পাতা:বেদবতী বা পতিপ্রাণা.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ob” বেদবতী । বিমনা । সখি ! দেখ দেখ, ভেবে বুঝি আপন হারায় । নিদাঘ লতিকা ইট, ছিন্ন হয়ে ছুয়ে মাটি, অাছে পড়ে এক পাশে, তপন জালায় ! বেদতী । শুনাতে তোরে মনেরি কথা, দেখাতে তোরে মরম ব্যথা, আসিয়াছি দাসী বেশে তোর নিকট ছুটিয়া । স্বর । ( ক্রোড়ে করিয়া । ) বল শুনি প্রাণধ’রে তব দুখ-কাহিনী, সঙ্গোপনে দাসীপণে কেব7 সাজে রমণী ? নয়না । কেন লে৷ ললনা, কিলাগি ভাবনা, বিষাদ-সলিলে ডুবায়ে কায় । অাধ আধ মরি, সুধাস্বর ক্ষরি, ধিরি ধিরি মরি, মিলায়ে যায় ! বেদ তী। সখি ! আমি চির-অভাগিনী নারী এজনমে । হইয়াছি দাসীপণে ব্ৰতী ভবালয়ে । পতির বাসনা মম পূর্ণ করিবারে । সুর । কি তব পতির বাঞ্ছা কহ স্থলোচনে ? বেদতী । বল সখি ! সত্য করি পূরাবে কি আশ, অধিনীর । সঁপিলাম জীবন মরণ আজি তব করে । স্বর । হও সাক্ষী চন্দ্র, স্থৰ্য্য, গ্রহ, তারা অাদি । দেখুক মা ধরিত্রী জননী ত্রিনয়নী ; পুরাইব তব পত্তিবাঞ্ছা বিনোদিনী ।