পাতা:বেদবতী বা পতিপ্রাণা.pdf/২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

१२ বেদবতী । বিমনা । ওলো নাগর যে খাবি খেয়ে সারা হ’ল ! বলি ও নাগর প্রেমের সাগরে পড়ে হাবু ডুবু খেয়ে, জল খেতে ইচ্ছা হ'য়েছে নাকি ? নয়ন । ও ভাই মনের সাধে সাতার দাও, পিপাসা. মিটবে এগন । পিলু–খ্যামটা । শঠ মধু-কর, ও—নটনাগর । কামে জ্বর জ্বর, লাজে মরিহে, প্রমদানে ওহে সুধা বিতর ; ও—নটনাগর। প্রাণ-সোহাগিনী ; ধর তবহে । পিও সাধে মধু, ক’রো না জোর, ও-নটনাগর। বেদশী । এই তোমাদের সর্থীর প্রেমসাগরে প’ড়ে নাকাল হয়েছি। এখন একৃটু জল দিয়ে প্রাণ বঁাচাও । যাতনা— সুর । ( হাস্য করিয়া ) ও সখি ! ত্বর করে স্বর্ণঝারি ও মৃন্ময়কারি ক’রে জল আনি তো । নয়ন । চল ভাই আবার গলায় বাধুবে । (সখীগণের প্রস্থান ও মৃন্ময় ও সুবর্ণঝারি লইয়৷ পুনঃ গান গাহিতে গাহিতে প্রবেশ । ) ভৈরবী—খ্যামটা । পিওরে পিয়াসভরে সুধা-সম-প্রম-বারি। পরাণ শীতল হ’বে ; হের, চাতক তোমারি ।