পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৪৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


哆 তক্ষক তক্বারা, পাবপ্রদেশের অন্তর্গত দেয়াইম্বাইল জেলার একটা সহর। ইহা কতকগুলি পল্লী সমষ্টিমাত্র এবং দেরাद्देश्हेणर्थ न%एब्रज्ञ २१ याहेल प्लेख्ब्रभक्रिएभ अवश्डि। অক্ষা ৩২- ৯ উঃ, গ্রাঘি ৭•• ৪• পূঃ। অধিবাসিগণ গন্দপুর ७ छtछे छांउँौग्न ७१९ जकाशहें कृशिकॉर्षी शांत औरुिक! নিৰ্ব্বাহ করে। পৰ্ব্বতের উপত্যকা প্রদেশে ১২১৪ ফিট্র গভীর কূপ খনন করিলেই জল পাওয়া যায়। এখানে রসদ সুলত । তক্যাল-বাল, পেশাবর জেলার একটা গ্রাম। এই গ্রাম পেশাবর হইতে খাইবার, জামরুড় প্রভৃতির রাস্তায়, [ 8७७ ] বুর্জ-ই-হরিসিংএর ১৪ মাইল দূরে অবস্থিত। এখানে | অনেকগুলি বহুপ্রাচীন বৌদ্ধ-স্ত,পের ভগ্নাবশেষ আছে। উহাদের একটকে স্থানীয় লোকে তক্‌বাল-বাল গ্রামের নামায়ুসারে তর্কবাল-বাল-কা দেছড়ি কহে । এই সকল স্ত,প অতি বৃহৎ । তৰ্কবাল-বালা-কা দেহড়িতে খনন করিতে করিতে হুইটী পুরুষ ও একটা স্ত্রীমূৰ্ত্তির প্রকাও প্রস্তরনিৰ্ম্মিত মস্তক পাওয়া গিয়াছে । ইহাদের একটা বুদ্ধদেবের ও একটা কোন রাজার বণিয়া অনুমিত হয়। স্ত্রীমুখটা অতি | বিকটাকার । তক্ষ (পুং ) নৃপতিবিশেয, ধামানুজ ভরতের পুত্র। “তক্ষ: পুষ্কল ইত্যাস্তাং ভরষ্ঠন্ত মহীপতে ” (ভাগ” ৯১১।১২) ২ ব্লকের পুত্র । ( ভাগ“ ৯২৪.৪২ ) তক্ষক (পুং তক্ষ খুল। ১ সপাবশেষ, অষ্ট নাগের মধ্যে একটা । | | ! } | “অনস্তে বাসুকি পদ্মে মহাপদ্মোইথ তক্ষক; ॥” (ভারত ১) পুরাণ মতে, অষ্টনাগের মধ্যে শেষ, বাসুকি ও তক্ষক এই তিন জন প্রধান । ক গুপের ঔরসে কক্রগর্ভে তক্ষকের জন্ম হয়। খাওবারণ্যে ইহার আবাস ছিল । শৃঙ্গী নামক ঋষিকুমারের শাপ সফল করিবার জন্য তক্ষক রাজা পরীক্ষিৎকে দংশন করিয়াছিল। তজ্জন্ত রাজা জনমেজয় ইহার উপর অতিশয় ক্রুদ্ধ হইয়া সৰ্প-যজ্ঞের অনুষ্ঠান করেন ৷ তক্ষক এই সর্পযজ্ঞের সংবাদ পাইয়া ইন্দ্রের শরণাপন্ন হয় এবং বাসুকি মহর্ষি অস্তিককে সৰ্পসত্র নিবারণ করিতে প্রেরণ করেন। রাজা জনমেজয় তক্ষককে ইন্দ্রের শরণাগত জানিয়া ঋত্বিকৃদিগকে কহিলেন, ইস্ত্র যদি তক্ষককে পরিত্যাগ না করে, তবে তক্ষককে ইঞ্জের সহিত ভস্মসাৎ করুন। হোত রাজ জ্ঞা পাইয়া তক্ষকের নাম উল্লেখ করিয়া অগ্নিতে অস্থিতি প্রদান করিলেন। সেই সময় তক্ষক সমেত ইন্দ্ৰ যজ্ঞানলাভিমুখে আকৃষ্ট হইতে লাগিলেন। ইন্দ্র ভীত श्हेग उक्रक्एरु ७]| कमिङ्गो श्रृश्एन अिश्न क:िणन । | डक्रस्टोक তক্ষকও ভয়বিহবল হইয়া ক্রমে ক্রমে প্ৰজলিত পাবকশিখার 'गभौश्रवउँौं रुहेण । ५मन गभग्न श्रांशौक मशनांछ छनcमजrछद्र lनिक नृ* क्ञ निशब्रिड इंडेक, eहे डिक थार्थ হইয়া ইহার প্রাণ রক্ষা করেন । ( ভারত আদি প" ) পরীক্ষিৎ, জনমেজয়, আন্তীক দেখ । ] হিন্দুদিগের বিশ্বাস যে, তক্ষক ইচ্ছানুসারে মানবদেহ ধারণ করিতে পারিত। কানিংহাম-প্রমুখ পণ্ডিতগণ বলেন, তঙ্কগণ তক্ষকের সন্তান। টডসাহেব বলেন, রাজা শালিবাহন তক্ষকবংশে জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন । নাগগণও তক্ষকের বংশধর বলিয়া অপেনাদিগের পরিচয় দেয় । য়ুরোপীয় পুরাবিষ্কৃগণ বলেন, প্রাচীন হিন্দুগণ অনার্ধ্যদিগকে তক্ষক ও নাগ বলিয়া উল্লেখ করিয়াছেন। সংস্কৃত ভাষায় তক্ষক কথাটী কেবলমাত্র একজনের প্রতি প্রযুক্ত হয় নাই । খাগুবদাহকালে অর্জুন এক তক্ষককে দগ্ধ করিয়াছিলেন। তক্ষক ও নাগবংশীয়গণ বৃক্ষ ও সপোপাসক ছিল । শকজাতীয় বিভিন্ন বংশ তক্ষক ও নাগধংশীয় বলিয়া পরিচিত হইত । কানিংহাম বলেন, সপোপাসক তৰ্ক এবং হিন্দুদিগের বর্ণিত তক্ষক জাতি একই বংশ ; পঞ্জাবে তক্কদিগের বাস ছিল তিনি আরও বলেন, পঞ্জাববাদী তস্ক অথবা তক্ষ কদিগের সহিত দিল্লীর পাগুবদিগের একটী মহাযুদ্ধ ঘটে । সেই যুদ্ধে পরীক্ষিতের মৃত্যু হয় এবং তক্ষকগণ জয়লাভ করে । ইহাই মহাভারতে তক্ষকদংশনে পরীক্ষিতের মৃত্যুরূপে বর্ণিত शृंग्रitछ् । টডসাহেবের মতে, তক্ষকবংশ তুরুঙ্কজাতির শাখা। ইহার প্রথমে উত্তরপশ্চিম অংশে বাস করিত। মহাভারতীয় যুদ্ধের পর হইতে ইহারা ক্রমাগত ভারতের নানা স্থান অধিকার করিতে আরম্ভ করে। ইহাদের জাতীয় নিদর্শন সর্প, এই হেতু ইহাদিগকে তক্ষকবংশ কহে । ৬০০ খৃঃ পূঃ অব্দে শেষনাগের অধীনে ইহারা প্রথম ভারত আক্রমণ করিয়াছিল । মগধ পৰ্য্যস্ত ইহুদিগের অধিকার বিস্তৃত হইয়াছিল । তক্ষক বংশীয় রাজগণ ১০ পুরুষ পৰ্য্যস্ত মগধের সিংহাসনে প্রতিষ্ঠিত ছিলেন । এই রাজবংশের এক শাখার নামানুসারেই নাগপুরের নামকরণ হইয়াছে। টডসাহেব বলেন, শেষনাগের আক্রমণ পাশ্বনাথের অধির্ভাবের সমসাময়িক । কথিত আছে, এই বংশের কেহ কেহ ব্ৰাহ্মণ্য ধৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়াছিলেন । তাহাদের বংশ অগ্নিকুল নামে পরিচিত। তক্ষক বংশীয় অনেক রাজা ভারতের বহু প্রদেশের শাসনদও পরিচালন করিতেন গুঞ্জরেও তক্ষকবংশীয়গণ কিছুকাল স্বাধীনভাবে রাজ্য করিয়াছিলেন।