পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আকবর কিন্তু কাজিরা ঠিক মীমাংসা করিতে পরিলেন না। তবে নিকার চেয়ে বিবাহ ভাল, তাহাই স্থির হইল। তিনি বাল্যবিবাহেরও বিরোধী ছিলেন । অল্পবয়সে বিবাহ দিলে সে দম্পতীর সন্তান সন্তর্তী কুৰ্বল ও চিরকুণ্ণ হয়। তাহা তিনি স্পষ্ট বুঝিয়াছিলেন। আকবরের পাচটা পুত্র এবং তিনটী কন্যার নামোল্লেখ দেখা যায় । হসন এবং হুসৈন দুইটী যমক সস্তান। জন্মিয় কেবল একমাসকালমাত্র ইহারা জীবিত ছিল। তৃতীয় পুত্র সলিম । ইনিই জহাঙ্গীর নামে প্রসিদ্ধ। চতুর্থ, সুলতান মুরাদ । পঞ্চম, সুলতান দানিয়াল। কন্যার মধ্যে জ্যেষ্ঠ শাজাদা খামুম্ । দ্বিতীয় কন্য। শুকুন্নিসা বেগম। কনিষ্ঠা, আরাম বামু বেগম। অকবরের সময় হিন্দুজাতির বিলক্ষণ প্রভুত্ব ছিল। বিহারীমল, গোপালদাস, মানসিংহ, বীরবর, তোদরমল, রায়সিংহ প্রভৃতি অনেক সুযোগ্য হিন্দু তাহার সভাসদ ও প্রধান প্রধান সেনাপতি ছিলেন । হিন্দুমুসলমানের মধ্যে যাহাতে কুটুম্বিতা ও আন্তরিক প্রণয় জন্মে, সে বিষয়ে তাহার বিশেষ যত্ন ছিল। জীবহিংসায় আকবর অতিশয় বিরত ছিলেন । তিমি প্রায় নিরামিষদ্রব্য ভোজন করিয়া থাকিতেন এবং গোমাংস অখাদ্য বলিয়া জানিতেন। একবার তিনি মনের অধিক্ষেপে বলিয়াছিলেন– কি করিব, আমার শরীর তত বড় নয় । বড় হইলে স্বচ্ছনে এই মাংসপিণ্ডদেহ পাতিয়া দিতাম, জগতের জীব মুখে ভোজন করিত। প্রাণীহিংসা আর দেখিতে পারি না’ । জীবন অনিত্য; দিন চলিয়া গেলে আর চাহিলে মিলে না। আকবর তাই তিলাৰ্দ্ধকাল মিছ; কাজে কাটাইতেন না। ঈশ্বরাধনা, সত্যের আদর, সদনুষ্ঠানের উৎসাহ, ইহাই তাহার দৈনিক কাৰ্য্য ছিল। ইতর ভদ্র সকলেই আসিয়া তাহার সঙ্গে সাক্ষাৎ করিত। তিনি ইন্দ্রস্তু *ाहेग्ना कशन श्रउिभानौ झन नाहे । সম্রাটের বিদ্যামুরাগও কম ছিল না । পুস্তকাগারের পুস্তকগুলিকে তিনি নানা শ্রেণিতে বিভক্ত করিয়া রাখাইয়াছিলেন। গদ্য এক ঠাই, পদ্য এক ঠাই, আরবী, পারসী, হিন্দী, গ্রীক, কাশ্মীরী প্রভৃতি সমস্ত পুস্তক পৃথক পৃথক রাখা হইয়াছিল। পাঠকেরা পড়িতেন, সম্রাট, শুনিতেন। পড়া সাঙ্গ হইলে পাদশা পাঠককে স্বর্ণ, রৌপ্য পারিতোধিক দিতেন। হিন্দুদের পুস্তকের প্রতি র্তাহার বিদ্বেষ ছিল না। কৃষ্ণ জ্যোতিষ, গঙ্গাধর, মহেশমহানন; [ ১১ ] আকবর মহাভারত রামায়ণ প্রভৃতি সংস্কৃতগ্রন্থ তিনি পারস্তভাযায় । অনুবাদ করাইয়াছিলেন। অকবরের সময়ে চিত্রবিদ্যার বিলক্ষণ উন্নতি হইয়াছিল। সম্রাট স্বয়ং চিত্র করিতে ভাল বাসিতেন, তাই চিত্রকরদের উৎসাহ দিতেন । সপ্তাহে এক দিন করিয়া ছবি দেখিবার দিন নির্দিষ্ট ছিল । সম্রাট ভাল ভাল ছবিগুলি বাছিয়া তাহার চিত্রকরদিগকে পারিতোষিক দিতেন, কাহারও বেতন বৃদ্ধির জন্য অনুমতি করিতেম। ক্রমে প্রায় একশত লোক ইউরোপীয় চিত্রকরদের চেয়েও শ্ৰেষ্ঠ হইয়া উঠিলেন। আবুল ফজল লিখিয়াছেন যে, তাহাদের মধ্যে হিন্দুই অধিক। হিন্দুদের চিত্রনৈপুণ্যের সঙ্গে জগতে তুলনা মিলে না । কেশী, লাল, মুকুন্দ, ক্ষেমঙ্কর, মধু, যোগেন, মহেশ, রাম, হরিবংশ, স্থায়, হিন্দুদের মধ্যে এই সকল ব্যক্তিই অধিক বিখ্যাত । সম্রাটের অনুমতিক্রমে বিস্তর পারস্য পুস্তকে চিত্র मद्रिादअिङ झहेग्नांछ्शि । उद्विग्न काठौग्नलभन, मणशशग्नखैौ, এবং মহাভারত রামায়ণের অঙ্গ সুন্দর চিত্রপটে সুসজ্জিত করা হয় । বস্ত্রের, সোনারূপার কাজ, মিনাকাজ, জরির কাজ, প্রস্তর ও কাঠের খোদাই কাজ প্রভৃতি অন্যান্য শিল্প কার্য্যেও তিমি সমধিক উৎসাহ দিতেন । , , সম্রাট সকল বিষয়ে বিলক্ষণ শিল্পী ছিলেন । তিনি একখানি গাড়ী নিৰ্ম্মাণ করেন, তাহার গঠনকৌশল আতি চমৎকার । গাড়ীতে একখানি র্যাত ছিল; গাড়ী চালাইলে সেই র্যাত আপনি যুরিত এবং তাঁহাতে গোধূমাদি চূর্ণ হইত। একখানি ঐশ্রজালিক দপর্শও আকবরের স্বষ্টিকর। দূরে গিয়া কিম্বা কাছে খসিয়া সেই আরীর পানে চাহিলে নানা প্রকার অদ্ভূত মূৰ্ত্তি দেখা যাইত। জল তুলিবার চাকাকল আকবরের আর একটা न्छन रुहैि। cगई फ्रांक पूबाहेरण मूत्र श्रेष्ठ किश গভীর কূপ হইতে জলোখিত হইত। আবার এক দিকে জলের চাকা ঘুরিতেছে অন্য দিকে সেই সঙ্গে জার একখানি র্যাত ঘুরিত। তাহাতে গোধূমাদি চূৰ্ণ করিবার বিশেষ সুবিধা ছিল। বন্দুক ও কামান পরিষ্কার করিবার জন্য মহারাজ আর একপ্রকার চাকা নিৰ্ম্মাণ করেন। তারা এককালে বারটা বলুক পরিষ্কৃত হইত। লুপ্তপ্রায় সঙ্গীত শাস্ত্রকে তিনি পুনর্জীবিত করেন। श्मूि, हेब्रागै, फूद्रागै, कॉर्षौग्नि थफूठि गकग जाष्ठि जन्नैौऊविलांब्रन शैौशूझय ॐाशद्र नठांग्न दिनTयाम झिटणम। भिग्ना छानगरमग्न नांव छांप्नन नl, uश्वन cणांक माहे।