পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰাণেশ্বর— তার স্থান তুমি কাড়িয়ে না। দ্রুত প্রস্থান অপর্ণা । শতবার সহিয়াছি, আজ কেন আর নাহি সহে । আজ কেন ভেঙে পড়ে প্রাণ | পঞ্চম দৃশ্য মন্দির নক্ষত্ররায় রঘুপতি ও নিদ্রিত ধ্রুব রঘুপতি। কেঁদে কেঁদে ঘুমিয়ে পড়েছে। জয়সিংহ এসেছিল মোর কোলে অমনি শৈশবে পিতৃমাতৃহীন । সেদিন অমনি ক’রে কেঁদেছিল নূতন দেখিয়া চারি দিক, হতাশ্বাস শ্রান্ত শোকে আমনি করিয়া ঘুমায়ে পড়িছিল সন্ধ্যা হয়ে গেলে ওইখানে দেবীর চরণে ! ওরে দেখে তার সেই শিশুমুখ শিশুর ক্ৰন্দন মনে পড়ে । নক্ষত্ররায় । ঠাকুর, কোরো না দেরি আর— ভয় হয়, কখন সংবাদ পাবে রাজা । রঘুপতি। সংবাদ কেমন করে পাবে ? চারি দিক নিশীথের নিদ্রা দিয়ে ঘেরা। 38