পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/২১০

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
২০৪
২০৪
বেতালপঞ্চবিংশতি

প্রণাম করিবেক অমনি তুমি খড়্গপ্রহার দ্বারা তাহার শিরশ্ছেদন করিবে এবং চন্দ্রভানু ও শান্তশীল উভয়ের মৃত দেহ তৈলকটাহে নিক্ষেপ করিলে শান্তশীলের সম্পূর্ণ যোগফল পাইয়া নিরুদ্বেগে অখণ্ড সাম্রাজ্য করিতে পারিবেক। সে ব্যক্তি আততায়ী, আততায়ীর প্রাণবধে পাতক নাই।

 এই বলিয়া বেতাল সেই মৃত শরীর হইতে বহির্গত হইয়া স্বস্থানে প্রস্থান করিল। রাজা সেই শব লইয়া সন্ন্যাসীর সন্নিধানে উপস্থিত হইলে তিনি অত্যন্ত সন্তুষ্ট হইয়া রাজার বহু প্রশংসা করিতে লাগিলেন। অনন্তর জীবন দানপূর্ব্বক সেই মৃত শরীর বলি প্রদান করিলেন এবং পূজার অন্যান্য অঙ্গ সমাপন করিয়া রাজাকে কহিলেন মহারাজ সাষ্টাঙ্গ প্রণাম কর তোমার প্রতাপবৃদ্ধি ও অভীষ্টসিদ্ধি হইবেক। রাজা বেতালবাক্য স্মরণ করিয়া কৃতাঞ্জলি হইয়া অতি বিনয়ে নিবেদন করিলেন মহাশয় আমি উক্ত প্রকার প্রণাম করিতে জানি না। আপনি গুৰু, কৃপা করিয়া দেখাইয়া দেউন। পরে যোগী রাজাকে প্রণাম শিখাইবার নিমিত্ত যেমন ভূতলে দণ্ডবৎ পতিত হইলেন অমনি রাজা বেতালের উপদেশানুসারে খড়্গাঘাত দ্বারা তাহার শিরশ্ছেদন করিলেন।

 দেবতারা রাজার সাহসদর্শনে সন্তুষ্ট হইয়া দুন্দুভিধ্বনি ও পুষ্পবৃষ্টি করিতে লাগিলেন। দেবরাজ বিমান হইতে অবতরণ-