পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অবধান । সেই মোর প্রাণপণ সাধ— জননীরে ফিরে এনে দেব । প্রজাগণ । জয় হোক মহারাজ, জয় হোক তব ! গোবিন্দ । একবার শুধাই তোদের, তোরা কি মায়ের গর্ভে নিস নি জনম ? মাতৃগণ তোমরা তো অনুভব করিয়াছ কোমল হৃদয়ে মাতৃস্নেহসুধা— বলে দেখি মা কি নেই ? মাতৃস্নেহ সব হতে পবিত্র প্রাচীন । সৃষ্টির প্রথম দণ্ডে মাতৃস্নেহ শুধু একেলা জাগিয়া বসে ছিল, নতনেত্রে তরুণ বিশ্বেরে কোলে লয়ে । আজিও সে পুরাতন মাতৃস্নেহ রয়েছে বসিয়া ধৈর্যের প্রতিমা হয়ে । সহিয়াছে কত উপদ্রব, কত শোক, কত ব্যথা, কত অনাদর– চোখের সম্মুখে ভায়ে ভায়ে কত রক্তপাত, কত নিষ্ঠুরতা, কত অবিশ্বাস— বাক্যহীন বেদন বহিয়া তবু সে জননী আছে বসে দুর্বলের তরে কোল পাতি, একান্ত যে নিরুপায় তারি তরে সমস্ত হৃদয় দিয়ে । আজ কি এমন অপরাধ করিয়াছি মোরা যার লাগি সে অসীম স্নেহ চলে গেল At