পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


छांशंत्रौग्न তাহাকে একটী কৃশ অশ্বে আরোহণ করাইয়া লেজের দিকে भूष ब्रांषिब्र क्रांब्रिनिहरु पूब्राहेब्र श्रांना एहेण । गजाहे उँीशंब्र সমস্ত সম্পত্তি রাজকোষভুক্ত করিয়া লইলেন। ' মহাবত অগ্রসর হইলে তাহাকে শিবিরাভ্যস্তরে প্রবেশ করিতে দেওয়া হইল না । মহাবত এইরূপে অবমানিত হইয়া এবং নিজের প্রাণনাশের উপক্রম দেখিয়া সম্রাটুকে আয়ত্ত করিতে মনস্থ করিলেন। সম্রাট পার হইবার জন্ত বিপাশা নদীর উপর যে সেতু নিৰ্ম্মাণ করিয়াছিলেন, তাহ নষ্ট করিতে তাহার অনুচরবর্গকে আদেশ করিলেন এবং রাত্রিকালে ১• •জন অমুচয় সহ সম্রাটু-শিবিরে প্রবেশ করিলেন। সম্রাটু নিদ্রিত ছিলেন, জাগরিত হইয়া দেঞ্জিলেন মহাবতের সৈন্ত কর্তৃক পরিবেষ্টিত হইয়া আছেন ,তিনি তাহাকে জিজ্ঞাসা করিলেন, “বিশ্বাসঘাতক, তোর অভিপ্রায় কি ?” মহাবত উত্তর করিলেন, “আমার নিজের জীবন রক্ষণ করিবার জন্ত এইরূপ করিয়াছি।” যাহা হউক তিনি সম্রাটকে বিশেষরূপ সন্মান প্রদর্শন করিয়া তাহাকে হস্তীতে আরোহণ করাইয়া শিবিরে আনয়ন করিলেন। কিছুদূর অগ্রসর হইলে গজপতিসিংহ সম্রাটের নিজ হস্তী আনয়ন করিলেন । সম্রাটু তাহাতে আরোহণ করিলে গজপতি তাহার পাশ্বে উপবেশন করিলেন। সম্রাটু কোনরূপ বাধা প্রদান না করিয়া মহাবতের সহিত চলিলেন । এদিকে নুরজাহান ছদ্মবেশ পরিধান করিয়া জবাহিরখার সহিত নদীর অপর পারে রাজকীয় সৈন্ত-শিবিরে প্রবেশ করিলেন । নূরজাহান তাহার ভ্রাতার সহিত সাক্ষাৎ করিয়া সম্রাটের উদ্ধারার্থ যুদ্ধের আয়োজন করিতে লাগিলেন। তিনি বলিলেন, সেনাপতির দোষেই এইরূপ ঘটিয়াছে ; কারণ সম্রাটের রক্ষার্থ সৈন্যদিগকে শিবিরে না রাখিয়া নদীর অপর পারে রাখা হইয়াছিল এবং এই জন্তই মহাবত বিনা বাধায় সম্রাটুকে আয়ত্ত করিতে সমর্থ হইয়াছে। যাহা হউক যে রাত্রিতে সম্রাট মহাবতের হস্তে বন্দী হইলেন, তাহার পর দিন প্রত্যুষে নূরজাহান রাজকীয় সৈন্তের অগ্রভাগে ধাত্রা করিলেন ; কিন্তু তাহারা নদী পার হইতে পারিলেন না, কারণ মহাবতের আদেশে পূৰ্ব্বেই সেতু ভঙ্গ করা হইয়াছিল। নূরজাহান স্থাটিয়া পার হইতে আদেশ দিলেন এবং তিনি নিজেই প্রথমে জল মধ্যে নামিলেন ; কিন্তু অপর পারস্থিত শক্ৰগণের নিক্ষিপ্ত তীরে পার হইতে পারিলেন না। ফিদাই খ। মহাবতের সৈন্মদিগকে আর একবার আক্রমণ করিলেন, কিন্তু তাহাও নিফল হইল। নূরজাহান সম্রাটের উদ্ধারসাধনের কোনরূপ উপায় না দেখিয়া হতাশ হইয়া ইচ্ছাপূৰ্ব্বক বন্দী সম্রাটের সহিত মিলিত হইলেন । [ १8 ] জাহাঙ্গীর भशंबऊ वनौ गजांप्लेक गहेब्रा कांबूण शंभन कब्रिटणम । এখানে জাহাঙ্গীর মহাবতের সহিত স্নেহসূচক ব্যবহার করিতে লাগিলেন। নূরজাহান সম্রাটের উদ্ধার সম্বন্ধে গোপনে তাহাকে যাহা বলিতেন, তিনি প্রায়ই তাহ মহাবতকে বলিয়া निष्ऊन। नाग्नखांर्षांद्र ढौ वधनहे प्रदिष *ांहेष्व, उथनहे उांश८क গুলির আঘাতে হত্যা করিবে, একথাও সম্রাট তাছাকে বলিয়া দিলেন । এই সকল কারণে মহাবতর্থী সম্রাটের কারাবাস শিথিল করিলেন। এদিকে রাজপুতগণবিদেশে উপস্থিত, স্থানীয় লোকগণ সম্রাটের প্রতি সদয়। এই সুযোগে নূরজাহান স্বপক্ষ বৃদ্ধি করিতে লাগিলেন । হসিয়ারখা নামে র্তাহার একজন অমুচর লাহোর হইতে ২• • • সৈন্ত সমভিব্যাহারে কাবুলাভিমুখে অগ্রসর হইলেন । কাবুলে বহুসংখ্যক সৈন্ত সংগৃহীত হইল । সম্রাটু একদিন মহাবতের নিকট সম্বাদ পাঠাইলেন যে, তিনি নূরজাহানের সৈন্ত পরিদর্শন করিবেন এবং সে দিন যেন মহাবতের সৈন্তগণ কুচ কাওয়াজ না করে ; কারণ তাহা হইলে দুই পক্ষে সংঘর্ষ হইতে পারে। নূরজাহানের সৈন্তগণ সম্রাটের দিকে এরূপ ভাবে অগ্রসর হইল যে, মহাবতের রাজপুত-রক্ষকগণ সম্রাটু হইতে বিচ্ছিন্ন হইয়া পড়িল । নুরজাহানের ভ্রাতা আসফর্থ মহাবতের হস্তে বন্দী ছিলেন, এই জন্য র্তাহাকে আক্রমণ না করিয়া জাহাঙ্গীর র্তাহার নিকট ৪টা লিখিত আদেশ প্রেরণ করিলেন— (১) মহাবত শাহজহানের বিরুদ্ধে গমন করিবেন। (২) অসিফ খী ও র্তাহার পুত্রকে সম্রাটের নিকট পাঠাইবেন । (৩) যুবরাজ দানিয়লের পুত্রদিগকে প্রত্যপণ করিবেন। (৪) লস্করীকে তাহার প্রতিভূস্বরূপ রাজদরবারে পাঠাইবেন। তাহাকে ইহাও জানান হইল যে, আসফখাকে পাঠাইতে বিলম্ব করিলে তাহার বিরুদ্ধে সৈন্য প্রেরিত হইবে । সম্রাটু কাবুল হইতে লাহোরে আগমন করিয়া আসফর্থীকে পঞ্জাবের শাসনকর্তা নিযুক্ত করিলেন। শাহজহান সম্রাটের অধীনতা স্বীকার করিয়া কতিপয় অনুচর সহ আজমীড়ে গমন করিলেন । পারস্তরাজ শাহ আব্বাসের সহিত, তাহার মিত্রত ছিল ; আশা করিয়াছিলেন যে তথায় পৌছিতে পারিলে হয়ত তাহার দুর্দশা শেষ হইতে পারে ; এই মনে করিয়াই তিনি আজমীড়ে গমন করিলেন । তথায় পৌঁছিলে শাহরীয়ারের একজন বিশ্বস্ত অনুচর সরিষ্ণউলমুলুক তাহাকে আক্রমণ করিতে অগ্রসর হইলেন। কিন্তু ভয় পাইয়াই হউক অথবা মন্য কোন কারণে আক্রমণ ন করিয়া দুর্গ মধ্যে আশ্রয় গ্রহণ করিলেন। শাহজহানের নিষেধ স্বত্বেও তাহার কএকজন कृ# श्रांजमण कब्रिह्णन ।