পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চলে যা মন্দির ছেড়ে !— গুরুর আদেশ । অপর্ণা। জয়সিংহ, হোয়ো ন নিষ্ঠুর । বার বার জয়সিংহ । অপর্ণ । জয়সিংহ । ফিরায়ো না ! কী সহেছি অন্তর্যামী জানে ! তবে আমি যাই । এক দণ্ড হেথা নহে । কিয়দদুর গিয়া, ফিরিয়া অপর্ণা, নিষ্ঠুর আমি ? এই কি রহিবে তোর মনে, জয়সিংহ নিষ্ঠুর কঠিন! কখনো কি হাসিমুখে কহি নাই কথা ? কখনো কি ডাকি নাই কাছে ? কখনো কি ফেলি নাই অশ্র জল তোর অশ্রু দেখে ? অপর্ণা, সে-সব কথা পড়িবে না মনে, শুধু মনে রহিবে জাগিয়া জয়সিংহ নিষ্ঠুর পাষাণ ? যেমন পাষাণ ওই পাষাণের ছবি, দেবী বলিতাম যারে ?— হায় দেবী, তুই যদি দেবী হইতিস, তুই যদি বুঝিতিস এই অন্তর্দাহ । বুদ্ধিহীন ব্যথিত এ ক্ষুদ্র নারী-হিয়া, ক্ষমা করে এরে । এই বেলা চলে এসো, জয়সিংহ, এসো মোরা এ মন্দির ছেড়ে যাই । রক্ষা করো ! অপর্ণা, করুণা করে। ! দয়া করে, মোরে ফেলে চলে যাও । এক কাজ বাকি আছে এ জীবনে, সেই হোক סvאי