পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৩২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


खुव्र రిషి • অবসাদের পর অতিরিক্ত ঘৰ্ম্ম হইয়া এই জর হঠাৎ প্রকাশিত হয় । এই জরে গাত্রে প্রিয়জুবৎ উদ্ভেদ জন্মে। স্বেদ জর দেশব্যাপক ও সংক্রামক। সকলের উপর এই জরের প্রভাব একরূপ নহে। জরের আক্রমণ মৃদু হইলে রোগী অবসাদ, ক্ষুধাহানি, চক্ষুদেশে বেদন ও অতিশয় দাহ অনুভব করে। মুখ চট্টচটে ও জিহবা কণ্টক ও মলাবৃত হয় ; কোষ্ঠবদ্ধতা, মূত্রের অল্পত, শ্বাসকষ্ট ও শিরঃপীড়া, নাড়ী চঞ্চল এবং অতিশয় দ্রুত, উদ্ভেদমির্গম প্রভৃতি উপসর্গ জন্মে । कtभ ८ब्रांशैब्र शृष्ठ श्रड मर्फॉरक्र उँtडुन दश्र्शिङ रुग्न ; সৰ্ব্বদাই ঘৰ্ম্ম বিদ্যমান এবং ইহা হইতে পচা ঘাসের গন্ধের ন্তায় এক প্রকার গন্ধ নিঃস্থত হইতে থাকে। উপসর্গগুলি ১৪|১৫ দিনের অধিক কাল স্থায়ী হয় না ; সাধারণতঃ ৮৯ম দিবসেই অন্তৰ্হিত হয় । জরের আক্রমণ প্রবল হইলে জর আসিবার কয়েক দিন পুৰ্ব্ব হইতেই রোগী অতিশয় মবসাদ ও ক্ষুধাহানি অনুভব করিতে থাকে। শীত, রোমাঞ্চ, মস্তকস্বর্ণন, অতিশয় মস্তক পীড়া, বিবমিষা, শ্বাসকৃচ্ছ, মেরুদও, প্রত্যঙ্গ ও উদরোদ্ধপ্রদেশে বেদন, অত্যধিক ঘৰ্ম্মনিৰ্গম প্রভৃতি লক্ষণ প্রকাশ পায়। তন্দ্রা, প্ৰলাপ ও আক্ষেপ উপস্থিত হইলে রোগীর প্রাণনাশ হয়। শ্বাসযন্ত্রের প্রদাহ, উদরে রক্তরোধজনিত বেদনা, বক্ষে ভারবোধ, অতিশয় চিন্তা, অস্ত্র প্রদাহ, কোষ্ঠবদ্ধতা, অতিশয় রঞ্জিত প্রস্রাব, প্রস্রাবকালে যন্ত্রণ প্রভৃতি লক্ষণ দেখা যায় । স্বেদ জ্বরের আক্রমণ অতিশয় প্রবল হইলে ২৪ হইতে ৪৮ঘণ্টা মধ্যে অথবা ৩৪ দিনের মধ্যে রোগী মৃত্যুমুখে পতিত হয় । ২ ৩ সপ্তাহ স্থায়ী হইলে সাধারণতঃ জর শাস্তির আশা করা যাইতে পারে । ৪৩" হইতে ৬০° উত্তর অক্ষাংশ মধ্যে স্বেদজরের প্রতাপ লক্ষিত হয় । আর্দ্র ও ছায়াযুক্ত স্থান, অতিশয় উষ্ণতা, অতিরিক্ত তড়িম্মিশ্রবায়ু প্রভৃতি এই রোগের উৎপাদক । চিকিৎসা । ভিন্ন স্থানে অবস্থান, সাময়িক স্থান-পরিবর্তন, স্বেদ জরাক্রান্ত ব্যক্তির সংস্রব পরিত্যাগ প্রভৃতি উপায় অবলম্বন করা বিধেয় । এই জরের মৃদু আক্রমণে ঔষধ প্রয়োগ করিবার কোন প্রয়োজন নাই । আক্রমণ প্রবল হইলে যাহাতে আভ্যন্তরিক যন্ত্ৰাদি বিকৃত হইয়া কুফল উৎপাদন করিতে না পারে, তদ্রুপ ঔষধ প্রয়োগ করিবে । রক্তমোক্ষণ করিলে জর হ্রাস হইতে পারে । পলস্ত্রী, সর্ষপলেপ ও ধিরেচক ঔষধাদি প্রয়োগ করিবে । উদ্ভেদ বহির্গত হইবার পর রক্তমোক্ষণ করা অবিধেয় । কেহ কেহ বলেন, প্রথমাবস্থায় শীতল জলসিঞ্চনে উপকার পাওয়া J छ्ब्र যায়। আঞ্জকারক পুলটিস স্বেদ প্রদানে ও উপযুক্ত কোন खैशृक्ष निष्ठकांब्रि थtग्रां८१ छेन्नब्र भ८४ा ¢¢र्भं कब्रहेणङ °ांग्निट्ण উদরবেদন ও মূত্ৰকৃচ্ছ, নিবারিত হয়। ফুসফুসে রক্তাধিক্য হইলে প্রচুর পরিমাণে রক্তমোক্ষণ ও বাহ প্রলেপ দিবার ব্যবস্থা কেহ কেহ করিয়া থাকেন। কিন্তু এক সময়ে অধিক পরিমাণে রক্ত নিঃস্থত হইলে রোগীর অঙ্গ সঙ্কুচিত হইয় * I wrotfit’so camphor, ammonia, serpentaria প্রভৃতি ব্যবন্থেয়। পথ্য। প্রথম ৪৫ দিন রোগীকে কোনরূপ বলকারক খাদ্য দিবে না ; ঈষদুষ্ণ ও সামান্ত তরল পদার্থ ব্যবস্থা করিবে, ৬ষ্ঠ, ৭ম কিংবা ৮ম দিবসে অল্প পরিমাণে কচি পাঠা কিংব। কুকুটের জুষ দেওয়া যাইতে পারে। ক্রমে খাদ্যের পরিমাণ বৰ্দ্ধিত কবিবে। অন্তান্ত সংক্রামক রোগের দ্যায় স্বেদত্ত্বরেও পথ্যের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি রাখা কর্তব্য। zintfer era (inflamatory fever) i se stra Igr, পৃষ্ঠ ও প্রত্যঙ্গে বেদনা, গাত্র চৰ্ম্ম অতিশয় উষ্ণ, নাড়ী দ্রুত, অত্যন্ত পিপাস, রঞ্জিত ও অল্প পরিমিত মূত্র, কোষ্ঠবদ্ধতা, চাঞ্চল্য, চিন্তা প্রভৃতি লক্ষণ উপস্থিত হয়। হৃদপিণ্ড ও ধমনী বা শিরা অত্যধিক উত্তেজিত হইলে এই জর উৎপন্ন হইয়া থাকে। প্রৌঢ়, অধিক মেদবিশিষ্ট, ক্রোধনস্বভাব, অপরিমিতাহারী ও অতিশয়ব্যায়ামশীল ব্যক্তিগণ এই জরে আক্রান্ত হয় । অতিশয় শীতল ও অতিশয় উষ্ণ প্রদেশে প্রদহিক জরের প্রকোপ দেখিতে পাওয়া যায়। 龜 ম্যালেরিয়া হইতেও এই জর উৎপন্ন হইতে পারে। ম্যালেরিয়া-সংস্থঃ ন হইলে প্রদাহিক জ্বর শীঘ্রই উপশান্ত হইয়! থাকে । সচরাচর শারীরিক কোন যন্ত্রের বিকৃতি না থাকিলে কঠিন এবং তদ্রুপ কোন উৎপাত না থাকিলে সরল প্রদাহিক জর জন্মিয়া থাকে। শীত ও বসন্তকালে এই জর দেখা দেয় । সরল অবস্থায় এ জর আদেী সংক্রামক বা দেশব্যাপক নহে । এই রোগ যত বুদ্ধি হয়, উপসর্গও তত বাড়িতে । থাকে ; জিহবা শুষ্ক ও রক্তবর্ণ হয় এবং অনিদ্রা জন্মে। এই রোগে বালকদিগের তন্ত্র এবং বৃদ্ধগণের প্রলাপ লক্ষিত হয় । সন্ধ্যাকালে উপসর্গের প্রাবল্য দেখা যায় এবং প্রাতঃকালে ঘৰ্ম্ম হইয়া উপসর্গ নিবৃত্ত হইতে থাকে । তৃতীয় ও কখন কখন পঞ্চম দিবসে জর পূর্ণতা প্রাপ্ত হয়। সাধারণতঃ ১৪ দিবসের অধিককাল স্থায়ী হয় না । কঠিন প্রদাহিক জরে রোগী প্রায়ই প্রাণত্যাগ করে। এই জীxচুই হইতে ৬ দিবস স্থায়ী হয়। সচরাচর ৪র্থ কিংবা ৫ম দিবসে রোগীর জীবন শেষ হয় ।