পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উৎসর্গ শ্রীমান সুরেন্দ্রনাথ ঠাকুর প্রাণাধিকেষু তোরি হাতে বাধা খাতা তারি শ-খানেক পাতা অক্ষরেতে ফেলিয়াছি ঢেকে, মস্তিষ্ককোটরবাসী চিন্তাকীট রাশি রাশি পদচিহ্ন গেছে যেন রেখে | প্রবাসে প্রত্যহ তোরে হৃদয়ে স্মরণ করে লিখিয়াছি নির্জন প্রভাতে, মনে করি অবশেষে শেষ হলে ফিরে দেশে জন্মদিনে দিব তোর হাতে । বর্ণনাটা করি শোন্‌ এক আমি, গৃহকোণ কাগজ-পত্তর ছড়াছড়ি । দশ দিকে বইগুলি সঞ্চয় করিছে ধূলি, আলস্যে যেতেছে গড়াগড়ি । শয্যাহীন খাটখান এক পাশে দেয় থান প্রকাশিয়া কাঠের পাজর । তারি পরে অবিচারে যাহ-তাহা ভারে ভারে স্তৃপাকারে সহে অনাদর । চেয়ে দেখি জানালায় খালখানা শুস্কপ্রায়, মাঝে মাঝে বেধে আছে জল—