পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/১২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


चैौकांब कब्रिाड श्रें८य, cष प्रथकब्र व झःषकब्र वजिब्रा কিছুই অহাত নাই। যখন যে বস্তুকে মুখকর বা ছখকর दणिग्ना ८रतं५ इब्र, उथनहे उांश बांब्रां यथांब्रह्म श्रृंथ द इःथ ভোগ হইয়া থাকে। 'অতএব মুখ দুঃখাদি বুদ্ধির ধৰ্ম্ম । স্কায় ও বৈশেষিক দর্শন মতে সুখ দুঃখ ভোক্তত্ব প্রভৃতি জীবাত্মার ধৰ্ম্ম, অর্থাৎ জীবাত্মাই মুখ দুঃখাদি ভোগ করে সাংখ্য, পাতঞ্জল ও বেদান্তদর্শনের সহিত এই বিষয় লইয়া মতভেদ আছে। বেদান্ত, সাংখ্য ও পাতঞ্জল भाऊ-द्देश বুদ্ধির ধৰ্ম্ম, বুদ্ধিই মুখ চুঃখাদি ভোগ করে, আত্মা বুদ্ধিপ্রতিবিম্বিত হইলেই আমি সুখী আমি দুঃখী ইত্যাদি অনুভব করে বটে, কিন্তু তাহা ভ্রম মাত্র, স্বপ্ন দৃষ্ট পদার্থের স্থায় তাহা অলীক। “বন্ধমোক্ষং সুখং দুঃখং মোহাপত্তিশ্চ মায়য়া । স্বপ্নে যথাত্মনঃ থ্যাতিঃ সংস্থতিন তু বাস্তবী ॥” (সাংখ্য ভাষ্য) আত্মা মায়াখ্য প্রকৃত্যুপাধি দ্বারা বন্ধ, মোক্ষ, মুখ, দুঃখ প্রভৃতি প্রতিবিম্বরূপে অনুভব করে । বাস্তবিক ইহা আত্মার স্বরূপ নহে । প্রকার যুক্তি প্রদর্শিত হইয়াছে। “প্রকৃতে: ক্রিয়মাণানি গুণৈ: কৰ্ম্মাণি সৰ্ব্বশ: | অহঙ্কারবিমূঢ়াত্মা কৰ্ত্তাহমিতি মন্ততে।” ( সাংখ্য ভাষ্য) প্রকৃতিসদ্ভূত গুণ দ্বারা ক্রিয়মাণ কাৰ্য্য সকল আত্মা অহঙ্কারবিমূঢ় হইয়া আমিই কৰ্ত্ত এই প্রকার বিবেচনা করিয়া থাকে । বাস্তবিক আত্মার স্বরূপ ইহা নহে । "নিৰ্ব্বাণময় এবায়মাত্মা জ্ঞানময়োইমলঃ । ছ:থাঞ্জানময় ধৰ্ম্ম প্রকৃতেন্তে তু নাত্মনঃ।” ( সাংখ্য ভাষ্য) আত্মা, নিৰ্ব্বাণময়, জ্ঞানময়, অমল। প্রকৃতির ধৰ্ম্ম সকল দুঃখময় ও অজ্ঞানময়, ইহা আত্মার নছে । কিন্তু স্তায় ও বৈশেষিক মতে, জীবাত্মাকে যদি প্রকৃতি স্থানীয় করা যায়, তাহ হুইলে দুই মতের উত্তমরূপ সামঞ্জস্ত হইতে পারে। সাংখ্যমতে প্রকৃতিকে জগতের আদিকারণ বলিয়া কথিত হইয়াছে । “প্রকৃতি: প্রকরোতি ইতি প্রকৃতি আদিকারণং ” (সাংখ্যদ") প্রকৃতির পরিণাম দুই প্রকার, স্বরূপ পরিণাম ও বিরূপ পরিণাম । স্বরূপ পরিণামে প্রকৃতির বিকৃতি হয় না। যখন বিরূপ পরিণাম হয়, তখন প্রথমে প্রকৃতির ৭টা বিকৃতি জন্মে। ** विकांब "नार्थ, अहे ५७ी इहेड cरून थकाब्र বিকার জন্মে না । পুরুষ ইহার অতীত। পুরুষ বা জায়া °ििछ७ नग्न बिकृडि७ मङ्ग, ७हे थकृडिहे आञ्चाय्क मांनी थकाप्द्र बिट्यांश्ऊि कावृ। श्राद्या ७ङ्कठिद्र यांब्रांब्र আপনার স্বরূপ জানিতে পারে না, প্রকৃতিই সমস্ত মুখ ইখিনি অহম্ভব করে,তাহা হইলে দেখা যায় প্রকৃতির ধৰ্ম্ম এই প্রকার অনেক WII צסי [ ১২১ ] औवाञ्चन् ও জীবাস্থার ধৰ্ম্ম একই [ প্রস্তুক্তি দেখ। ] ভাস্ক ও বৈশেষিক মতে জীব্যুত্মা আর সাংখ্যাদি মতের প্রকৃতি একই বস্তু। • আত্মা শরীরভেদে নানা, অর্থাৎ একটী শরীরের অধিষ্ঠাতা भांच्च वक्रश्न ७की शूझब आद्रकृन्न । यनि जक्रण जबैौ८ब्रब्र अशि ঠাতা এক হইত, তাহা হইলে একের জন্মে বা মরণে সকলেরই জন্ম বা মৃত্যু হইত এবং একের সুখে বা দুঃখে জগন্মণ্ডল স্বধী বা দুঃখী হুইত, যখন সুখদুঃখের এইরূপ নিয়ম রহিয়াছে, তখন অবগুই স্বীকার করিতে হইবে পুরুষ বা আত্মা নানা এবং যে আত্মীয় যে যে প্রকার কার্য্য করে, তাহাকে তদন্থরূপ ফলভোগ করিতে হয়, যদিও আত্মার মুখ ও দুঃখাদি কিছুই নাই, ইহা পূৰ্ব্বেই বলিয়াছি, অক্সা অনেক ইহা সাধিত হইলে একজনের মুখে জগৎ সুখী না হয় কেন? এ প্রকার আপত্তি উখিত হইতেই পারে না । তথাপি যেমন জবাপুষ্পের নিকট অতি শুভ্ৰম্ফটিকও রক্তের ন্যায় প্রতীয়মান হয়, সেইরূপ আত্মার স্বীয় বুদ্ধিস্থ মুখ দুঃখাদিকে আত্মগত বিবেচনা করিয়া আমি সুখী আমি দুঃখী এইরূপ বোধ হয়। সকল ব্যক্তির ঐকাত্মপক্ষে একজনের ঐক্লপ বোধ হইলে সকলের না হয় কেন, এরূপ আপত্তিরখণ্ডন झग्न मां ७द१ पञांषि cझांजन ७ लग्नन कब्रिाउझि हेऊTानि cय् ব্যবহার হইতেছে, তাহা শরীরের ক্রিয়া লইয়াই সমর্থন করিতে হইবে, যেহেতু আত্মার ক্রিয়া বা কর্তৃত্ব কিছুই নাই। আত্মার যখন কিছুই নাই, তখন আত্মার বন্ধ ও মোক্ষ অসম্ভব, কিন্তু এরূপ হইলে প্রত্যক্ষের সহিত বিরোধ উপস্থিত হয়, প্রত্যেক শরীরের অধিষ্ঠাতা যখন এক একটী আত্মা দেখা যাইতেছে, তখন বন্ধ মোক্ষ আত্মার না হইবে কেন ? কিন্তু ইহাতে একটু মনোনিবেশ করিলেই বুঝিতে পারা যায় যে, हेह श्रांज्रांद्र नद्रङ् । “তন্মায় বধ্যতে ইসে ন-মুচ্যতে নাপি সংসরতি কচিৎ। সংসরতি বধ্যতে মুচ্যতে চ নানাশ্রয়া প্রকৃতি: ॥” ( সাংখ্যতত্ত্বকেী ৬২ ফু" ) আত্মা বদ্ধ হয় না, মুক্তও হয় না, প্রকৃতি নানারূপ ধরিয়া বদ্ধ ও মুক্ত হয়। যতদিন পর্য্যন্ত প্রকৃতি পুরুষ সাক্ষাৎকার (অর্থাৎ প্রকৃতি ও পুরুষ বিবেকঙ্কান ) না হয়, ততদিন বিরত হয় না । নর্তকী যে প্রকার মৃত্য দেখাইয়া দর্শকবৃনাকে সন্তুষ্ট कब्रिञ्च ब्रूठा श्हेरङ निबर्डिंठ हग्न, cगहे ७धकान्न थङ्कङि আত্মাকে প্রকাশিত কন্ধিয়া নিবৰ্ত্তিত হয়, অর্থাৎ তখন আত্মা भूङ झछ। श्रांग्र! cय नग्रैौब्र श्रवणशन कब्रिग्नां शूष बां कू:५ ॐङिবিম্ব রূপে ভোগ করে, সেই শরীর দ্বিবিধ, স্থল ও স্বক্ষ । স্থল শরীর মাতা ও পিতা দ্বারা উৎপন্ন হয়। মাতা হইতে লোম,