পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৫২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তন্ত্র [ ¢२२ ] তন্ত্র আমি এই বিনয়সম্পন্ন সৎশিষ্যকে পরমাসৃত প্রদান করি । ( কৌলগণ কহিবেন ), চক্রেশ্বর ! আপনি সাক্ষাৎ পরমেশ্বর আপনি কোলরূপ পদ্মবনের ভাস্কর স্বরূপ। আপনি এই সংশিষ্যকে চরিতার্থ করুন। ইহাকে কুলামৃত দিউন। পরে গুরু কৌলদিগের অমুমতি গ্রহণ সহিত পরমায়ূত-পুরিত পানপত্র শিষ্য হস্তে সমর্পণ করি বেন । পরে গুরু, দেবী ভগবতীকে স্বহৃদয়ে আনয়ন করিয়া শ্রব সংলগ্ন ভস্ম দ্বারা স্বশিষ্যের ও কোলদিগের ললাটে তিলক করিয়া দিবেন। অনস্তর প্রসাদতত্ত্ব সমুদায় কোলদিগকে পরিবেশন করিয়া চক্রানুষ্ঠানের বিধানাচুসারে পান ও ভোজন করিবে । এই আমি তোমার নিকট শুভ পুর্ণাভিষেক কহিলাম । ইহা হইতে ব্ৰহ্মজ্ঞান ও শিবত্বলাভ হয় । ন বরাত্রি, সপ্তরাত্রি, পঞ্চরাত্রি, ত্রিরাত্রি অথবা এক রাত্রি পূর্ণাভিষেক করিবে । কুলেশ্বরি । এই সংস্কারে পাঁচট কল্প আছে । যদি নবরাত্রি অভিষেক হয়, তাহা হইলে সৰ্ব্বতেভদ্র মণ্ডল রচনা করিতে হইবে । প্রিয়ে সপ্তরাত্রি অভিষেক স্থলে নবনভেমণ্ডল, পঞ্চরাত্রি অভিষেক স্থলে পঞ্চাজমণ্ডল, ত্রিরাত্রি ও একরাত্রি অভিষেক স্থলে অষ্টদলপদ্ম রচনা করিতে হইবে । সাধকগণ সৰ্ব্বতোভদ্রমণ্ডলে এবং নবনভেমণ্ডলে নয়ট ঘট এবং পঞ্চাজমগুলে পাঁচটা ঘট স্থাপন করিবে । অষ্টদলপদ্ম স্থলে একটা মাত্র ঘট স্থাপন করিতে হইবে । এই পদ্মের কেশরাদিতে অঙ্গদেবতা ও আবরণ দেবতাদিগের পূজা করিতে হয়। যাহারা পূর্ণাভিযেকে অভিষিক্ত কৌল, র্যাহারা নিৰ্ম্মল হৃদয়, তাহদের দর্শন, স্পর্শন বা প্রাণ স্বারা দ্রব্য শুদ্ধি হইয়া থাকে । সাধক ও সাধিক । তান্ত্রিক সাধক ও সাধিকার লক্ষণ ও তন্ত্রে বর্ণিত আছে । নিরুত্তর তন্ত্রের ( ১১শ পটলে ) মতে “আত্মনো জ্ঞানমাত্রেণ তত্ত্বজ্ঞান ভবেৎ প্রিয়ে । তত্ত্বজ্ঞানী ভবেদূযোগী স যোগী ত্ৰিবিধ: স্কৃতঃ ॥ নি রালম্বশ সীলম্বো ভক্তশ্চ পরমেশ্বরি । ভক্তোপি বীরভাবেন সাধয়েৎ কুলসাধনম্। শক্তিমাত্ৰং যজেদূযোগী ভক্তে যোগপরায়ণ । অভিষেকেন দেবেশি ভৈরবো জায়তে ভুবি। অবধূতো ভবেদ্বীরো দিব্যশ্চ কুলমুনারি। শ্ব শানাগমনিষ্ঠশ কুলযোধিৎপরায়ণঃ ॥ কুলশাস্ত্রার্থসংবক্তা বলিদানরতঃ সদা । নিদ্বন্ধে নিরহঙ্কারে নিলোভো নির্ভয়ঃ শুচি: | গুরুদেবরত: শাস্তে ঘৃণালজ্জাবিবজ্জিত: | রক্তচন্দনলিপ্তাঙ্গে রক্তকেীপীনভুষণঃ। VII లి উদারচিত্ত: সৰ্ব্বত্র বৈঞ্চবাচারতৎপরঃ । কুলাচাররতে বীর পণ্ডিতঃ কুলবয়ন ॥ কুলসঙ্কেতসংবেত্ত কুলশাস্ত্রবিশারদ । मझांसाठी মহাবুদ্ধিঃ মহাসাহসিকঃ শুচি: | নিত্যকৰ্ম্মণি নিষ্ঠাতে দম্ভহিংসাৰিবৰ্জিতঃ । পরনিনাসহিষ্ণু স্তাদুপকাররতঃ সদা । বীরমাসনমাসীনঃ পিতৃভূমিগত: গুচিঃ ॥ সৰ্ব্বদানন্দন্ধদয়ঃ কুমারীপুঞ্জনে রতঃ। এবং যদি ভবেদ্বীর স্তদেব হীনজাং যজেৎ ॥ দিব্যোহপি বীরভাবেন সাধয়েৎ কুলসাধনম্। কুলঞ্চ সৰ্ব্বজাতীনাং পূজনীয়ং কুলার্চনে ॥ শ্মশানে নির্জনে রম্যে ত্রিপাস্তে শূন্তমণ্ডলে। গ্রামে পাতালকে বাপি সাধয়েৎ কুলসাধনম ॥” প্রিয়ে ! আত্মার স্বরূপ জ্ঞান হইলেই তত্ত্বজ্ঞান হয় । তত্ত্বজ্ঞানী যোগী হইতে পারে ; সেই যোগী তিন প্রকারনিরালম্ব, সালম্ব ও ভক্ত। ভক্তও বীরভাবে কুলসাধন করিবে। যোগপরায়ণ ভক্তযোগী শক্তিমাত্র পূজা করিবে । দেবেশি ! অভিষেক দ্বারা এ সংসারে ভৈরব এবং দিব্য ও বীরাচারী অবধূত হইয়া থাকে। শ্মশানাগমে নিষ্ঠাবান, কুল্স্ত্রীপরায়ণ, কুলশাস্ত্রার্থ যে ভাল বলিতে পারে, নিত্য বলিদানে রত, দ্বন্দ্বহীন, অহঙ্কারহীন, নিলোভ, নির্ভয়, শুদ্ধ, গুরু ও দেবতার প্রতি অনুরক্ত, শাস্ত, ঘৃণালজ্জারহিত, অঙ্গে রক্ত চন্দনলিপ্ত, রক্তবর্ণের কেীপীনধারী, উদারচিত্ত, সকল সময়ে বৈষ্ণবাচরিতৎপর, কুলাচাররত, বীরচারী, কুলমার্গে পণ্ডিত, কুলসঙ্কেতবেত্তা, কুলশাস্ত্রবিশারদ, মহাধনবান, বুদ্ধিমান, অতি সাহসী, নিত্যকৰ্ম্মনিষ্ঠ, দম্ভ ও হিংসাবর্জিত, পরনিনাসহিষ্ণু, সৰ্ব্বদা পরেীপকাস্ত্রে নিরত, বীরাসনে সমাসীন, পিতৃভূমিগত, সৰ্ব্বদাই আনন্দিত, কুমারীপূজনে রত। এইরূপ হইলে বীর তান্ত্ৰিকসাধনে হীনজা যজন করিবে । দিব্যও বীরভাবে কুলসাধন করিবে । কুলপূজায় সকল জাতির কুলস্ত্রীই পূজনীয়া। শ্মশানে নিৰ্জ্জন বা রমণীয় স্থানে, ত্রিমাত্রাপথে ও শূন্ত মণ্ডলে গ্রাম বা মুড়ঙ্গের মধ্যে কুলপূজা করিবে । সাধিকার লক্ষণ“निtळॉडिां कांभनांशैनां निब्ॉख्ञां लखदर्जिञ्जङ । শিবসমাগত সাধনী স্বেচ্ছয়া বিপরীতগt ॥ চতুবৰ্ণোস্তব রস্ত প্রশস্ত কুলপুঞ্জনে । চতুৰ্বর্ণোস্তবনাঞ্চ পুরশ্চর্য্যা দ্বিধীয়তে ॥ বর্ণ শঙ্করতে। জাত হীনজ পরিকীৰ্ত্তিত ।