পাতা:বিসর্জন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বভাবকোমল তুমি, নিদারুণ বুদ্ধি এ তোমার নহে । নক্ষত্ররায় । আর কারে দিব দোষ । লব না এ পাপমুখে আর কারে নাম । আমি শুধু এক অপরাধী। আপনার পাপমন্ত্রণায় আপনি ভুলেছি । শত দোষ ক্ষমা করিয়াছ নির্বোধ ভ্রাতার, অারবার ক্ষমা করে । গোবিন্দ । নক্ষত্র, চরণ ছেড়ে ওঠো, শোনো কথা । ক্ষমা কি আমার কাজ ? বিচারক আপন শাসনে বদ্ধ, বন্দী হতে বেশি বন্দী । এক অপরাধে দণ্ড পাবে এক জনে, মুক্তি পাবে আর, এমন ক্ষমতা নাই বিধাতার— আমি কোথা আছি ! সকলে । ক্ষমা করো, ক্ষমা করে। প্রভু ! নক্ষত্র তোমার ভাই । গোবিন্দ | স্থির হও সবে । ভাই বন্ধু কেহ নাই মোর, এ আসনে যতক্ষণ আছি । প্রমাণ হইয়া গেছে অপরাধ। ছাড়ায়ে ত্রিপুররাজ্যসীমা ব্ৰহ্মপুত্ৰনদীতীরে আছে রাজগৃহ তীর্থস্নানতরে, সেথায় নক্ষত্ররায় অষ্ট বর্ষ নির্বাসন করিবে যাপন । SS