পাতা:বৈকুন্ঠের উইল - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

«ՆԳ देवकूटन site পুনশ্চ কহিলেন, আর একটা কথা। বেয়াইমশাই দয়া করে এসেছেন-কুটুমের আদরে দুদিন থাকুন ; দেখুন শুনুন ; কিন্তু দোকানে আমার চুরি হচ্চে কি না হচ্চে, সে চিন্তা করবার র্তার আবশ্যক নাই। চক্ৰবৰ্ত্তামশাই, আপনি দেরি করবেন। না, যান। আমার ইচ্ছে নয়, বাইরের লোক দোকানে ঢুকে খাতাপত্ৰ নাড়াচাড়া করে। গোকুল চাবি দে, উনি যান। বলিয়া কাহারে উত্তরের জন্য তিলাৰ্দ্ধ অপেক্ষা না করিয়া চলিয়া গেলেন। ঘরের ভিতর হইতে র্তাহার পদশব্দ শুনিতে পাওয়া গেল। স্তম্ভিত ভাবটা কাটিয়া গেলে, নিমাই রায় কাষ্ঠহাসি হাসিয়া বলিলেন, একেই বলে, পরের ধনে পোদারি। হুকুম দেবার ঘটাটা একবার দেখলে বাবাজী! বাবাজী কিন্তু জবাব দিল না। জবাব দিল তাহার নিজের পুত্ররত্নটি । সে কহিল, এ ত জানা কথাই বাবা, তুমি থাকলে ত আর চুরি চলবে না ! বলিহারি হুকুমকে ! পিতা সায় দিয়া ঘাড় নাড়িয়া কহিলেন, তাই বটে । এবং চক্ৰবৰ্ত্তীর প্রতি দৃষ্টি পড়ায় জ্বলিয়া উঠিয়া মুখভঙ্গী করিয়া বললেন, আর দাড়িয়ে রইলে কেন হে স্বস্যাঙ্গাত, বিদায় হও না ! আবার ডেকে আনা হয়েচে ! নেমকহারাম। জেলে দিলুম না কি না, তাই। দূর হও সুমুখ থেকে। বামুন বলে মনে করেছিলুম-যাক মরুক গে ; যা করেচে। তা করেচে ; না হয় দু-পাঁচ টাকা দিয়ে দেব-কিন্তু, আবার ! তোমাকে শ্ৰীঘরে পোরাই কৰ্ত্তব্য ছিল আমার ! কিন্তু মনোরম স্বামীর ভাব দেখিয়া কথাটি কহিতে সাহস