পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৫৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তর্ক [ ૬૧ના ] তর্ক cष नकल छांद अक्लिश्चानौब्र, किङ्कण्ठहे षांश छिंढाब्र विदब्र ए३८ङ *ां८ब्रन, ८गहे नकल दियब्र ऊर्क दांब्रां कथन हिब्र করিবে না, অপ্রতিষ্ঠিত তৰ্কদ্বারা কখনই গম্ভীরার্থের নিশ্চয় হইতে পারেন । g এইtiপ তর্ক করিলে অপ্রতিষ্ঠা দোষ জন্মে। তর্কে অগ্রতিষ্ঠা দোষ জন্মিলে তাহ নিরাকৃত হয় ; সে তর্ক গ্রহণীয় म८छ् । ङ# न कग्निग्न! *ाह्वयौभांश्म! कब्रिtद न! caहेझ* বিধি আছে ; কিন্তু সে এরূপ কুতর্ক নহে, ধৰ্ম্মশাস্ত্রের প্রতি ঐকমত্য করিয়া তর্ক করিবে। ঐ রূপ তর্ক করিলেই যথার্থ জ্ঞান জন্মে। এই জন্ত বেদান্তদর্শনে তর্কের বিষয় ५३ cोंकtद्र गिथिऊ कहेब्रां८छ्- ** “তর্ক প্রতিষ্ঠানাদিত্যাদি।” ( বেদান্তস্বত্র" ) যে বস্তু শাস্ত্রগম্য তর্কমাত্র অবলম্বন করিয়া সে বস্তুর বিরুদ্ধে উদ্যম করিতে নাই । কারণ পুরুষ শাস্ত্রালম্বন ব্যতীত বুদ্ধিমাত্রের সাহায্যে যে সকল তর্কের উদ্ভাবন করেন, সেই जकल उ८र्कद्र aउिल्ले श्रें दांब्र नश्छादन नाहे, cकन न কল্পনার কোন অঙ্কুশ (নিয়ামক ) নাই। যে যে পরিমাণ বুঝে, সে সেই পরিমাণই কল্পনা করে। অনুসন্ধান করিলে দেখা যায়, এক পণ্ডিত অতি যত্নে এক তর্ক উদ্ভাবিত করেন, অন্ত পণ্ডিত তৎক্ষণাৎ তাহার মিথ্যাত্ৰ (ভুল) দেখান। আবার তদপেক্ষ অধিক পণ্ডিত সে তর্ককেও মিথ্যা কছেন । মানববুদ্ধি বিচিত্র -সেই কারণে প্রতিষ্ঠিত তর্ক অসম্ভব । যেহেতু মানববুদ্ধি অনবস্থিত, একপ্রকার নহে, সেই হেতু তৎপ্রভব তক ও অনবস্থিত অর্থাৎ একরূপ নহে। এই জন্য তর্ক অপ্রতিষ্ঠাদোষ দুষিত অর্থাৎ স্থিরতর তর্ক হয় না। এই কারণে তর্ক অবিশ্বাস্ত। তর্কের প্রতি বিশ্বাস করিয়া শাস্ত্রার্থ নির্ণয় করা অন্যায্য। মনে কর খ্যাতনামা কপিলদেব সৰ্ব্বজ্ঞ, এই কারণ তাহার তর্ক প্রতিষ্ঠিত, এরূপ বলিলে বলিব, তাছাও অপ্রতিষ্ঠিত অর্থাৎ ঐ কথাটাও তর্কে অন্তরূপ হইয়৷ স্বায় । কপিল সৰ্ব্বজ্ঞ, গৌতম অসৰ্ব্বজ্ঞ এই বিষয়ে প্রমাণ কি ? কপিল, কণাদ, গৌতম ইহারা সকলেই খ্যাতনামা, সকলেই মহাত্মা ও সৰ্ব্ববিদিত অথচ তাহাধের পরস্পরের প্রতি পরম্পরের মত-বৈপরীত্য দেখা যায়। কপিলের মতে কণাদের ও গৌতমের আপত্তি এবং কণাদ গৌতমের মতে কপিলের আপত্তি দৃষ্ট হয়। যদি বল श्रांमब्रl ७भन ७कणै डार्कब्र अश्यांन कब्रिब अशीं९ अश्यांन थाःाहेग्रा ७भन ५कौ उर्क बांश्ब्रि गद्देव, यांशंब eङि#1দোষ নাই । ७मन किडू বলিতে পায় यांब्रन cष ७ फणै७ अर्थङिछैिङ তর্ক নাই। একটা না একট প্রতিষ্ঠিত তর্ক আছে, ইহা অবগুই স্বীকার করিতে হইবে, তবে এরূপ বলিতে পার যে কোন কোন তর্ককে অপ্রতিষ্ঠিত দেখিয়া তর্কমাত্রের অগ্রতিষ্টিতত্ত্ব কল্পনা করিতে গেলে ব্যবস্থার উচ্ছেদের আপত্তি হইতে পারে, সকল তর্কই যদি মিথ্যা হয়, তাহা হইলে লোকের প্রবৃত্তি নিবৃত্তি ব্যবহার কি প্রকারে নির্বাহ হয়। আমরা দেখিতেছি প্রত্যেক লোক ভবিষ্যৎ সুখ দুঃখের প্রাপ্তি পরিহারের জন্ত সৰ্ব্বদা চেষ্টমান ; সে চেষ্টা তর্কমূলক। তর্কের অদ্য নাম কল্পনা, তর্কের সত্যত না থাকিলে সে সকল ব্যবহার থাকিত না ; এতদিন উচ্ছিন্ন হইত। শ্রীতির অর্থ সন্দেহ হইলে বাকাবৃত্তি নিরূপণ-রূপ তর্ক দ্বারা তাহার তাৎপৰ্য্যার্থনির্ণয় করেন। একথা ভগবান মমুও বলিয়াছেন—

  • প্রত্যক্ষমজুমানঞ্চ শাস্ত্রঞ্চ বিবিধাগমম্। ত্রয়ং সুবিদিতং কাৰ্য্যং ধৰ্ম্মশুদ্ধিমভান্সতfঃ ॥ আর্যং ধৰ্ম্মোপদেশঞ্চ বেদশাস্ত্রবিরোধিনী । যস্তর্কেনানুসন্ধত্তে সধৰ্ম্মং বেদ নেতর ॥” ( মমু ) शांशङ्गां पृन्द्रं७कि हेछ् क८ब्रन, डांशङ्गां वंठाक्र अष्ट्रभांन ( তর্ক ) ও বিবিধশাস্ত্র উত্তমরূপে বিদিত হইবেন । যে পুরুষ বেদশাস্ত্রের অবিরোধী তর্ক অবলম্বন করিয়া ঋষিসেবিত ধৰ্ম্মবিধি অনুসন্ধান করেন, তিনিই ধৰ্ম্মের প্রকৃত রহস্ত অবগত হন । অপ্রতিষ্ঠিত তকের শোভা দোষ নহে। যে তর্কে দোষ আছে, তাহা ত্যাগ করিতে হইবে, নির্দোষ তর্ক গ্রহণীয়। পূৰ্ব্বপুরুষ মূঢ় ছিলেন বলিয়া কি আমাকেও মূঢ় হইতে হইবে, এমন কোন নিয়ম নাই। এক তর্কের দোষ দেখিয়া সকল তর্কের দোষোদেঘাষণ অতিশয় অঙ্গtষ্য।

আরও দেখ সম্যকৃজ্ঞান একই প্রকার, নানাপ্রকার নহে । আমার একপ্রকার তোমার একপ্রকার এরূপ নহে, कांज़१ नभाकुङान दखब्र अशैन, भष्ट्रtवृब्र अषैौन म८झ् । যেমন অগ্নি উষ্ণ । অগ্নি উষ্ণ এ জ্ঞান একরূপ অর্থাৎ সকল কালে ও সকল পুরুষে সমান, এই জন্ত সম্যকৃজ্ঞানে মতামত ( তর্ক) থাকা অসম্ভব। তর্ক বুদ্ধিপ্রভব, তজ্জন্স তাছা নানাজনের নানাপ্রকার এবং বিরুদ্ধ তর্কজনিত জ্ঞান বিভিন্ন ७ भद्रन्थब्र दिङ्गक हब्र, किरू नयाङ्ङांन ७कहे थकांब ।। কোন সময়েও বিভিন্ন হয় না । ७रू उार्किक उर्रु दाग बनिटवन,हेशहे गभाक्ञांन,चांबांब्र অন্ত তার্কিক তাহার মত খণ্ডন করিয়া ৰলিবেন না, তাহ नभाक्खांन नtश्, ऐश हे नभाक्ऊांन। अङ७द षांश ७कब्रान नएश्, उांश अश्ब्रि उर्कयछद, ठांशृशखांन किक्रtन गबाकू হইতে পারে ?