পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


--- রোম-সাম্রাজ্য - -----ہے تھ তদ্বিষেয় লক্ষ্য রাখাই রাজার একমাত্র কৰ্ম্ম। এইরূপ বিচার করিয়া অগষ্টস্ স্বেচ্ছায় রাজসিংহাসন ত্যাগ করিলেন এবং যে অলৌকিক শক্তিপ্রভাবে তিনি ৪৩ খৃঃ পূৰ্ব্বা হইতে রোমের শাসন ও ধারণ করিয়া আসিতেছিলেম, তাহ “রোমের সাধারণ প্রজাপুঞ্জের ও সেনেটের সদস্তবৃনের কর্তৃত্বাধীনে সাধারণতন্ত্রে ভারাপণ করিলাম” বলিয়া স্বয়ং অবসর গ্রহণ করিলেন । তদনুবলে পুনরায় রোমরাজ্যে সেনেট,এসেম্রি ও মারিষ্ট্রেসির কার্য্য প্রবর্তিত হইল এবং অক্টেভিয়ান রোমের “স্বাধীনতাদাতা” (Restorer of Common wealth and Champion of freedom) বলিয়া বিঘোষিত হইলেন। কিন্তু তিনি প্রকৃতপক্ষে রোমসাম্রাজ্যের শাসনদও ৪৩ খৃষ্ট পূৰ্ব্বাদ হইতেই গ্রহণ করিয়াছিলেন। উক্ত বর্ষে তিনি "Imperiuu” শক্তিতে ভূষিত ছিলেন। তৎপরে ৩৩ খৃঃ পূঃ সাধারণের সম্মতিতে "Imperator" বলিয়া গৃহীত হন। তদনন্তর ২৭ খৃঃ পূঃ হইতে ১৩ খৃষ্টাব্দ *ÉFI “Proconsulare imperium" vfsgfHet sfSIr fsf... সাম্রাজ্যের প্রকৃত অধিনায়ক সম্রাটের তুল্যমৰ্য্যাদ হইয়াছিলেন। ২২ খৃঃ পূঃ তিনি “cura antonne” এবং লেপিডাসের মৃত্যুর পর ১২ খৃঃ পুঃ তিনি "Pontifex maximus” পদলাভ করিয়া একাধারে ধৰ্ম্ম, অর্থ, কাম ও মোক্ষের পূর্ণ প্রভাব লইয়। বিদ্যমান ছিলেন। রাজ্যশাসন সম্পৰ্কীয় শ্রেষ্ঠ পদে আসীন হইয়। তিনি বিবিধ সংস্কার দ্বারা রাজ্যের কুশলতা স্থাপন করিয়াছিলেন। তিনি রাজ্যের প্রজাবর্গের ক্ষেত্ৰজাত দ্রব্যাদির হিসাব লইতেন এবং যাহাতে রোমরাজ্যবাসী জনগণ অরবিন মৃত্যুমুখে পতিত না হয়, তদ্বিষয়ে বিশেষ লক্ষ্য রাখিতেন। ইহাদ্বারা তাহার ধৰ্ম্ম, অর্থ ও কার্য্যে সাধারণের বিশেষ সুবিধা খটিয়াছিল। পন্টিফেক্স মাক্সিমাস হইয়া তিনি বিস্তাশিক্ষার উন্নতিকল্পে মানসিক বৃত্তিনিচয়ের স্ফৰ্ত্তিানদ্বারা লোকের মোক্ষমার্গও সুসংস্কৃত করিয়া দিয়াছিলেন। র্তাহার সুসম্বন্ধ এই শাসনপ্রণালীকে critte "Maxims of Augustus" বলিত । ডাইওক্লিসিয়ানের রাজত্বকাল পর্য্যন্ত এই নীতিকুশল প্রণালীতেই রোমরাজ্য শাসিত হইয়াছিল। জুলিয়াস সিজার বাহুবলে রোমবাসীর চিন্তু উীতিবিজড়িত করিয়া যাহা করিতে পারেন নাই, আগষ্টাস সিজার অনায়াসে শাস্তি ও সহিষ্ণুতাবলে তাহা সুসম্পন্ন করিয়া গেলেন। তিনি লোকের চিত্তবিনোদনার্থ যে রাজপদ একদিন তুচ্ছ করিয়া প্রজাতন্ত্রের প্রভাববৃদ্ধির জন্য সেনেট ও এসেম্রির হস্তে যে শাসন ভার অর্পণ করিয়াছিলেন, পক্ষাস্তরে তাহারাই তাহাকে অতিরিক্ত শক্তিদান করাইলেন। কেবল মাত্র “কমিসিয়া” র্তাহীর জীবদ্দশায় রাজবিধিপ্রণয়নে অধিকারী ছিলেন, কিন্তু তাহার উত্তরাধিকারী টাইবেরিয়াসের রাজ্যকালে এই ব্যবস্থাপক { &సి 1 রোম-সাম্রাজ্য সভা দুইটী মাত্র আইন প্রবর্তন করিয়াই ক্ষান্ত হইয়াছিলেন । তাহার পর ঐ সভার ক্ষমতা হ্রাস হয়। অগাষ্টাঙ্গ জীবিতকালে যে সকল বিষয় কার্ঘ্যে পরিণত করিয়া যাইতে পারেন নাই, তাহীর চিরপোধিত শেষজীবনের সেই আশাগুলির নিম্পাদনভার স্বীয় উপযুক্ত দত্তকপুত্র টাইবেরিয়াসের উপর দ্যস্ত করিয়া যান। তিনি স্বীয় দত্ত্বককে পুৰ্ব্বাস্তুেই রাজশক্তির প্রতিভা দান করিয়াছিলেন। আইন প্রবর্তন ও প্রচলিত-বিধির সংস্কারাধিকার (Censorial and tribunitian) লাভ করিয়া অবধি টাইবেরিয়াস রাজসরকারে যথেষ্ট প্রতিপত্তি বাড়াইয়া লইয়াছিলেন, অগাষ্টাসের জীবৎকালে তাহার কার্য্যে প্রতিবাদ করিবার জন্য একজন লোকও দণ্ডায়মান হইতে সাহস করে নাই। পিতার এই অমান্তৰিক শক্তি ও প্রভূত্ব দেখিয়া টাইবেরিয়াম্ স্বীয় শক্তি আয়ত্ত্ব করিতে চেষ্টা করিলেন। ক্রমশঃই তিনি দাস্তিক ও মদগৰ্ব্বে মত্ত হইয়া পড়িলেন। নিষ্ঠুরতা, অত্যাচার, শঠতা, কপটতা প্রভৃতি র্তাহার অঙ্গের আভরণ হইয়া উঠিল । তিনি স্বীয় শক্তি অক্ষুণ্ণ রাখিতে চেষ্টা পাইলেন। অগাষ্টাস যে রাজশক্তির পরাকাষ্ঠীয় প্রজাতন্ত্রের অধীশ্বরত্বলাভ করিয়াছিলেন, তাহার পুত্র টাইবেরিয়া স্বীয় দাম্ভিক বুদ্ধির বশবর্তী হইয়৷ প্রজাতন্ত্রের সমস্ত স্বাধিকার লোপ করিলেন । দেখিতে দেখিতে কমিলিয়, মেজিষ্ট্রেলী,কন্সল,প্রিটর, ইডাইল, টিবিউমেট, কুইষ্টর প্রভৃতি পদ বা তৎপদাভিষিক্তের কার্য্য নাম মাত্র রহিল, কেহ পূৰ্ব্বমত আপনাপন ক্ষমতা পরিচালন করিতে সমর্থ হইলেন না। টাইবেরিয়াসের মৃত্যুর পর ৩৭ খৃষ্টাৰে কালিগুলা সাম্রাজ্যধিকার প্রাপ্ত হন। তিনি দুৰ্ব্বত্ত, কোপনস্বভার, গৰ্ব্বিত ও জ্ঞানশূন্ত উন্মাদপ্রকৃতির লোক ছিলেন। তাহার পর ৪১ খৃষ্টাব্দে যথাক্রমে নিৰ্ব্বোধ ক্লডিয়াল, ৫৪ খৃষ্টাব্দে নরপিশাচ নিরে, ৬৮ খৃঃ অঃ গালৰ, ৬৯ খৃষ্টাৰে ওথে এবং পশুপ্রকৃতিক নিষ্ঠুর অত্যাচারে আমোদ প্রিয় ভিটেল্লিয়াস রোমের রাজপদ অধিকার করেন। তদনন্তর উক্ত বর্ষের শেষকালে ভেস্পেসিয়ান্‌ মসনদে আরোহণ করিয়া ইতালীয় নগরবাসী এবং পশ্চিম-সাম্রাজ্যবিভাগের প্রদেশবাসী লাটি জাতির মধ্য হইতে সেনেটের সভ্য মনোনীত করিবার আদেশ প্রচার করিলেন। ইহাতে রোমক সেনেটের শক্তি অনেকটা বিস্তৃত হইয়া পড়িল। তাহার পর ৭১ খৃষ্টাব্দে ডাইন্টাস, ৮১ খৃষ্টাব্দে কাপুরুষ ডোসিটিয়ান, ১৬ খৃষ্টাব্দে নের্ত, ৯৮ খৃষ্টাব্দে টিজান ও ১৭৭ খৃষ্টাৰে হাদ্রিয়ান বথাক্রমে রোমের রাজপদ অলঙ্কৃত করেন। তাহারা সকলেই ভেস্পেসিয়ানের প্রবর্হিত প্রথার অনুসরণ করিয়া রোমীয় সেনেটের প্রবল প্রতাপ খৰ্ব্ব করিয়াছিলেন। রোমকগণ স্বেচ্ছায় ও সজ্ঞানে যে