পাতা:বেদবতী বা পতিপ্রাণা.pdf/৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

৩৬ বেদবতী । হচ্ছে বটে ; কিন্তু এ অভাগিনীর পক্ষে যে যুগযুগাম্ভ বলে বোধ হ'চ্চে । নারদ । মা ! তা নইলে তোকে পতিপ্রাণ মেরে বলব কেন ? মা! এই দেখ, স্বয়ং ভগবতী তোকে কোলে কর্তে আসছে । ( জ্যোতিৰ্ম্ময় কিরণ প্রকাশ) (ভগবতীর সহিত দেববালাগণের গান গাহিতে গাহিতে,প্রবেশ ) সিন্ধুড়া—যৎ । দেখ দেখ অস্তাচলে, গেল চলে, দুখ নিশী। কর বালা, সুখে খেলা, পতিসনে প্রাণে মিশি। কনক-উদয়াচলে, ওই দেখ কুতূহলে, মিলিত হইল আসি, রবিসনে হাসি শশী । ভগবতী । আয় বাছা কোলে আয় জুড়াবি এ জালা । ভূধর শিখর ছাড়ি এসেছিলো সতী । জ্বলিতে হবে না বালা শোকের দহনে । থাকিবি অনন্তকাল ল’য়ে প্রাণ-ধনে। মোছ মা অঞ্চলে কুটী কমল নয়ন। নারদ। মা ভগবতী। সতীকে ক্ষণকালের তীরে তবে । ধরুন ; যেন মূচ্ছিত হ'য়ে না পড়ে। 齡