পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অগ্নিক্রীড়া ছুটাছুটি করে এবং ঐ জঙ্গার চারিদিকে ছড়াইতে থাকে। এই অগ্নিক্রীড়ার নাম ফুল খেলা । গাজনের সময় বাঙ্গালার প্রায় সৰ্ব্বত্রই এই উৎসব হইয়া থাকে, কিন্তু সকল স্থানে ইহার জাক সমান নয় । গভর্ণমেণ্ট কর্তৃক চড়কপূজা রহিত হওয়ায়, অনেক গ্রামে আর এখন ফুল খেলার ঘটা নাই । বাজি—অন্নপ্রাশন, যজ্ঞোপবীত, বিবাহ, দোল, রাসযাত্রা প্রভৃতি উৎসবে অনেককাল হইতে বাঙ্গালায় বাজি পোড়ানোর প্রথা চলিয়। আসিতেছে । তন্মধ্যে বিবাহ দোল এবং রাসযাত্রাতে ইহার ঘট। কিছু বেশী রকম। নিম্নলিখিত বাজিগুলি অধিক প্রচলিত অাছে। রংমশাল–গন্ধক শতকরা ২২ ভাগ, সোরা ৭০, হরিতাল ৫, অরহর কয়লা ২॥; এই কয়েক দ্রব্য প্রথমে পৃথক পৃথক লইয়া উত্তম রূপ চুর্ণ করিবে, তাহার পর সাবধানে একত্র মিশ্রিত করিয়া কাগজের লম্ব চোঙ্গার ভিতর পূরিবে। রাত্রিতে ইহার একমুখে অগ্নি লাগাইলে উত্তম শ্বেতবর্ণ আলো হয়। তুবড়ী—সোরা শতকরা ৫৪ ভাগ, গন্ধক ৬॥, পারা ৩, মুদ্রাশঙ্খ ১, হরিতাল ১৬, কয়লা ৩; প্রথমে পার ও গন্ধক একত্র মিশ্রিত করিবে । তৎপরে হরিতাল এবং মুদ্রাশঙ্খ একত্র মাড়িয়া লইবে । অবশেষে সমস্ত দ্রব্য একত্র পেষণ করিবে । মৰ্দ্দন করা হইলে তাহাতে ১৬ ভাগ লৌহ চূর্ণ মিশ্রিত করিয়া লইবে । মাটর তুব: ড়ীর ভিতর এই চুর্ণ পুরিরা অন্ধকার রাত্রিতে অগ্নি দিলে উত্তম ফুল উঠিতে থাকে। তুবড়ীর বারুদ অধিক মাড়িবে না কিম্বা তুড়িীর ভিতর অধিক ঠাসিয়া পুরিবে না। হরিদ্রাবর্ণ আলো—সোরা শতকরা ২৭ ভাগ, গন্ধক ২৭, লবণ ১৯, বন্দুকের বারুদ ২৭, একত্র মিশ্রিত করিবে । নীলবর্ণ আলো—ক্লোরেট অব পটাস্ শতকরা ৭৫ ভাগ, গন্ধক ৮, জাঙ্গাল ১৭; ক্লোরেট অব পটাস ও গন্ধক পৃথকৃ পিষিয়া সমস্ত দ্রব্য একত্র মিশ্রিত করিবে । মিশ্রিত করিয়া আর মাড়িবে না । রক্তবর্ণ আলো-ক্লোরেট্‌ অব পটাস শতকরা ৪৬ ভাগ, গন্ধক ১৬, তাম্রচুর্ণ২৩, কয়ল। ১৫; গন্ধক ও ক্লোরেট আৰু পটাস পৃথক চূর্ণ করিয়া সমস্ত দ্রব্য একত্র মিশ্রিত করিৰে । মিশ্রিত করিয়া আর মাড়িবে না । बागला-cगाझा • तलकब्र ५० छांश्र, श्रझक s२, Iso ] অগ্নিক্রীড়া 麟 بيايي কয়ল ৭, লৌহ চূর্ণ ৩১ ; এই কয়েকদ্রব্য পূৰ্ব্বোক্ত মত চূৰ্ণ করিয়া মিশ্রিত করবে। সবুজ আলো—নাইটেট, জব ব্যারাইট শতকরা ৬১ ভাগ, গন্ধক ২•, ক্লোরেট অব পটাল ১৫,ভূষাচুর্ণ ৪ : গন্ধক ও ক্লোরেট অব পটাস পৃথক পিষিয়া সমস্ত দ্রব্য একত্র মিশ্রিত করিবে। কারণ, ক্লোরে অব পটাস ও গন্ধক একত্র মাড়িলে চট পট শন্ধ হইয়। তৎক্ষণাৎ প্রজ্জ্বলিত হইবে। মিশ্রিত করিয়া আর মাড়িবে না । লাল আলো—ক্লোরেট অব পটাস্ শতকরা ৯ ভাগ, নাইট্রেট অব ষ্টনশিয়া ৬৫, গন্ধক ২১, কয়ল। ৫ ভাগ । গন্ধক ও ক্লোরেট অব পটাস পৃথক পৃথক চূর্ণ করিয়া অন্তান্ত চুর্ণের সঙ্গে মিশ্রিত করিবে। মিশ্রিত করিয়া আরমাড়িবে না।ইহা রক্তবর্ণের তুল্য ঘোর আলো নহে। তারাবাজি—প্রথমে তারা প্রস্তুত করিতে হর । উপরে নানা প্রকার বর্ণের আলোকের কথা লিখিত হইল । যে বর্ণের তার করিতে ইচ্ছা হইবে, সেই বর্ণের বারুদ অর জলে গুলিয়া ছোট ছোট গোলাকার বর্ভূল নিৰ্ম্মাণ করিবে। পরে সেই বঁটুলে বন্দুকের বারুদ মাখাইয় শুষ্ক করিবে । এই গুলিকে তার কহে । তারার খোল—দুই পৰ্ব্ব তলদা বাশের এক দিকের গাইট রাখিবে, অন্ত দিকের গাইট কাটিয়া ফেলিবে । পরে ঐ চোঙ্গার গায়ে উত্তমরূপে পাট জড়াইবে। পাট না জড়াইলে চুঙ্গী ফাটিয়া বায়। পরে সেই চুঙ্গীর থোলের ভিতর প্রথমে বাদলা বারুদ অল্প অল্প গাদিয়! : দেড় ইঞ্চ পূর্ণ করিবে, তাহার উপর অত্যন্ন পরিমাণ বন্দুকের বারুদ দিবে। তাহার পর নলের ছিদ্রপ্রমাণ একটা তার দিবে। আবার তাহার উপর বাদল বারুদ ওবন্দুকের বারুদ এবং তার সাজাইবে। এইরূপ পর্য্যায়ক্রমে যত গুলি তারা দিবে, বাজি পোড়াইবার সময় ভত গুলি তার উপরে উঠিবে। বারুদ অধিক ঠাসিবে না; অধিক ঠাসিলে চুঙ্গী ফাটিয়া যাইবে। হাউই-সোরা শতকরা ৭০ ভাগ, গন্ধক ৫, অঙ্গার ২৫, উত্তম রূপ চুর্ণ করিয়া অনেকক্ষণ একত্র মর্দন করিবে। এক এক পৰ্ব্ব সরু বাশের চুঙ্গীর মধ্যস্থল করাত দিয়া কাটিবে। উহার এক দিকে গাইট থাক। আবশ্বক। পরে ঐ নলের উপরি ভাগ অল্প অল্প চুলিয়। কেলিবে । কিঞ্চিৎ শুষ্ক হইলে নলের উপর কাই দিয়া কাগজ আঁটিবে । সেই কাগঞ্জের উপর পাস্ট জড় ইৰে । কাটা চুকী বা লইবে না। পরে গাইটের