পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রোমসাম্রাজ্য [ હ૭ ] রোমসাম্রাজ্য এদিকে সিজারের অনুপস্থিতিতে লেপিডাস নবপ্রবর্ধিত এক আইন অনুসারে তাহাকে ডিক্টেটর নিযুক্ত করিলেন। কিন্তু সিঙ্গার ১১ দিন মাত্র এই সম্মানার্থ পদ লাভ করিয়াই স্বেচ্ছায় উহা পরিত্যাগপুৰ্ব্বক কন্সল নিযুক্ত হইলেন। সাভিলিয়াস্ ভেটিয়া তাহার সহিত কন্সল পদ পাইলেন। কিন্তু সিজার ১১ দিন মাত্র ডিক্টেটরের পদ অলঙ্কত করিয়া অনেক হিতকর আইনের অনুষ্ঠান করিয়াছিলেন। উত্তমর্শ ও অধমৰ্পদিগের সুবিধার জন্ত তিনি এক আইন প্রণয়ন করেন। তৎপরে সাল্লার “প্রসক্রিপশন” অনুসারে যে সমস্ত ব্যক্তিনির্বাসিত এবং সম্পত্তিচু্যত হইয়াছিল, তাহাদিগের পুত্রাদিকে আনয়নপুৰ্ব্বক পূৰ্ব্বসম্পত্তি প্রদান করিলেন এবং আল্পস্ পর্য্যন্ত সমস্ত প্রজাবৰ্গকে রোমবাসীর স্তায় সমভাবে নিৰ্ব্বাচনাধিকার প্রদান করিলেন। তৎপরে তাহার সমস্ত সৈন্ত ব্রাঞ্চুসিয়ামে সমবেত হইলে, সিজার ৪৯ খৃ: পূ: ডিসেম্বর মাসে পল্পির অনুসরণে প্রবৃত্ত হইলেন। এদিকে পম্পি গ্রীস, মিসর এবং এসিয়া খণ্ডের নানারাজ্য হইতে বহুসংখ্যক সৈন্ত সংগ্ৰহ করিলেন । বিবুলা তাহার সেনাপতি হইলেন। নির্ভীক বীর সিজার তথাপি সসৈন্ত ব্রা থুসিয়াম হইতে এপিরাস্ যাত্রা করিলেন। জাহাজের অল্পতানিবন্ধন সিজার প্রথম-বারে কেবল মাত্র ১৫০০০ হাজার পদাতিক এবং ৫০০ অশ্বারোহী লইয়া এপিরাসে উপস্থিত হইলেন । এসিরাসে পৌঁছিয়া পুনরায় সৈন্ত আনিতে তিনি জাহাজ পাঠাইলেন, কিন্তু বিবুলাস এই সমস্ত জাহাজ পথি মধ্যে ধৃত করিলেন। ত্ৰা ধুলিয়ামস্থ সেনাদলের আগমন অপেক্ষ না করিয়া সিজার যুদ্ধ আরম্ভ করিলেন। ক্রমে ওরিকম ও এপলোনিয়া অধিকারপূৰ্ব্বক সিজার পম্পির আশ্রয়স্থান ডিরহাচিয়াম অভিমুথে অগ্রসর হইলেন। আপসাস নদীর উভয় তীরে সিজার ও পম্পির সৈন্ত সকল সজ্জিত হইল। সিজার অবশিষ্ট সৈন্তের জন্য এরূপ উদ্বিগ্ন হইলেন যে, একদিন রাত্রিতে তিনি একাকী ক্ষুদ্র নৌকাযোগে আদ্রিয়াতিক সমুদ্রের মধ্যদিয়া ব্ৰাণ্ডুসিয়ামে যাত্রা করিলেন। অবশেষে আন্টোনিয়াস্ অবশিষ্ট সৈন্য লইয়া সিজারের সহিত মিলিত হইলেন। পম্পি বহু সৈন্যসৱেও সিজারকে আক্রমণ করিতে সাহস করিলেন। সিজার অল্পমাত্র সৈন্য লইয়া পরিখা খননপুৰ্ব্বক পম্পিকে বেষ্টন করিলেন। অকস্মাৎ পম্পি শিবির হইতে নিষ্ক্রান্ত হইয়া অতর্কিত আক্রমণে সিজারের কএকদল সৈন্ত ছিন্ন ভিন্ন করিলেন। তখন সিজার অগত্য সে স্থান পরিত্যাগপূৰ্ব্বক থেসালী যাত্রা করিলেন। থেসালীর অস্তুবন্ত্রী ফার্সিলাস, বা ফার্সিলির নামক স্থানে তার যুদ্ধ সংঘটিত হইল। ৪৮ খৃঃ পূঃ ১ ই আগষ্ট বহসৈন্য থাকিলেও সিজারের বিপুল বিক্রমে পম্পি সম্পূর্ণরূপে পরাজিত হইলেন। পশির বিপুলবিলাসবৈভবপূর্ণ ধনভাণ্ডার ও শিবিরাদি সমস্তই সিজায়ের হস্তগত হইল। পশিপ ভগ্নোৎসাহ হইয়া কএকটা বন্ধুর সহিত পলায়ন করিলেন । অবশিষ্ট সৈন্য এবং সেনাপতিদিগের প্রতি সদ্ব্যবহারপূৰ্ব্বক সিঙ্গার তাহাদিগকে স্বদলভূক্ত করিয়া লইলেন। এইরূপে স্বীয় ভুজবলে সিজার উত্তর-পূৰ্ব্ব ও পশ্চিম রোমসাম্রাজ্যে একাধিপত্য স্থাপন করিয়া স্বহস্তে সুবৃহৎ শাসনদও পরিচালনা করিয়াছিলেন। তিনি যে কুটনীতিবলে রোমের শাসকসমিতিসমূহের সংস্কার ও পরিবর্তন করিয়াছিলেন, সেই অসাধারণ প্রতিভাবলেই তিনি বিজিত নবরাজ্যসমূহের সীমান্তপ্রদেশে শাস্তিস্থাপন করিতে যত্নবান হইলেন। এই সীমান্ত শাসনে বন্ধপরিকর হইয়া তিনি আবশুকীয় দুর্গাদি নিৰ্ম্মাণে অগ্রসর হয়েন, কিন্তু রোমের দূরদৃষ্টক্রমে তিনি সে সীমান্তভিত্তি দৃঢ় করিয়া যাইতে পারেন নাই। অপরের হস্তে তাহার সমাধাভার অর্পণ করিয়া তাহাকে অকালে ইহলোক হইতে বিদায় লইতে হয় । তাহার বাহুবলে অক্ষুন্ন রোম-সাম্রাজ্য পূৰ্ব্বে যুফ্রেটস, নদীতীর ও ককেশন্স প্রদেশ, উত্তরে রাইন, দানিউব ও এলব নদী এবং পশ্চিমে আটলাণ্টিক মহাসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত হইয়াছিল। তিনি প্রাদেশিক শাসনকৰ্ত্তাদিগের কার্য্যকাল কমাইয়৷ স্থানীয় অর্থভাণ্ডার লুণ্ঠনের পথ রোধ করেন। তিনি আশা করিয়াছিলেন যে,অগাষ্টাস এই পথামুবর্তী হইয় তাহার প্রবর্তিত পদ্ধতির অনুকূলতা করিবেন ; কিন্তু দৈবস্তুৰ্ব্বিপাকে অগাষ্টস, প্রতিকুল গতিতে ফিরিলেন। তিনি স্বাধিকার দান (franchise) দ্বার সাম্রাজ্যভিত্তি দৃঢ় রাখিতে মানস করিলেন। প্রাদেশিক শাসনকর্তৃগণকে রাজস্বের অংশাধিকার এবং ট্রান্সপেডেন গলদিগকে রোমবাসীর অধিকার অর্পণ করিয়া সমগ্র ইতালীকে রোমকাধিকারভুক্ত করিয়া লইলেন। এতদ্ভিন্ন তিনি সমগ্র ইতালীয় প্রায়োদ্বীপে একরূপ স্বায়ত্তশাসনপদ্ধতি বিস্তার করিয়াছিলেন । র্তাহার উত্তরাধিকারিবর্গ ক্রমশঃ ঐ সকল প্রথা বিভিন্ন প্রদেশে পরিব্যাপ্ত করিয়া একটা বিস্তৃত সাম্রাজ্যের পত্তন করিতে থাকেন । ৪৩ খৃষ্ট পূৰ্ব্বান্ধে পারদগণ কর্তৃক কড়ছির যুদ্ধে ক্রাসাসের হত্যার প্রতিশোধ লইতে এবং পারদরাজশক্তি খৰ্ব্ব করিতে সিজার স্বীয় বিজয়বাহিনী লইয়া রপযাত্রার আয়োজন করিলেন। প্রজাতন্ত্রীয় সন্ধান্ত অভিজাতবর্গ পূৰ্ব্বে সিজারকর্তৃক অপমানিত ও লাঞ্ছিত হইয়া মরমে মরিয়াছিলেন। এই যুদ্ধের আড়ম্বর দেখিয়া তাহাম্বের ঈর্ষাকটাক্ষ আরও যেন কুটিল গতিতে ফিরিতে লাগিল। তাহার দপ্তম্বদয়ে সিজারের সর্বনাশ করিতে অগ্রসর ' হইলেন। যে দিন সন্ধ্যার সময় সিজার পূর্বদিগ্‌বিজয়ে গমনার্থ প্রভত হইয়া অগ্রসর হইতেছেন, সেই সময়ে ক্রটাসপ্রমুখ