পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নক্ষত্ররায় । গোবিন্দ । গুণবতী । শুনেছি যখন, তখনি করেছি ক্ষমা । তোরে ক্ষমা না করিতে অক্ষম যে আমি । রঘুপতি দেয় কুমন্ত্রণা! রক্ষ মোরে তার কাছ হতে ! কোনো ভয় নেই ভাই ! তৃতীয় দৃশ্য অন্তঃপুরকক্ষ গুণবতী তবু তো হল না। আশা ছিল মনে মনে কঠিন হইয়া থাকি কিছুদিন যদি তাহা হলে আপনি অগসিবে ধরা দিতে প্রেমের তৃষায় । এত অহংকার ছিল মনে । মুখ ফিরে থাকি, কথা নাহি কই, অশ্রুও ফেলি নে, শুধু শুষ্ক রোষ, শুধু অবহেলা— এমন তো কতদিন গেল । শুনেছি নারীর রোষ পুরুষের কাছে শুধু শোভা আভাময়, তাপ নাহি তাহে— হীরকের দীপ্তিসম! ধিক্ থাকৃ শোভা ! এ রোষ বজের মতো হ’ত যদি, তবে পড়িত প্রাসাদ-’পরে, ভাঙিত রাজার b &