পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জয়সিংহ । বলিবার কিছু নাই মোর । রঘুপতি । কিছু নাই ? কোনো প্রশ্ন নাই মোর কাছে ? সন্দেহ জন্মিলে মনে মীমাংসার তরে চাহিবে না গুরু-উপদেশ ? এত দূরে গেছ ? মনে এতই কি ঘটেছে বিচ্ছেদ ? মূঢ়, শোনো ! সত্যই তো বিমুখ হয়েছে দেবী, কিন্তু তাই বলে প্রতিমার মুখ নাহি ফিরে । মন্দিরে যে রক্তপাত করি দেবী তাহা করে পান, প্রতিমার মুখে সে রক্ত উঠে না । দেবতার অসন্তোষ প্রতিমার মুখে প্রকাশ না পায়। কিন্তু মুখদের কেমনে বুঝাব ? চোখে চাহে দেখিবারে, চোখে যাহা দেখিবার নয় । মিথ্যা দিয়ে সত্যেরে বুঝাতে হয় তাই । মুখ, তোমার আমার হাতে সত্য নাই । সত্যের প্রতিমা সত্য নহে, কথা সত্য নহে, লিপি সত্য নহে, মূর্তি সত্য নহে— চিস্তা সত্য নহে। সত্য কোথা আছে— কেহ নাহি জানে তারে, কেহ নাহি পায় তারে । সেই সত্য কোটি মিথ্যারূপে চারি দিকে ফাটিয়া পড়েছে ; সত্য তাই নাম ধরে মহামায়া, অর্থ তার ‘মহামিথ্যা” । সত্য মহারাজ বসে থাকে রাজ-অন্তঃপুরে— শত মিথ্যা প্রতিনিধি তার, চতুর্দিকে նց Փ