পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৫৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বর্ণলিপি [ ৫৯৬ ] বর্ণলিপি > ৩ अ४fई शांख्यकj० निरáल कब्रिब्रां८छ्न “দৰ ভূমিং নিবন্ধং বা কা লেখ্যং তু কাররেৎ। আগামিভদ্রনৃপতিপরিঙ্গালীয় পাখিৰঃ ॥ পটে বা তাম্রপট্রে বা স্বযুদ্রোপরিচিহ্নিতম্। অভিলেখ্যানো বংশুালাজনক মহীপতিঃ ॥ প্রতিগ্রহপরিমাণং দানচ্ছেদোপৰৰ্ণন। স্বছন্তকালসম্পন্নং শাসনং কারয়েৎ স্থির ॥” (১৩১৭৯ ) রাজা ভূমিদান বা কোন চিরস্থায়ী বন্দোৰন্ত করিলে তাবী তত্ৰ নৃপতিগণকে জানাইবার উপযোগী লেখ্য করাইবেন । রাজা কাপালাদি পটে ৰ তাম্রফলকে নিজ বংশীয় পিতৃপুরুষগণের ও প্রতিগুহীতার নাম, প্রতিগ্রহের পরিমাণ ও গ্রাম ক্ষেত্ৰাদি প্রদত্ত ভূমির চতুঃসীমা ও পরিমাণ নির্দেশ করিবেন। উক্ত পত্রে তাহার নিজ দস্তখত, সন তারিখ ও নিজ মুদ্রার চিহ্নিত শাসন করিয়া দিবেন। গ্রীকলেখক নিয়াখুল খৃষ্টপূর্ব ৪র্থ শতাৰো ৰে কাপাসাদি লেখ্যের উল্লেখ করিয়াছেন, তাহাকেই আমরা যাজ্ঞবন্ধ্যোক্ত “পট বলিয়া মনে করিতে পারি। অশোকলিপির পূর্বতন পিপ রাবার বৌদ্ধলিপির অক্ষর । পূর্ণাবয়বসম্পন্ন। এই লিপির পূর্ণাবয়ব গঠিত হইতে বহু শত বর্ষ অতীত হইয়াছিল। যখন ঐন্ধপ সুপ্রাচীন লিপিতে ভারতীয় সকল বাম হইতে দক্ষিণ লিপির মূল পাওয়া ধাইতেছে, তখন ব্রাহ্মী লিপিকেও আমরা ঐক্লপ লিপি বা তাহার প্রাচীন রূপ বলিয়া গ্রহণ করিতে পারি। শ্রুতি, স্মৃতি ও সুপ্রাচীন হিন্দুরাজগণের অমুশাসন সেই ব্রাহ্মী লিপিতেই লিখিত হইত। ঋগ্বেন্ধে দর্শনযোগ্য মন্ত্ৰমূৰ্ত্তি ও বর্ণের উল্লেখ আছে। মিসরে যেমন একই সময়ে চিত্রলিপি ( Hieroglyphics ) ও তাহার news frft (Hieratic characters) risfers fyn, čxfrș আৰ্য্যদিগের মধ্যেও সেইরূপ মন্ত্ৰমূৰ্ত্তিরপ চিত্রলিপি ও বর্ণলিপি প্রচলিত ছিল। পাপিয়ল ( Papyrus ) নামক পত্রে যেমন মিশরীয় আঙ্গি সঙ্কেত লিপি জঙ্কিত হুইত, বৈদিক কালেও সেইরূপ ভূৰ্জপত্রে অথবা ক্ষুন্নত্ৰ দ্বারা কোন পটে লিখিবার প্রথা ছিল ।

  • ॐथब tष कब्रथानि थ**ाज्ञ यहलिङ cनवी वांद्र, उम्रtष] वालयक)भ:श्डिाब्र नश्डि बानक्षकएम्जग्र नभूर्न येक । अरे कन्नन गोकांउ जत्कठल

•ालिङभ१ अझजिड षचिोश७लिन्न ऋषा बालक्क छुखिएक चखि ग्रीम वनित्व प्रtन कtब्रम । भष्ट्रक बांब क्ङ्गिcव नकल प्रांक ब्रामांकन ● मशीछां★क $क७ इश्चाप्s, डाशन चानक cशांक थांबद्रा बाजरकrाश्रिङ शाश्वहि। sढ” स्थान वास्त्रश्का बर्षमाज(रू बूकप्क्रपन्न दह भूक्रौिँ पनिङ्ग अश्१ करिख् अग्नि चाणस् िवोकिएरुङ्ग न । বেদাঙ্গের অন্ততর শিক্ষাগ্রন্থে বর্ণিত আছে,-"শষ্ণুর মতে— প্রাকৃতে এবং সংস্কৃতে যথাক্রমে ত্ৰিবষ্টি ও চতুঃষষ্টি বর্ণ প্রসিদ্ধ । তন্মধ্যে স্বরবর্ণ একবিংশতিট, স্পর্শ বর্ণ জর্থাৎ ক হইতে ম পৰ্য্যন্ত বর্গীয় বর্ণ পচিশটা, যাদি বর্ণ অর্থাৎ ৰ ব র ল শ ষ স হ এই আটট এবং যম বা যুগ্মবৰ্ণ (?) চারিটা। এতছিন্ন অস্থার, বিসর্গ, জিছামূলীয়, উপস্থানীয়, ছ-ই স্কার এবং ত, এই সমষ্টি লইয়া চতুঃষষ্টি বর্ণ। ‘আত্মা বুদ্ধির সহিত মিলিয়া বচনরচনবাসনায় মনকে প্রেরণ করেন। তখন মন কায়াগ্নিসুক আহত কল্পিতে থাকে । অগ্নি বায়ুকে প্রেরণ করে। বায়ু হৃদয়দেশে বহিয়া ধীরে ধীরে স্বর উৎপাদন করে। ঐ স্বর প্রাতঃস্নানের সাহচর্য্যে গায়ীচ্ছদে, মধ্যাহে কষ্ঠেখিত মধ্যম ত্রিইভ ছলে এবং সারাহে অত্যুচ্চ শীর্ষণ্য জগতীচ্ছন্দে পরিণত হয়। বায়ু ক্রমে উখিত হইয়৷ শীর্ষদেশে অভিহত হয়, পরে তথা হইতে মুখে আসিয়া বর্ণ-সমষ্টি প্রকাশ করিতে থাকে। ঐ বর্ণসমষ্টি পাচ ভাগে বিভক্ত। বথা,-স্বর, কাল, স্থান, প্রধত্ব ও অকুপ্রদান । বর্ণাভিজ্ঞগণ উক্ত পাঁচ ভাগেই বর্ণ বিভাগ নির্দেশ করিয়াছেন। ‘স্বর ত্রিবিধ—উদাত্ত, অমুদাত্ত ও স্বরিত। অচ, বা স্বর , বিষয়ে উক্ত তিন স্বর এবং হ্রস্ব, দীর্ঘ ও প্লুত ইহারাই কালতঃ নিয়ত বা নিয়মবদ্ধ। উদাত্ত স্বর হইতে নিষাদ ও গান্ধায়, আলুদাত্ত হইতে ঋষভ ও ধৈবত, এবং স্বরিত হইতে বড় জ, মধ্যম এবং পঞ্চম স্বরের উদ্ভব ।’ ‘বর্ণ-সমষ্টির উচ্চারণের স্থান আটট, যথা–হৃদয়, কণ্ঠ, শিল্প, জিহামূল, দন্তসমূহ, নাসিক, ওষ্ঠ ও তালু ও ভাব, বিবৃত্তি, শ ষ স, রেফ, জিছামূল ও উপঋ, এই আটট হইল উন্ম বর্ণের প্রসিদ্ধ গতি। 'ও' ভাবটী উকারাস্তাদি পদে সংহত দেখা যায় বটে, কিন্তু ঐয়প পদ স্বরান্ত বলিয়াই বুঝিতে হইবে। এতদ্ভিন্ন অপরত্র যে যে পদে উন্মৰণের অভিৰ্যক্তি, সেই সেই পদও তক্ষপ স্বরাস্ত বলিয়াই বিজ্ঞেয়। হকার পঞ্চ স্বরে ও অভ্যন্থ বর্ণসমূহে মিলিত হইলে তাহা হৃদরোৎপন্ন জায় জমিলিতাবস্থায় কণ্ঠোখিত ৰলিয়াই জানিতে হইবে।'s • ডিম্বষ্ট-চতুঃষষ্টির্ব বর্ণ: শঙ্কুমত্তে মন্ত । প্রাকৃষ্ণে সংস্কুণ্ডে চাপি স্বয়ং প্রোক্ত স্বয়ষ্ণুৰ । ৰঙ্গ। ৰিপেক্তিয়েকশ স্পর্শানাং পঞ্চৰিংগতিঃ । ৰায়শ স্থত হয়ে চারশ বগা: স্থতা: ॥ } (chstf* *affixs می< پة باید چrwwits frn fه ছু পৃষ্টশক্তি বিজ্ঞয়ে ৯কায় দত এৰ চ । चाञ्च बूका नम्बरु|ोपीब्रत्न बूढहरू विवक्रद्र। बवः कब्रिबिाइसि न ¢थब्रशखि बाक्छन् ।