পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/১২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১২১
১২১
বেতালপঞ্চবিংশতি

একাদশ উপাখ্যান

 

বেতাল কহিল মহারাজ

পুণ্যপুর নগরে বল্লভ নামে প্রজাবল্লভ নরপতি ছিলেন। তাঁহার অমাত্যের নাম সত্যপ্রকাশ। এক দিবস রাজা সত্যপ্রকাশের নিকট কহিলেন দেখ যে ব্যক্তি রাজ্যেশ্বর হইয়া অভিলাষানুরূপ বিষয়ভোগ না করে তাহার রাজ্য ক্লেশপ্রপঞ্চমাত্র। অতএব অদ্যাবধি আমি ইচ্ছানুরূপ সুখ সম্ভোগে প্রবৃত্ত হইলাম তুমি সমস্ত রাজকার্য্যের ভার লইয়া আমাকে অবসর দাও। ইহা কহিয়া অমাত্যহস্তে সমস্ত সাম্রাজ্যের ভার সমর্পণ করিয়া রাজা ভোগসুখে কালযাপন করিতে লাগিলেন।

সত্যপ্রকাশ অগত্যা রাজপ্রস্তাবে সম্মত হইলেন কিন্তু স্বতন্ত্র রাজতন্ত্রনির্বাহ ও অহর্নিশ দুরবগাহনীভিশাস্ত্রপর্য্যালোচনা দ্বারা একান্ত ক্লান্ত হইতে লাগিলেন।

এক দিবস অমাত্য আপন ভবনে উৎকণ্ঠিত মনে নির্জনে বসিয়া আছেন এই অবসরে তাঁহার গৃহলক্ষ্মী লক্ষ্মীনাম্নী পত্নী

১৬