পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৪২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বঙ্গদেশ ( সেনবংশ ) বিজয়ের দীর্ঘরাজত্বকাল মধ্যেই সম্ভবতঃ মল্ল ও গুমিল ইহলোক পরিত্যাগ করেন। এই কায়ণ বিজয়সেনের মৃত্যুয় পরে তাহার অপর পুত্র বল্লাল ১০৪১ শকে ( ১১১৯ খৃষ্টাব্দে ) পিতৃসিংহাসনে অভিষিক্ত হইলেন। বিজয়সেন গোঁড়াধিপ পালরাজকে পরাজয় করিয়া বয়েন্ত্র ভূমে বিজয়চিহ্ন স্বরূপ প্রহ্লামেশ্বরশিবালয় প্রতিষ্ঠিত করিলেও তাহার নিজ রাজধানীতে প্রত্যাবর্তনের সহিত ভাগীরথীর উত্তরতীরবর্তী অধিকাংশ জনপদ আবার পালবংশের শাসনাধীন হইয়াছিল। বল্লালসেন রাজপদে আসীন হইয়াই গৌড় হইতে পালবংশকে বিতাড়িত করিয়া মিথিলা পৰ্য্যস্ত জয় করিয়াছিলেন, মিথিলা বিজয়কালেই তাহার প্রিয় পুত্র লক্ষণসেন ভূমিষ্ঠ হন, সেই ঘটনা চিরস্মরণীয় করিবার জন্যই তিনি লক্ষ্মণ-সংবৎ ( ল সং ) প্রচলিত করিয়াছিলেন। গৌড় হইতে মিথিলা পৰ্য্যন্ত এক সময় সৰ্ব্বত্র এই অদ প্রচলিত ছিল, বল্লালসেনের পিতা ও পিতামহ সকলেই বেদনিষ্ঠ শৈব ছিলেন । বল্লাল ও প্রথমে পৈতৃকধৰ্ম্মে একান্ত নিষ্ঠাবান ছিলেন, কিন্তু সমস্ত গৌড়রাজ্য অধিকার ও গৌড় নগরে রাজপাট স্থাপনের সহিত বল্লাল দেখিলেন যে, তাহার অধিকাংশ প্রজাই বৌদ্ধ তান্ত্ৰিকধৰ্ম্মামুরক্ত। বহু চেষ্টাতেও তাহার পিতা পিতামহ বৌদ্ধতন্ধুের প্রভাব এক কালে থৰ্ব্ব করিতে সমর্থ হন নাই । পালরাজগণের প্রসঙ্গে পূৰ্ব্বেই লিপিয়াছি, রাঢ়ের পূৰ্ব্বতন প্রভাবশালী সারস্বত ( সপ্তসতা) ব্রাহ্মণীদগকে হস্তগত করিবার জন্ত ধৰ্ম্মপাল প্রমুখ পালরাঞ্জগণ অনেক রাঢ়ীয় সারস্বত বি প্রকে আনিয়া বরেন্সভূমিতে প্রতিষ্ঠিত করিয়াছিলেন। তাহাদের মধ্যে অনেকে পালরাজগণের অনুকরণে ও দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান প্রমুখ বৌদ্ধ তান্ত্রিকগণের ধৰ্ম্মোপদেশগুণে বৌদ্ধতন্ত্রে অসুরক্ত হইরা:ছলেন । বল্লাল এই রূপ বারেন্দ্র সারস্বত বিপ্রবংশসস্তৃত অনিরুদ্ধ ভট্ট নামক এক ব্যক্তির শিষ্যত্ব গ্রহণ করেন, সেই সঙ্গে তাহার মতিগতিও ফিরিল। তিনি প্রথমে তান্ত্রিক মতেই অসুরক্ত হইয়া পড়িলেন । তিনি তন্ত্রোক্ত বিধি অনুসারে অতি নীচজাতীয় রমণী ও বেশ্বাদি লইর ভৈরবী চক্রের অনুষ্ঠান করিতে লাগিলেন ; তজ্জন্ত প্তাহার পিতা ও পিতামহের সময়কার নিষ্ঠাবান ব্রাহ্মণ সন্তানগণ বঙ্গালের আচরণে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হইলেন, প্রচ্ছন্ন বৌদ্ধভাব বল্লালের হৃদয় অধিকার করিয়াছে ভাৰিয়া বৈদিক ব্রাহ্মণনায়েই বল্লালের নিন্দ করিতে লাগিলেন। এই উপলক্ষেই তাহার চৰ্ম্মকার ৰ ডোম-কস্তার পাণিগ্রহণপ্রবাদ রচিত হইল। এমন কি, বৈদিক বিপ্রগণের ষড়যন্ত্রে লক্ষ্মণসেন পিতার বিরুদ্ধাচরণ করিতে প্রভত হইয়াছিলেন। এই সময় রাজনীতিকৌশল বল্লাল একদিকে নিজ রাজপদ রক্ষণ ও অপরদিকে প্রজাদিগকে সন্তুষ্ট রাখিবার অভিপ্রায়ে প্রিয়পুত্র লক্ষ্মণের চরিত্রে দোষারোপ করি? [ 8२७ 1 | বঙ্গদেশ ( সেনবংশ ) - কিছুদিনের জষ্ঠ তাহাকে রাজ্য হইতে নির্বাসিত করিলেন। ईशब्र गव्र ऊिनि श्लूि जनगौशांब्रगएक निज भऊांश्वउँी कग्निबॉब्र অভিপ্রায়ে প্রাচীন হিন্দুতন্ত্রোক্ত ধৰ্ম্ম আশ্রয় করিলেম, তখনও এ দেশে হিন্দুতন্ত্রগুলি বৈদিকের নিকট বেদবিরুদ্ধ বলিয়াই গণ্য ছিল, সেই সময়ের হিন্দু ও বৌদ্ধতান্ত্রিকগণের মত কতকটা মহানিৰ্ব্বাণতন্ত্রে বর্ণিত হইয়াছে। মহানিৰ্ব্বাণ-তন্ত্রকার ঘোষণা করিয়া গিয়াছেন, "এখন বৈদিক মন্ত্র সকল বিষহীন সর্পেন্ন স্থায় বীৰ্য্যহীন। কলিযুগে একমাত্র তথ্রোক্ত কাৰ্য্যমাত্রই শীঘ্ৰ ফলপ্রদ”। মহারাজ বল্লালসেন তঞ্জামুৰী হইয় প্রথমতঃ ঐক্লপ বেদবিরুদ্ধ মতই প্রচার করিয়াছিলেন, তাহাতে বৈদিক বিপ্রসমাজ, বল্লালসেনের কোন কোন আত্মীয় এবং উত্তররাষ্ট্ৰীয় ও অভিনৰ বারেজ কায়স্থসমাজ বল্লালসেনের বিরোধী হইয়াছিলেন , এ দিকে তান্ত্রিক ধৰ্ম্মের পক্ষপাতী কনৌজিয়া বিপ্রসন্তান রাষ্ট্ৰীয়-ধায়েন্ত্রগণ অনেকে র্তাহাঙ্গের অধিপতির পক্ষপাতী হইয়াছিলেন। সেন বংশের সম্পর্কিত বঙ্গজ কায়স্থ-সমাজও বল্লালসেন্সের পক্ষ সমর্থন করেন। যে যে সমাজ গৌড়াবিপের তাঞ্জিক ধৰ্ম্ম অনুমোদন করিয়াছিলেন, বল্লালসেন তাহাদগকে লইয়া, নুতন সমাজ গঠন করিলেন। তাহা হইতেই বল্লালসেনের অভিনব কৌলীন্ত-মৰ্য্যাদায় কৃষ্টি । প্রথমে যাহারা তাধিক ধৰ্ম্মান্নুরক্ত, বিদ্বানু, বুদ্ধিমান, কুলাচাপ্পী ও তান্ত্রিক ক্রিয়ায় সুদক্ষ ছিলেন, তাহাদিগকেই গোঁড়াধিপ সৰ্ব্ব প্রথমে সন্মানিত করেন এবং তাহারাই প্রথমে কুলীন বলিয়া বল্লালসভায় পূজিত হইয়াছিলেন। যাহা হউক, অল্পকাল মধ্যে গৌড়বঙ্গে সৰ্ব্বত্রই রাজা বল্লালসেনের উৎসাহে হিন্দুতান্ত্রিক মত প্রবর্তিত হইল, বৌদ্ধতান্ধিকগণ সহজেই এখন হিন্দুতান্ত্রিকগণের সহিত সন্মিলিত হইতে লাগিল । রাজা বৌদ্ধদ্বেষী, তাহার প্রধান অমাত্য বৌদ্ধদিগকে অতি ঘৃণার চক্ষে দেখেন ; সুতরাং রাজতয়েই হউক, অথবা রাজার অনুগ্রহলাভাশায় হউক, প্রজা সাধারণ বৌদ্ধ মত পারত্যাগ করিয়া হিন্দুতান্ত্রিকের আশ্রয় লইতে লাগিল। যাহার হিন্দু তথ্রোক্ত ধৰ্ম্ম ন মানিয়া বৌদ্ধধৰ্ম্মে আস্থা দেখাইতে লাগিল, তাহার রাজাদেশে অতিহীন বর্ণ বলিয়া গণ্য হইল। পূৰ্ব্বেই বলিয়াছি,বল্লালও তাহায় পিতা পিতামহগণেরষ্ঠায় প্রথমে শৈব ছিলেন, তাহ তাহার "নিঃশঙ্কশঙ্কল্পগৌড়েশ্বর” উপাধিল্প মধ্যেই দেখা যায়। কিন্তু শক্তিমন্ত্রে দীক্ষার পর তিনি ঘোর শাক্ত হইয়া পড়িয়াছিলেন। সমস্ত বঙ্গবাসীকে শক্তিমন্ত্রে দীক্ষিত করিবার জন্য তিনি কুলীন গুরু নিযুক্ত করেন, এবং তাহাদের সম্মানবন্ধনের জন্ত তাম্রশাসন দ্বারা তাহাদিগকে বহগ্রামও দান করিয়াছিলেন। আগমোক্ত প্রমাগত্বারাও তিনি

  • पत्रव्र जाडोह ऐठि६ग ( अlथ"कr७) ** ज५१७० दश्रु s* शृष्टा ।