পাতা:বেওয়ারিশ লাস - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

বেওয়ারিশ লাস।

২৭


 আমি। বালিগঞ্জের কোথায়?

 আত্মীয়। বালিগঞ্জে একটী আড়গড়া আছে, সে সেই স্থানেই থাকিত।

 আমি। সে কাহার আড়গড়া?

 আত্মীয়। সাহেবের আড়গড়া। সাহেবের নাম জানি না।

 আমি। সেই স্থানে সে কি কার্য্য করিত?

 আত্মীয়। সহিসের কার্য্য করিত।

 আমি। তুমি সেই আড়গড়া আমাকে দেখাইয়া দিতে পারিবে কি?

 আত্মীয়। কেন পারিব না? আমার সহিত আসুন, আমি তাহাকে এখনই দেখাইয়া দিব।

 সুবেদার কর্ত্তৃক মৃতদেহ সেনাক্ত হইয়াছে, অর্থের লোভে তাহার ভাই হকদারকে মারিয়া ফেলিয়া বাক্সের ভিতর পূরিয়া ফেলিয়া দিয়াছে, এই কথা বিদ্যুৎবেগে সহরের সর্ব্বস্থানে প্রচারিত হইয়া পড়িল। যে সকল কর্ম্মচারী, কাহার মৃতদেহ, এই সংবাদ পাইবার প্রত্যাশায় স্থানে স্থানে গমন করিয়াছিলেন, এবং যে সকল কর্ম্মচারী অপর কার্য্যে নানাস্থানে চলিয়া গিয়াছিলেন, এই সংবাদ প্রাপ্ত হইয়া তাঁহারা সকলে আসিয়া সেই স্থানে উপস্থিত হইতে লাগিলেন।

 যাহা হউক, অনন্তর একখানি দ্রুতগামী গাড়ি লইয়া আমি, সুবেদার ও তাহার আত্মীয়কে সমভিব্যাহারে লইয়া বালিগঞ্জে গমন করিলাম।

 কথিত আড়গড়ার সম্মুখে উপস্থিত হইলে, আমাদিগকে সেই স্থানে রাখিয়া সেই আত্মীয় আমানতের সংবাদ আনিবার