পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/২৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অনুপ্রাস { ২৩৪ } অনুপ্রাস এই কবিতার ভিতর দীর্ধপ্রাণ বর্ণের সংখ্যাই অধিক। ইহাতে অল্পপ্রাণ বর্ণ তত নাই, সে কারণ বীর-রস বেশ স্পষ্টরূপে প্রকাশিত হইয়াছে। অলঙ্কারিকের অনুপ্রাসকে অনেকগুলি শ্রেণীতে বিভাগ করিয়াছেন। কোন কোন শ্রেণীর অনুপ্রাস কোন অনুপ্রাসের অমুগত নিয়ে তাহার স্পষ্ট তালিকা দেওয়া যাইতেছে। — - 9 一p_「墜落 女一 区。拉 F 以 緑 ー 闪卡 、 حدود 匈 |öy ; # # E. : աՐ - حصي ーに ○- 巴应 岳撰 * { 膳器 tー * こ 只 缸 —? 可 محیخ | 9 - エ - צן 闪丁 § 街一 J 峪% 紗 象 _瓦 区 怜 یہ؟ 闪” صچه –5––; 冻” ငြှာ၊ সি .مصي怜 గ్రా 古 — #" ; # so —#–– 闪卡 街 四 一怜 sy وی مهW भ५थागएक अथमठः श्हेडांrश्र बिउङ कब्र इहै* স্থাছে। যথা, বর্ণাগ্রাস ও শায়ুপ্রাস । বাক্যের ভিতর কাছাকাছি এক প্রকায় বর্ণ থাকিলে তাহাৰে বর্ণায়ুপ্রাস কহে । এবং এক প্রকার শব্দ নিকটে নিকটে থাকিলে তাহার নাম শব্দায়ুপ্রাস বা লাটায়ুপ্রাস । গিরিশ গৃহিণী গৌরী গোপবধুবেশ। কষিত কাঞ্চন কাস্তি প্রথম বয়েস । এখানে পয়ারের প্রথম অৰ্দ্ধেগ এই বর্ণের অনুপ্রাস হইয়াছে। দ্বিতীয় চরণে ক এই বর্ণের অনুপ্রস হইয়াছে। এটা বর্ণায়ুপ্রাসের উদাহরণ। বকী বলে বক বকা, বকা বলে বকী । এই রূপে বকা বকী করে বকবিকি । এটা শব্দামু প্রাসের উদাহরণ। এখানে ভিন্নার্থবোধক ‘বক এবং বকী এই দুই শব্দদ্বারা অকুপ্রাস হইয়াছে। বর্ণায়ুপ্রাস আবার প্রধানতঃ দুই ভাগে বিভক্ত । যথা,—ছে কামু প্রাস ও বৃত্ত্যমুপ্রাস । (ছেকবৃত্তিগতো দ্বিধা । কাব্য প্র০ ) । সোহনেকস্ত সরৎ পূৰ্ব্বঃ । (কাব্য প্র০ )। অনেকস্ত (অর্থাৎ ) ব্যঞ্জনস্ত, সকদেকবারং সাদৃশুং ছেকামু প্রাস: | বাক্যের ভিতর ব্যঞ্জন বর্ণের একবার সাদৃশু থাকিলে তাহাকে ছকাল্প প্রাস কঙ্গে । অঞ্জন গঞ্জন বারি অতি নিরমল । এখানে এ এবং জ এই ব্যঞ্জন বর্ণের একবার সাদৃশু আছে বলিয়া ইহা ছেকাম্প্রাস । একস্তাপ্যসকৃৎ পরঃ । (কাব্য প্র০ ) । একস্ত, অপিশাদনেকস্ত ব্যঞ্জনস্ত দ্বিবহুরুত্বে বা সাদৃশু বৃত্ত্যমুপ্রাসঃ। - একটা অথবা অনেক ব্যঞ্জন বর্ণের, দুই বা ততো. ধিক বার, সাদৃশু থাকিলে তাহাকে বৃত্তাকুপ্রাস কহে । বৃত্ত্যমুপ্রাস তিন প্রকার। যথা,—উপনাগরিক, পরুষ এবং কোমল । মাধুর্য্য ব্যঞ্জকৈবর্ণৈরুপনাগরিকোচ্যতে । ওজঃ প্রকাশকৈস্তৈন্তু পরুষ । কোমলা পরৈ: ( কাব্য প্র০ )। অনুগ্রাসের বর্ণে মাধুর্ঘ্য গুণ থাকিলে তাহার নাম । উপনাগরিক । ওজোগুণ প্রকাশক বর্ণ দ্বারা কবিতা রচনা করিলে তাহাকে পরুষা কহে। এবং অপর অনু- ক্ৰী প্রাসের নাম কোমল । অল্পপ্রাণ বর্ণে রচিত শ্লোক, কোমল ও মাধুৰ্য্যগুণবিশিষ্ট হয়। তাহার মধ্যে, ঐ বর্ণগুলি একটু দূরে দূরে থাকিলে উপমাগরিক হয় এবং কাছাকাছি বলিলে