পাতা:বীরজয় উপাখ্যান.pdf/৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

(৩৫)


পাইয়। আনন্দমাগঢ় মগ্ন হইলেন। বীরজয় মৈত্রকে আপন সঙ্গে লইয়া স্বদেশে গমন করিলেন। তদনন্তর গ্রামে পৌঁছিয়া প্রজাদিগের প্রমুখাৎ বাটীর কুশলাদি শ্রবণ করিয়া বাটীতে প্রবেশ করিলেন। রাজা রমাপতি বহুদিবসের পর পুত্র বীরজয়কে দর্শন করিয়া মুখচুম্বন করত ক্রোড়ে বসাইলেন। পরে পুত্র নানাদেশ পরিভ্রমণ করিয়া বিবাহ ইত্যাদি যে সকল অদ্ভুত ব্যাপার সম্পাদন করিয়াছে তাহা শ্রবণ করিয়া রমাপতি আনন্দে মগ্ন হইলেন। কিছু দিনান্তে বীরজয় মাতা পিতা ও বন্ধুগণাদিকে সর্ণাট দেশে লইয়া গেল। তথায় উপস্থিত হইয়া দেখিলেন যে, প্রাণাপেক্ষা প্রিয়তমা প্রেয়সী তাঁহাকে পরিত্যাগ করিয়াছে। তখন শোকসাগরে নিমগ্ন হইয়া নানাবিধ বিলাপ করিতে লাগিলেন।

নৃপতি বীরজয়ের বিলাপ।
হ্রস্ব ত্রিপদী।
বারিদুনয়নে, বহে ঘনে ঘনে,
শুনেমৃত্যু প্রেয়সীর।