পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রঘুপতি । গোবিন্দ | রঘুপতি । নক্ষত্র রায় ! গোবিন্দ রঘুপতি । গোবিন্দ । রঘুপতি । গোবিন্দ রঘুপতি । চাদপাল । মহারাজ, কী করিছ ভালো করে ভেবে দেখো । শাস্ত্রবিধি তোমার অধীন নহে । সকল শাস্ত্রের বড়ো দেবীর আদেশ । একে ভ্রান্তি, তাহে অহংকার । অজ্ঞ নরতুমি শুধু শুনিয়াছ দেবীর আদেশ, আমি শুনি নাই ? তাই তো, কি বলে মন্ত্রী, এ বড়ো আশ্চর্য! ঠাকুর শোনেন নাই ? দেবী-আজ্ঞা নিত্যকাল ধ্বনিছে জগতে । সেই তো বধিরতম যেজন সে বাণী শুনেও শুনে না । পাষণ্ড, নাস্তিক তুমি । ঠাকুর, সময় নষ্ট হয়। যাও এবে মন্দিরের কাজে । প্রচার করিয়া দিয়ে। পথে যেতে যেতে, আমার ত্রিপুররাজ্যে যে করিবে জীবহত্যা জীবজননীর পূজাচ্ছলে, তারে দিব নির্বাসনদণ্ড । এই কি হইল স্থির ? স্থির এই ৷ উঠিয়া তবে উচ্ছন্ন ! উচ্ছন্ন যাও ! ছুটিয়া আসিয়া হা হুঁ ! থামো ! থামো ! ૨ ગ