পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/১৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লবণ [ »१8 ] ১৫ অযুধিয়াপুরী-লবণ-লোহিতসাগরের উপকূলে প্রস্তুত হইয় থাকে । - ১৬ আদেন-লবণ-আদেন নগরের নিকট প্রস্তুত হয়। এই লবণ প্রায় প্রতিবৎসর ৩৩ হাজার টন আমদানী হয়। ১৭ মস্কট ও মস্কট্রসেন্ধা-পারস্ত উপসাগর উপকূলে প্রস্তুত । ১৮ লেন্‌চ। লবণ-তিব্বতদেশে উৎপন্ন। ১৯ মণিপুর গ্রন্থতি ক্ষুদ্রদেশজাত বিভিন্ন প্রকার লবণ। এই সকল লবণ ভারতে প্রচলিত থাকিলেও লিভারপুল সহর হইতে যে “Cheshire Salt কলিকাতা, চট্টগ্রাম, রেজুন ও ব্রহ্মের প্রসিদ্ধ বন্দরে আমদানী হয়, তাহার পরিমাণ সৰ্ব্বাপেক্ষা অধিক । ভারতবর্ষের ভূতত্ত্ব আলোচনা করিলে, মৃত্তিকাস্তর বিশেষে লবণের অবস্থান নির্ণয় করিতে পারা যায়। ভূতত্ত্ববিদ ব্লানফোর্ড ও মেডুলিকোট-কোহাট, কাণ্ড ড্রা, বাহাদুরখেল, মণ্ডি, লবণপৰ্ব্বত ও হিমালয়-সন্নিহিত শিবালিক পৰ্ব্বতভাগে প্রচুর লবণের অস্তিত্ব লক্ষ্য করিয়াছিলেন । র্তাহারা ইওসিন বা নিউমুলিটিক্‌স্তরে সিলিউরীয়-যুগস্তরে, পেলিওজোইক্-স্তরে, জিপ্যাম্ব-স্তরে এবং প্রাচীন ও আধুনিক টার্সিয়ারি-যুগস্তরে সৈন্ধব লবণস্তর ( beds of rock-salt ) প্রাপ্ত হইয়াছিলেন। এখনও কোহাট প্রভৃতি স্থানের লবণ-খনি হইতে সৈন্ধব লবণ উত্ত্বোলিত হইতেছে। যুগান্তরীয় মৃৎস্তর হইতে প্রাপ্ত লবণ ব্যতীত ভারতের বিভিন্ন স্থানের সাগরোপকূলে ও হ্রদতীরে স্থানীয় লোকের ব্যবহারার্থ যে সকল লবণ প্রস্তুত হইয়া থাকে, তাহার সংক্ষিপ্ত পরিচয় নিম্নে প্রদত্ত হইল -- মাম্রাজ--এই প্রেসিডেন্সীতে পূৰ্ব্বে সমুদ্রের লবণ-জল বাষ্পাকারে পরিণত করিয়া লবণ প্রস্তুত করিত। স্থানবিশেষে লবণাক্ত মৃত্তিক অথবা ক্ষারজ ভস্ম জলনিষিক্ত করিয়া সেই লবণাক্ত জল হইতে লবণ প্রস্তুত করিয়া লইত। শেষোক্ত প্রথা একবারে পরিত্যক্ত হইয়াছে। প্রথমোক্ত প্রণালীতে যে লৰণ প্রস্তুত হয়, তাহাই স্থানীয় লোকে ব্যবহার করিয়া থাকে। এতদ্ভিন্ন বোম্বাই হইতে কতক লবণ এখানে আমদানী হয়। বাঙ্গলা—পূৰ্ব্বে মেদিনীপুর ও যশোহর জেলায় লবণ প্রস্তুতের প্রধান কারখানা ছিল। বেহার, ভাগলপুর ও মুঙ্গের বিভাগে কতক পরিমাণ লবণ উৎপন্ন হইত। কলিকাতার সন্নিকটবৰ্ত্তী সোরার কলসমূহে সোরা হইতে লবণ বাহির করিয়া লওয়া হইত । উড়িষ্ঠায় এখনও সুৰ্য্যোত্তাপে লবণজল শুকাইয়া লবণ প্রস্তুত হইয়া থাকে। পূৰ্ব্বে কৃত্রিম উত্তাপ দ্বারাও | পাঙ্গা-লবণ প্রস্তুত হইত । লবণ বেরার—এখানে লোণার-হ্রদের জল হইতে এবং আকোলার অন্তর্গত পূর্ণ বিভাগের লবণজলপূর্ণ কুপ হইতে লবণ তৈয়ারী হইত। এখন আর এখানে লবণ প্রস্তুত হয় না । রাজপুতনা–শাস্তুরন্থদ, দ্বিাৰানাহ্রদ ও কাচোর-রেবাসী হ্রদের জল হইতে প্রভূত লবণ প্রস্তুত হইয়া থাকে। বোম্বাই—সমুদ্রের লবণজল স্বৰ্য্যোস্তাপে শুকাইয়া উপকুলদেশে বহুপূৰ্ব্ব হইতেই লবণ প্রস্তুত হইয়া আসিতেছে। কাম্বে উপসাগর তীরে, কচ্ছের রণপ্রেদেশে ও সিন্ধুপ্রদেশে এবং ঠানায় vR* ETTE fHofzl (Thana salt-works) artCE . ইংরাজরাজ লবণের ব্যবসা একচেটিয়া করিষার অভিপ্রায়ে কাম্বের নবাবকে বার্ষিক ৪• হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ স্বরূপ দিয়া ঐ লবণের ব্যবসা রহিত করিয়া দেন। * পঞ্জাব-এখানে প্রধানতঃ সৈন্ধক লবণই উত্তোলিত হয়। সিন্ধুনীর অপর পারে বর জেলার কোহাট ও কালাবাগ এবং লবণগিরিতে (Salt-range ) প্রভূত সৈন্ধব উৎপন্ন হয়। কালাবাগ ও লৰণগিরির সৈন্ধৰ সিলিউরীয় যুগস্তরীয়, কাঙড়ায় s catatü; sifswrit ( Mandi deposits ) signet এতক্তির এখানে গুরগাঁও জেলার লবণাস্বাদযুক্ত কুপঞ্জল হইতে লৰণ প্রস্তুত হইয়া থাকে। উহা শাম্ভর-হ্রদজাত লবণ হইতে নিকৃষ্ট । যুক্তপ্রদেশ–লৰণাক্ত কুপবারি হইতে এই বিভাগের নানাস্থানে লবণ প্রস্তুত হয় ; কিন্তু ইহা অপরাপর স্থানজাত লবণের with few To I of Toto won Sodium Sulphate, magnisium sulphates, sodium carbonate 8 nitre মিশ্রিত দেখা যায়। বুললাসহর ও মুজঃফরনগরে সামান্ত পরিমাণ লবণ প্রস্তুত হয় । আসাম—লবণাক্ত কুপ এবং জোরহাট ও সদিয়ার লবণপ্রস্রবণ হইতে প্রভূত পরিমাণ লবণ প্রস্তুত হয়। কাছাড়, মণিপুর ও চট্টগ্রামের পাৰ্ব্বত্য প্রদেশেও ঐরূপ কুপের লোণজিল হইতে লবণ প্রস্তুত হইয় থাকে। অশিক্ষিত ও অৰ্দ্ধ সভ্য- ' জাতির বঁাশের চোঙ্গে লবণজল ফুটাইয়া লবণ প্রস্তুত করে। ব্ৰহ্ম-পেশুর টার্সিয়ারি যুগস্তরীয় পৰ্ব্বতসমূহে বহশত লবণপ্রস্রবণ অাছে। উহা হইতে স্থানীয় লোকে লবণ প্রস্তুত করে। আকাস্কাৰ হইতে মাগু ই পর্যন্ত সমুদ্রোপকূলে সমুদ্রজল হইতে সামুত্র লবণ প্রস্তুত হয় । । - গবমেণ্ট লৰণের বাণিজ্য একচেটিয়া করিয়া ১৮৮২ খৃষ্টাব্দে লবণের প্রতিমণ ২৪ টাকা শুদ্ধ ধাৰ্য্য করেন । খুীয় বিংশশতাদের প্রারম্ভে ঐ গুদ্ধের হার ২২ টাকার কম হয়। ৰপ্তমান সময়ে ১৯৪৬ খৃষ্টাব্দে কলিকাতার বাজারে