পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অথর্ব প্রথমে কৃত্তিকা নক্ষত্র ছিল। এখন ১০ চৈত্র ब्राजिॉन সমান হয় এবং রাশিচক্রের প্রথমে অশ্বিনী আছে। দুইটা পূর্ণ নক্ষত্র এবং আর একটার এক পাদ লইয়া এক একটা রাশি হয়। অর্থাৎ প্রত্যেক নক্ষত্রের পরিমাণ ১৩ অংশ ২০ কলা । এখন উপরের হিসাবে একটা সন্দেহ আছে। সে সন্দেহ এই,-যদ্যপি কৃত্তিকার প্রথম হইতে গণনা আরম্ভ করা যায়, তাহা হইলে সাড়ে তিনটী নক্ষত্র পাওয়া যাইতেছে। প্রত্যেক নক্ষত্রের পরিমাণ ১৩ অংশ ২০ কলা হইলে পূরণ দ্বার সাড়ে তিন নক্ষত্রে ৪৬ অংশ ৪০ কলা হয়। তাহার পর এই ত্রৈরাশিক অঙ্ক কযিতে হইবে যে, ৭২ বৎসরে অয়ন গতি যদি ১ এক অংশ করিয়া সরিতে থাকে তাহ হইলে ৪৬ অংশ ৪০ কলা কত বৎসরে সরিবে । অতএব, ১ঃ ৪৬ ৪০ : ৭২ : ক উত্তর ৩৩৬০ বৎসর । দ্বিতীয় কথা এই, যদ্যপি কৃত্তিক নক্ষত্রের শেষ চইতে গণনা করা যায়, তাহা হইলে অয়নাংশ সাড়ে চারি নক্ষত্র সরিয়া আসিয়াছে। সাড়ে চারিট নক্ষত্রের পরিমাণ ৬০ অংশ। অতএব উপরের মত ত্রৈরাশিক কষিলে ৪৩২০ বৎসর হয় । অতএব প্রায় পাচ হাজার বৎসর অতীত হইল অথর্ববেদ সঙ্কলিত হইয়াছে। উপরের জ্যোতিষ ও ত্রিকোণ-মিতির গণমায় ৩৩৯৩ বৎসর হইয়াছিল। এখানে সহজ উপায় দ্বার গণনায় ৩৩৬০ বৎসর হইতেছে। অতএব ৩৩ বৎসরের প্রভেদ হইল। আর কৃত্তিকার শেষ হইতে সহজ উপায় দ্বার গণনা করাতে ৪৩২০ বৎসর হইয়াছে। প্রথম উপায় দ্বারা এটাও গণনা করিলে প্রায় ৪৩৫৫ বৎসর হইবে। অথৰ্ব্ববেদ ঋক্, যজুঃ ও সামবেদের পরে সংকলিত হইয়াছে তাহার বিশেষ প্রমাণ পাওয়া যায়। ঋগ্বেদে অগস্ত্য ঋষির কৃমি ঝাড়াইবার মন্ত্র আছে। অথৰ্ব্ববেদেও | এই রূপ একটা মন্ত্রের উল্লেথ দেখা যায়। অগস্ত্যস্ত ব্ৰহ্মাণ দংপিনষ্মাহং কৃমিম্। ( অথৰ্ব্ববেদ রোথেয় এডিশন ২ কাও, ৬ অনুবাক, ৩২ স্থ। ৩ ঋক্ ) । আমি অগস্ত্য ঋষির মন্ত্রদ্বারা কৃমি সকল সম্পিষ্ট করিতেছি । এই মন্ত্রট ঋগ্বেদ হইতে গ্রহণ করা হইয়াছে, তাহাতে সন্দেহ নাই। তদ্ভিন্ন, অথৰ্ব্ববেদে ঋক্, যজুঃ ও সামবেদের নাম দেখা I যায়। কিন্তু ঐ তিনখানি বেদের কোথাও অথর্ববেদের নাম নাই। r ঋচং সাম বজামহে যাভ্যাং কৰ্ম্মাণি কুৰ্ব্বতে

j לו צ] चार्श्वद्भर्व ‘. এতে সদসি রাজতো যজ্ঞং দেবেষ্ণু স্বচ্ছতঃ । ১ ঋচং সাম যদপ্রাঙ্কং হবিরোজো যজুর্বলং। এষ মা তন্মান্মা হিংসীং বেদঃ পৃষ্টঃ শচীপতে। ২ অথৰ্ব্ববেদ ৭ কাও ৫৪। আমরা ঋক্ ও সামবেদকে উপাসনা করি, ইহাদের ৮ দ্বারা লোকে যজ্ঞকৰ্ম্ম সম্পন্ন করে । যিনি দেবগণের নিমিত্ত যজ্ঞ করেন, তাহার সভায় ইহঁার শোভা পান। যে ঋক্ ও সামের কথা জিজ্ঞাসা করিয়াছি, তাহারা হবি এবং ওজ আর যজুঃ ( ষজুৰ্ব্বেদ ) বল। অতএব হে যজ্ঞপতি ! এই বেদ পৃষ্ট হইয়া আমার হিংসা করিবে না। এ স্থলে ঋক্, যজুঃ ও সাম শকের বেঙ্গ বলিদা উল্লেখ \ থাকায় স্পষ্টই বোধ হইতেছে যে, ঐ তিনখালি বেদ সঙ্কলনের পর অথর্ববেদ সঙ্কলিত হইয়াছে। রোথ ও হুইট্‌নী সাহেবের মুদ্রিত পুস্তকে অথৰ্ব্ববেদের প্রথম মন্ত্র এই— - যে ত্ৰিষপ্তাঃ পরিযস্তি বিশ্ব রূপাণি বিভ্রতঃ । বাচস্পতির্বল। তেষাং তম্বো অদ্য দধাতু মে | ১ কিন্তু ব্রাহ্মণসৰ্ব্বস্ব প্রণেত হলায়ুধ নিজ গ্রন্থে লিখিয়াছেন যে, —অথৰ্ব্ববেদাদি মন্ত্রস্ত দধ্যঙঙগথৰ্ব্বণ ঋষিরাপোদেবত গায়ত্রীচ্ছনঃ শাস্তিকরণে বিনিয়োগঃ। মন্ত্রে যথা—শন্নো দেবীরভীষ্টয় আপোভবস্তু পীতয়ে। শংযোরভিস্রবস্তুনঃ ॥ ১ । অর্থাৎ তাহার মতে এই খান হইতে অথৰ্ব্ব বেদ আরস্ত হইয়াছে এবং এইট প্রথম মন্ত্র। রোথ সাহেবের মুদ্রিত পুস্তকে ঐট ষষ্ঠ স্বত্ত্বের প্রথম মন্ত্র। ফল কথা, কোন কোন প্রাচীন পুস্তকে যে ত্ৰিষপ্তা’ এই মন্ত্র হইতে অথৰ্ব্ববেদ আরম্ভ হইয়াছে, আবার কোন কোন পুস্তকে—“শল্পে দেবীরভিষ্টয়ে এখান হইতে আরম্ভ হইয়াছে। সায়ণাচাৰ্য্য অথৰ্ব্ববেদের টীকা করিরাছিলেন, কিন্তু তাহ এখন বড় আর পাওয়া যায় মা । অথৰ্ব্ববেদের প্রথম হইতে সপ্তম কাও পৰ্য্যন্ত সুক্তের ঋকৃ সংখ্যা অনুসারে সাজানো হইয়াছে। অর্থাৎ প্রথম কাণ্ডের প্রতি সুক্তে ৪ চরিট করিয়া ঋক্ আছে। দ্বিতীয় কাণ্ডেয় প্রতি স্থক্তে ৫ পাচটা করিয়া ঋক্ আছে। তৃতীয়,কাণ্ডের প্রতি হুক্তে ৬ ছয়টা করিয়া ঋক্ । চতুর্থ কাণ্ডের প্রতি সুক্তে ৭ সাতটা করিয়া ঋক্ । পঞ্চম কাণ্ডের প্রতি হুক্তে ৮ আটটা হইতে ১৮ আঠারটা পর্যন্ত ঋঙ্ক আছে। ষষ্ঠ কাণ্ডের প্রতি স্থক্তে ৩ তিনটা করিয়৷ গ্ৰন্থ আছে। সপ্তম কাণ্ডের প্রতি স্থকে ১ একটা করিয়া গুঞ্জ মাছে ।