্যাক ব্যবস্থা করিবে। শরীর দুর্বল, হস্তপদ শীতল এবং অত্যন্ত অস্থিরতা থাকিলে আর্সেনিক সেবনে বিশেষ ফল দর্শে। যেখানে মেলেরিয়ার প্রভাব অতিশয় প্রবল, তেমন স্থানে রোগীকে মধ্যে মধ্যে চায়না সেবন করাইবে । এলোপ্যার্থী-রোগী সবল এবং উদরে সঞ্চিত মল থাকিলে প্রথমে, এরও তৈল ৪ । ৬ ড্রাম, আফিঙের অরিষ্ট ৭ বিন্দু, পিপারমেন্টের জল ৪ ড্রাম এবং আদাররস এক কাঞ্চ একত্র মিশ্রিত করিয়া সেবন করাইবে । কোষ্ঠ পরিষ্কার হইলে ৩• বিন্দু ক্লোরোডাইন ব্যবস্থা করিবে । ১৫ মিনিট পরে এককালে ২৪ । ২৫ গ্রেণ ইপিক্যাক সেবন করাইবে । ইপিক্যাক সেবনের পর অন্ততঃ তিন ঘণ্টা পৰ্য্যন্ত রোগীকে কিছুই থাইতে দিবে না, স্বস্থিরভাবে শয়ন করাইয়া রাখিবে। এই রূপ সাবধান হইলে প্রায় বমন হয় না। এক মাত্র উদরে থাকিলে ৬ ঘণ্ট। পরে পুনৰ্ব্বার ১০ । ১৫ গ্রেণ মাত্রায় আর একবার উহা সেবন করাইবে। এই মহৌষধ সেবনে এক দিনেই উৎকট রক্তামাশয় রোগের শাস্তি হইতে পারে। ইপিক্যাক সেবনে অত্যন্ত বমন হয়, তজ্জন্ত বিশেষ সাবধানতা অবিশ্রাক । পেটের বেদন নিবারণের জন্ত তাপিন তৈলের সঙ্গে উষ্ণ জলের স্বেদ দেওয়া উচিত। তৃষ্ণ নিবারণের জন্ত থও থও বরফ রোগীর মুখে রাখিতে দিবে। পথ্যের মধ্যে মাংসের ঝোল, চুণের জলের সঙ্গে ছাগ দুগ্ধ, অল্পের মও, খই মও প্রভৃতি লঘু দ্রব্য ব্যবস্থা করা ৰাইতে পারে। রোগী উত্তম রূপ সুস্থ না হইলে কোন কঠিন দ্রব্য থাইতে দিবে না । তরুণ রক্তাতিসার রোগে বৈদ্যমতের চিকিৎসা অপেক্ষ হোমিওপ্যার্থী ও এলোপ্যার্থী চিকিৎসার অধিক ফল দর্শে। কিন্তু পুরাতন রক্তাতিসার রোগে বৈদ্যের চিকিৎসা শ্রেষ্ঠ। অতিসারের প্রায়শ্চিত্ত শাতাতপীয় কৰ্ম্মবিপাকে— মহাপাতকজং চিহ্নং সপ্তজন্ম-স্ব জায়তে। উপপাপোজবং পঞ্চ স্ত্রীণি পাপ সমুদ্রবং। ইত্যাদি। কুষ্ঠঞ্চ রাজস্বল্প চ প্রমেহে গ্ৰহণী তথা। মুত্ৰকৃচ্ছশ্বিরকাশ অতিসারভগদয়ে। : দুষ্টৰণং গণ্ডমালা পক্ষাঘাতোংক্ষিনাশনং৷ [S&૧ ] se ইত্যেবমাদয়ো রোগা মহাপাপোস্তুৰঃ স্থতাঃ । ইত্যাদি। এবং মহাপাপে ভবেৎ সৰ্ব্বং তদন্ধধূপপাতকে। দদ্যাৎ পাপেষু ষষ্ঠাংশং জ্ঞাত্বা ব্যাধিবলাবলং। সৰ্ব্বং পরাকরূপং । শাতাতপীয় কৰ্ম্মবিপাকে লিখিত আছে যে, মহাপাতক জনিত চিহ্ন স্বল্প কুষ্ঠাদি রোগ মানুষের সাত জন্ম পৰ্য্যন্ত হইয়া থাকে । উপপাতকের চিহ্ন, যথা জলোদরাদি পঞ্চ জন্ম পৰ্য্যন্ত জন্মে এবং সামান্ত পাপ জনিত চিহ্ন দগুণবতানকাদি তিন জন্ম পর্য্যন্ত হইয়া থাকে। কুষ্ঠ, রাজ্যক্ষ্মা, প্রমেহ, গ্ৰহণী, মুত্ৰকৃচ্ছ, অশ্বরী, জরযুক্ত কাশ, অতিসার, ভগন্দর, দুষ্টত্রণ, গণ্ডমালা, পক্ষাঘাত, চক্ষুর নাশ ইত্যাদি রোগ মহা পাপোস্তব। মহাপাপে সকল অর্থাৎ পরাকত্ৰত প্রায়শ্চিত্ত ব্যবস্থা আছে। পরাকত্ৰত করিতে অসমর্থ হইলে— ‘ পরাকেপঞ্চধেনব?—পরাকের অমুকল্পে পাচটা ধেয় দেয়, এই ৰচনানুসারে পাচটা গোর উৎসর্গ করিয়া দান করিবে । অথবা পাচটা গোরুর মূল্য পনর কাছন কড়া কিম্বা সেই মূল্যে যতটুকু সোনা বা রূপা পাওয়া যায়, তাহ উৎসর্গ করিয়া দান করিবে। পরাকশন্ধে পরাকত্রত এবং ধেমুশব্দে ধেমুর মূল্য দেখ ] । এই রূপে প্রায়শ্চিত্তের পত্রিকা লিখিবে— অতিসার রোগসংকুচিতপাপক্ষয়ায় ব্ৰতাদ্যশস্ত্রেী ব্রাহ্মণেন ক্ষত্রিয়াদিনা বা বৎকিঞ্চিৎ দক্ষিণক পঞ্চদশ কার্ষপণী দানরূপং প্রায়শ্চিত্তং করণীয়মিতি বিচুযাম্পরামর্শঃ । cाग्रक्रिड कब्रिवींद्र निब्रभ-अडेभैौ ७ छछू#नौ তিথিতে প্রায়শ্চিত্ত করিতে নাই। তদ্ভিন্ন যে তিথিতে প্রায়শ্চিত্ত করিবে, তাহার পূর্বদিনে রোগী মস্তকাদি মুগুন করিয়া সায়ংকালে কেবল কিঞ্চিৎ স্কৃত খাইয়। থাকিৰে ৷ পর দিবসে যথা নিয়মে নিত্য ! ক্রিয়াদি সম্পন্ন করিবে। তাহার পর, উপরে যে পত্রিক খানি কথিত হইয়াছে, তাহা তালপত্রাদিতে লিখিয়া কড়ী কিম্বা স্বর্ণাদি যাহ উৎসর্গ করিতে হইবে, তাহার উপরে রাখিয়া দিৰে। এই রূপ আয়োজনের পর উৎगदर्शन भङ्ग भार्ट कब्रिष्ठ इछ । रथी,-चना ऐकानि (মাস, পক্ষ ও তিথির নাম কৱিৰে ) মুকগোত্র: প্রমমুকদেবশৰ্ম অতিসরিয়োগ সংস্থচিত পাপক্ষয় কামোর্কিতাং ইমাং পঞ্চদশকার্বাপণং ক্ষমূল্যাঙ্কনিং স্ববর্নং রৌপ্যং বা বিষ্ণুৰৈবত্তং স্থাসম্বৰ খোজমাৱে