পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নক্ষত্ররায় । রঘুপতি । নক্ষত্ররায় । রঘুপতি। একবার মনে হল যেন দেখিলাম কার ছায়া ! আপন ভয়ের । শুনিলাম যেন কার ক্রেন্দনের স্বর | আপনার হৃদয়ের – দুর হোক নিরানন্দ । এসে পান করি কারণসলিল । মদ্যপান মনোভাব যতক্ষণ মনে থাকে, ততক্ষণ দেখায় বৃহৎ— কার্যকালে ছোটো হয়ে আসে বহু বাষ্প গলে গিয়ে একবিন্দু জল। কিছুই না, শুধু মুহূর্তের কাজ। শুধু শীর্ণশিখা প্রদীপ নিভাতে যতক্ষণ । ঘুম হতে চকিতে মিলায়ে যাবে গাঢ়তর ঘুমে ওই প্রাণরেখাটুকু শ্রাবণনিশীথে বিজুলিঝলক-সম, শুধু বজ্র তার চিরদিন বিধে রবে রাজদম্ভ-মাঝে । এসো এসে যুবরাজ, স্নান হয়ে কেন বসে আছ এক পাশে— মুখে কথা নেই, হাসি নেই, নির্বাপিতপ্রায় ! এসো, পান করি আনন্দ সলিল । S(t