পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ধ্ৰুব | গুণবতী । নিদ্রা, চূর্ণ হ’ত রাজ-অহংকার, পূর্ণ হ’ত রানীর মহিমা ! আমি রানী, কেন জন্মাইলে এ মিথ্যা বিশ্বাস । হৃদয়ের অধীশ্বরী তব— এই মন্ত্র প্রতিদিন কেন দিলে কানে ? কেন না জানালে মোরে আমি ক্রীতদাসী, রাজার কিঙ্কর শুধু রানী নহি— তাহা হলে আজিকে সহসা এ আঘাত, এ পতন সহিতে হ’ত না ! ধ্রুবের প্রবেশ কোথা যাস তুই ? অামারে ডেকেছে রাজা । [ প্রস্থান রাজার হৃদয়রত্ব এই সে বালক । ওরে শিশু, চুরি করে নিয়েছিস তুই আমার সন্তানতরে যে আসন ছিল । না আসিতে আমার বাছারা, তাহাদের পিতৃস্নেহ-পরে তুই বসাইলি ভাগ । রাজহৃদয়ের সুধাপাত্র হতে, তুই নিলি প্রথম অঞ্জলি– রাজপুত্র এসে তোরই কি প্রসাদ পাবে ওরে রাজদ্রোহী – মা গো মহামায়া, একি তোর অবিচার ! এত সৃষ্টি, এত খেলা তোর— খেলাচ্ছলে b”や