পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/১৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জৈন { ১৯৭” ] ँञ्जन নিগ্রন্থের সেবা করা বিধেয় (৫৬) । যে এখন সাধু না মানে, তাছার মিথ্যাদৃষ্টি ঘটে। ভগবতীহুত্রের পঞ্চবিংশশতকে ষষ্ঠ উদেশের সংগ্ৰহণীকার সুভয়দেব সুরি লিখিয়াছেন— বকুশ, শবল ও কবুর এই তিন একাৰ্থবাচী, নিগ্ৰস্থকে বুঝায়। এখন ভারতবর্ষে বকুশ ও কুশীল এই দুইপ্রকার নিগ্রন্থ আছে, পূৰ্ব্বোক্ত তিনপ্রকার নিগ্ৰস্থ লুপ্ত হইয়াছে। বকুশ নিগ্রস্থ দুইপ্রকার-উপকরণবকুশ ও শরীর-বকুশ । যিনি বস্ত্রপাত্রাদি উপকরণ দ্বারা বিভূষিত হন, তাহাকে উপকরণ-বকুশ এবং যিনি হস্তপদ নখ মুখাদি অবয়ব বিভূষিত করেন, তিনি শরীরবকুশ । উভয় বকুশের আবার পাঁচ ভেদ আছে ; যথা—আভোগবকুশ, অনাভোগবকুশ, সংবৃতবকুশ, অসংবৃতবকুশ এবং স্বক্ষবকুশ (৫৭) । যাহার চারিত্র কুৎসিত তাহাকে কুশীল নিগ্রন্থ বলা যায় । কুশীল দুইপ্রকার--প্রতিসেবনকুশীল ও কষায়কুশীল। দুইটী আবার জ্ঞান, দর্শন, চরিত্র, তপ ও সূক্ষ্ম ভেদে পাচপ্রকার । আধুনিক জৈনশাস্ত্রকারদিগের মতে যতদিন পৃথিবীতে বকুশ ও কুশীল নিগ্ৰস্থ বৰ্ত্তমান, ততদিন জৈন ধৰ্ম্ম থাকিবে* । কুগুরু । জৈনশাস্ত্রকারগণের মতে—যে সকল বিষয়ের অভিলাষ করে, সৰ্ব্ব দ্রব্য ভোজন করে, যে পুত্র কলাত্রাদির সহিত বাস করে, যে ব্রহ্মচৰ্য্য করে না এবং মিথ্য উপদেশ দিয়া থাকে, তাছাকে কুগুরু বলা যায় (৫৮) । শ্বেতাঙ্গরের বলিয়া থাকেন, কুগুরুর মিথ্যা উপদেশ হইতে ৩৬৩ প্রকার মত উৎপন্ন হইয়াছে। তন্মধ্যে ক্রিয়াবাদীর ১৮০, অক্রিয়াবাদীর ৮০, অজ্ঞানবাদীর ৬৭ এবং বিনয়বাদীর ৩১ মত । ক্রিয়াবাদীরা বলিয়া থাকে যে কৰ্ত্তা ভিন্ন পুণ্যবন্ধাদি (৫৬) “জী সংজময় জীবে স্ব তাব মুলে গুণুত্তর গুণায় । ইস্তুরিয়চ্ছেয় সংজম নিয়ণ্ঠবউ সা পড়িসেবী।” ( জীবানুশাসনস্বত্রবৃত্তি । ) (৫৭) “উবগরণসরীরেসু স্বনে দুহ দুবিহোবি হোই পঞ্চবিহে । অভোগ অণাভোগ অসংবুড় সংবুড়ে মুহুমে ॥” (জৈনতত্ত্বাদশ ধৃত গাথা । ) (৫৮) "সৰ্ব্বাভিলাষিণঃ সৰ্ব্বভোজিন: সপরিগ্রহাঃ । অত্ৰহ্মচারিণে মিথ্যোপদেশগুরবে। মতাঃ ॥” • ६शन बtड, सङ्गठक्झक्रण विसूउछाप्य छानिएउ श्ड्रे८ल अहे मकल এই ইংৰা-আচারাদস্বত্র, ভগবতীপুত্র, ওঘনিযুক্তি, কল্পসূত্র, জিতকল্প १९, ***पकाणिकनूज, निनैषड़ाषाहून, नृश्९कन्नडाशवृखि, मशकछयूब, भईlनिनीषनूज, शब्रिडtजैब्र श्रावष्टकनृजडाषा ७ कझनरअश् এভৃতি। “ 態 4. WII (o o ক্রিয়া হয় না, এই জন্য আত্মার সমবায় সম্বন্ধই ক্রিয় । আত্মাদি নয় পদার্থ অর্থাৎ জীব, অজীব, আশ্রব, বন্ধ, সংবর, নির্জর, পুণ্য, পাপ ও মোক্ষ এই নয় পদার্থ, এতন্মধ্যে জীব আবার স্বতঃ ও পরতঃ এই দুই প্রকার, তাহ আবার নিত্য ও অনিত্য ভেদে দ্বিবিধ। শেষে ঐ দ্বিবিধই আবার কাল, ঈশ্বর, আত্মা, মিয়তি ও স্বভাব ভেদে পাচপ্রকার। অক্রিয়াবাদীরা বলে, পুণ্য পাপ বলিয়া কিছুই নাই, পুণ্য পাপ বলিলেই কোন পদার্থকে বুঝায়, কিন্তু জগতের সর্ব পদার্থই অস্থির, উৎপত্তির পর বিনাশ হইয়া থাকে । অক্রিয়াবাদীরা আত্মাকে মানে নু। তাহদের ৮৪ প্রকার মত যথা— জীব, অজীব, আশ্রব, সংবর, নির্জরা, বন্ধ ও মোক্ষ এই ৭টা তত্ত্ব, জীবাদি প্রত্যেকট স্ব ও পরভেদে দ্বিবিধ, ঐ গুলি কাল, ঈশ্বর, আত্মা, নিয়তি, স্বভাব ও যদৃচ্ছাভেদে প্রত্যেকট আবার ছয় প্রকার ; মোট ৮৪ প্রকার অক্রিয়াবাদীর মত । অজ্ঞানবাদীরা বলে জ্ঞান ভাল নহে, যখন জ্ঞান জন্মে, তখন পরস্পর বিবাদ বাধে, বিবাদ বঁধিলে চিত্ত মলিন হইবে, চিত্ত মলিন হইলে সংসারের বৃদ্ধি হইবে, পুরুষের মনে অভিমান আসিবে । কেহ কিছু ভুল বলিলে সে অভিমানে তাহাকে দুই কথা শুনাইয়া দিবে, তাহাতে ক্রমে অহঙ্কার বাড়িবে, চিত্তের মলিনতাক্রমে মহাপাপ উৎপন্ন হইবে, অতএব জ্ঞানদ্বারা মোক্ষ হয় না । অজ্ঞানই মোক্ষগামী । জীবাদি নধ পদার্থ এবং ১ সত্ব, ২ অসত্ব, ৩ সদসত্ব, ৪ অবাচ্যত্ব, ৫ সদবচোতৃ, ৬ অসদবাচ্যত্ব ও ৭ সদসদবাচ্যত্ব ভেদে প্রত্যেকট ৭ প্রকার ; এই হইল ৬৩ । তৎপরে সত্ব, অসত্ব, সদসত্ব, অবাচ্যত্ব, এই চারি বিকল্প যোগ করিলে সৰ্ব্বশুদ্ধ ৬৭ প্রকার অজ্ঞানবাদীর মত । বিনয়বাদীরা বলে, কেবল বিনয় হইতেই মোক্ষ হয় । সুর, রাজা, জাতি, জ্ঞাতি, স্থবির, অধম, মাতা ও পিতা এই আtটটা আবার মন,বচন, কায় ও দেশ কালভেদে চারি প্রকার, মোট ৩২ প্রকার বিনয়বাদীর মত। ইহার লিঙ্গ ও শাস্ত্র স্বীকার করে না । উক্ত ৩৬০ প্রকার মতাবলম্বীই কুগুরু বলিয়া গণ্য। শ্বেতাম্বর আচার্য্যদিগের মতে বৌদ্ধ *, নৈয়ায়িক , S DDDSBBSBS BBBBBS DDBDDBBS BBSBBSKBBBBSBS BDBBBBBS BDBBBDDBBBBS BBB SBBBB BBBB খণ্ডি" হইয়াছে । † ঞ্জৈনদিগের মধ্যেও অনেক নৈয়ারিক জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন, BDD TBDSDtBBBBB BB BBDlDDgggS BBBBB BB BBBBD S DDD DA DSB BBS BBBS BBBBS ZSBBDD DBB BBS BBB S BBS BDDBBB BBBBBS K0DS DD BBD DDDSSLS ८कब्र श्रावांद्र श्न्मूि :नग्नाग्निकनिtशब्र ८मान निष्ठ शltप्लन नाङ्के । সন্মতিতর্ক, নদীসিদ্ধান্ত, ন্যায়কুমুদচন্ত্র এভৃতি গ্রন্থে নৈয়ারিক মতের 핵 학 |