পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রঘুপতি । গুণবতী । রঘুপতি ফুটিবে আমারি কোলে কথাহীন মুখে অকারণ আনন্দের প্রথম হাসিটি ! কুমারজননী মাত:, কোন পাপে মোরে করিলি বঞ্চিত মাতৃস্বৰ্গ হতে ? রঘুপতির প্রবেশ প্রভু, চিরদিন মা’র পূজা করি। জেনে শুনে কিছু তো করি নি দোষ। পুণ্যের শরীর মোর স্বামী মহাদেবসম— তবে, কোন দোষ দেখে আমারে করিল মহামায়া নিঃসন্তানশাশানচারিণী ? মা’র খেলা কে বুঝিতে পারে বলে ! পাষাণতনয়৷ ইচ্ছাময়ী, সুখ দুঃখ তারি ইচ্ছা । ধৈর্য ধরে । এবার তোমার নামে মা’র পূজা হবে । প্রসন্ন হইবে শু্যামা । এ বৎসর পূজার বলির পশু আমি নিজে দিব। করিনু মানত, মা যদি সন্তান দেন বর্ষে বর্ষে দিব তারে একশো মহিষ, তিন শত ছাগ । পূজার সময় হল। [ উভয়ের প্রস্থান X \o