পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৫৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অরন্ধজিব [ ৫৩২ ] অরণীভূত - দেখিলে প্রাণ শিহরিয়া উঠে। যাহা হউক, তাহার দুশ্চরিত্রই মোগল সাম্রাজ্য পতনের প্রধান কারণ। প্রজা সন্তুষ্ট না থাকিলে রাজ্য থাকে না, ইন্দ্রের ইন্দ্রত্নও টলিয় উঠে—কুটিল রাজনীতি এবং অস্ত্রবল মিথ্যা । অরঙ্গজিব আপনার শঠত। ঢাকিবার জন্ত সকলকে ভাল বাসিতেন,পূৰ্ব্বে যে সকল লোক তাহার বিরোধী ছিলেন, র্তাহাদিগকেও স্নেহ করিতেন। কিন্তু লোকে বুঝিয়া ছিল এ কৌশল বৈ আর কিছু নয়, তাই হিন্দুর কথা কি ?—মুসলমানেরাও মনে মনে তাহার শত্র ছিলেন। থলের প্রেম কালসাপের সঙ্গে বাস, বিপদ ঘটিতে অধিকক্ষণ লাগে না । এই গেল সাধারণ লোকের কথা । হিন্দুরা তাহার প্রতি অত্যন্ত বিরক্ত হইয়াছিলেন। তিনি হিন্দুদিগকে মুসলমান করিবার নিমিত্ত উৎপীড়ন করিতেন। তাই, যে সকল রাজপুত বীরের ভুজবীৰ্য্যের জন্ত তৈমুর বংশের এত প্রতিপত্তি, অবশেষে তাহারাও সম্রাটকে ছাড়িয়া গেলেন। অরঙ্গজিবের বৃদ্ধাবস্থায় যখন চারি দিকে বিপ্লব উপস্থিত হইল, সে দুঃসময়ে তাহার কেহ ফিরিয়াও দেখিলেন না। ও দিকে মহারাষ্ট্র দেশে শিবাজি, ভন্মের ভিতরে অগ্নিস্ফুলিঙ্গের মত লুকাইয়া ছিলেন, ক্রমে প্রধূমিত হইয়া তিনি অকাণ্ডের কুও জালিয়া তুলিলেন । মোগল সাম্রাজ্যের মৰ্ম্মের ভিতর পর্য্যন্ত কঁাপিয়া গেল। অরঙ্গজিবের তত তেজঃ, তত উদ্যম,— এখন আর কিছুই নাই। সে জলন্ত দীপশিখা নিবিয়া আসিয়াছে। পূৰ্ব্বে যে সকল দুষ্কৰ্ম্ম করিয়াছিলেন, আজি সেই পাপের জন্ত হৃদয়ে সহস্র বিছার জাল ধরিয়াছে। তিনি লোকের কাছে মুখ দেখাইতে পারেন না। ক্রমে অকুতাপে জীৰ্ণ, ক্লিষ্ট ও জর জর হইয়া পাপ প্রাণ, পঞ্চভূর্ত দেহ হইতে পৃথক হইয়া গেল। অরঙ্গজিব শেষাবস্থায় প্রার দাক্ষিণাত্য প্রদেশেই থাকিতেন। আহ্মদনগরে তাহার মৃত্যু হয়। এইখানে বিবিধ মসলায় তাহার মৃতদেহ রক্ষিত করা হইয়াছিল। পরে ইলোর ও গোদাবরীর সন্নিকটে রোজ নামক স্থানে তাহাকে সমাহিত করা হয় । কথিত আছে, তিনি এক প্রকার টুপী নিৰ্ম্মাণ করিয়াছিলেন। সেই টুপী বিক্রয় করিয়া তাহার সমাধির ব্যয় নিৰ্ব্বাহ করা হইয়াছিল। . 韃 অরঙ্গম (পুং) অলং পৰ্যাপ্তংগমে গতিঃ লন্ত রঃ । গতি। পরিমিত গমন। . . . . .


بی- میبیسی ===

অরঙ্গবাদ ( আউরঙ্গাবাদ ) । দাক্ষিণাত্য প্রদেশের একটা বৃহৎ নগরের নাম। গোদাবরীর শাখা স্থান নদীর উপরে এই নগর অবস্থিত। ইহা হাইদ্রাবাদের নিজমের অধিকারভুক্ত । আৰসিনিয়া দেশীয় মালিক অম্বর নামক জনৈক ব্যক্তি ১৬২০ খৃঃ অন্ধে এই নগর স্থাপন করেন। তথন ইহার নাম গুর্ক ছিল। তাহার পর আরঙ্গজিব এইখানে দাক্ষিণাত্য প্রদেশের রাজধানী করিয়াছিলেন, তজ্জন্ত ইহার নাম অরঙ্গবাদ হইয়াছে। এখানে অরঙ্গজিবের কন্যার কবর আছে। তাহার গঠন প্রণালী তাজমহলের মত। এই নগরে অরঙ্গজিবের মনোহর প্রাসাদও ছিল। কিন্তু এক্ষণে চারিদিকের প্রাচীর এবং রাজপ্রাসাদ ভাঙ্গিয়া যাইতেছে। অরজস্ (ত্রি) রঞ্জ-অসুন্ ন লোপ:। নাস্তি রজোগুণে। যস্ত। রজোগুণের কার্য্য কাম ক্রোধাদি শূন্ত । অরজ্জ্ব (ক্লী) নাস্তি রজু বন্ধন সাধনং যত্র। বন্ধনাগার। রজ না থাকিলেও যেখানে বন্ধ থাকিতে হয়। অরটু। অরলু (পুং ) অরং শীঘ্রম্ অটতি অট অল বা উ৭পৃ• সাধু। শোনা বৃক্ষ। ঋয্যাদি• ক। ডলয়োরৈক্যাৎ অরভুক। শোনাগাছোদ্ভব। অরট (পুং ) ন রটতি গুপ্ত মন্ত্রণাং প্রকাশয়তি রট-বন। নঞ তৎ। পৃথুশ্ৰবা নৃপতির মন্ত্রি বিশেষ । অরণ (ত্রি) রণ্যতে গৰ্জ্জতে হস্মিন রণ শবে-আধারে ঘ রণোযুদ্ধং নাস্তি রণে যুদ্ধং যন্ত। নঞ বহুব্রী। যুদ্ধশুস্ত। নাস্তি রণঃ শব্দে যেন । যে রিপুকে দেখিলে ভয়ে বাক্য স্মৃত্তি হয় না। ক্রীড়াহীন। দুঃখিত। অরণি (পুং ) ঋচ্ছতি গচ্ছতি ঋ (অর্ভিস্থম্বুধম্বম্যগুৰিতভ্যোহনি: উণ ২। ১০১ )। ইতানি। অগ্নসংগাই মন্থন কাষ্ঠ । ( অরণিরশ্নর্যোনিঃ । সি• কোন )। ( স্ত্রী ) কৃদিকারাস্তত্বাৎ ডীপ । অগ্নি মন্থন কাষ্ঠ । গণিয়ারি বৃক্ষ। কাষ্ঠে কাষ্ঠে ঘর্ষণ। অরণির্বছি মস্থেপি স্বতেনিৰ্ম্মথ্য দারুণি। বিশ্ব ) । স্বৰ্য্য। t অরণিক (পুং ) অরণয়ে অগ্নিমন্থনায় সাধু ঠন্‌। অগ্নি মন্থন করিবার উপযোগী অগ্নিমন্থম বৃক্ষ। অরণীকেতু (পুং ) অরণী কেতুরস্ত। অগ্নিমন্থন বৃক্ষ। অরশীসুত (পুং) অরণী-দ্বয় ঘর্ষণেন জাতঃ স্বত: । ৩ শাক তৎ। শুকদেব। মহাভারতে লিখিত আছে, বেদব্যাস দেবতার নিকট উৎকৃষ্ট বর লাভ করিয়া অরণীদ্বয় ঘর্ষণ স্বারা অচ্যুৎপাদনের চেষ্টা করিজেছেম, এমন সময়ে রূপবতী স্তৃতাচী জঙ্গরাকে