পাতা:বৌ-ঠাকুরাণীর হাট-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৌ-ঠাকুরাণীর হাট So a প্রথম রাজা হয়, তাহাকে রাজটীকা পরাইবার জন্য সে আমাদের মহারাজার স্বৰ্গীয় পিতামহের কাছে আবেদন করে। অনেক কদাকাট করাতে তিনি তাহার বা পায়ের ক’ড়ে আঙ্গুল দিয়া তাহাকে টীকা পবইয় দেন ।" রমাই ভাড় কহিতেছে, “বিক্রমাদিত্যের ছেলে প্রতাপাদিত্য, উহার ত দুই পুরুষে রাজা ! প্রতাপাদিত্যের পিতামহ ছিল কেঁচো, কেঁচোর পুত্র হইল জোক, বেটা প্রজার রক্ত খাইয়া খাইয়া বিষম ফুলিয়া উঠিল, সেই জোকের পুত্র আজ মাথ। খুঁডিয়া খুড়িয়া মাথাট। কুলোপনা করিয়া তুলিয়াছে ও সাপের মতো চক্র ধরিতে শিপিয়াছে। আমরা পুরুষানুক্রমে রাজসভায় ভাড়বৃত্তি করিয়া আসিতেছি, আমরা বেদে, আমরা জাত সাপ চিনি না ?” রাজ রামচন্দ্র রায় বিষম সন্তুষ্ট হইয়া সহ্যস্ত বদনে গুড়গুডি টানিতে লাগিলেন। আজকাল প্রত্যহ সভায় প্রতাপারিত্যের উপর একবার করিয়া আক্রমণ হয়। প্রতাপাদিত্যের পৃষ্ঠ লক্ষ্যপূৰ্ব্বক শব্দভেদী বচন-বাণ বর্ষণ করিয়া সেনানীদের তৃণ নি:শব হইলে সভা ভঙ্গ হয়। যাহা হউক, আজিকার বিচারে অপরাধী অনেক কাদাকাটি করাতে দোদণ্ডপ্রতাপ রামচন্দ্র রায় কহিলেন—“আচ্ছা যা,–এ যাত্রা বাচিয়৷ গেলি, ভবিষ্যতে সাবধান খুকি।" * : অন্যান্য সভাসদ চলিয়া গেল, কেবল মন্ত্রী ও রমাই ভাড়জোর কাছে রহিল। প্রতাপাদিত্যের কথাই চলিতে লাগিল। রমাই কহিল, “আপনি ত চলিয়া এলেন, এদিকে যুবরাজ বাবাজি বিষম গোল্ডে,পড়িলেন রাজার অভিপ্রায় ছিল, কন্যাটি বিধবা হইলে হাতের লোহা ও বালা ছগাছি বিক্রয় করিয়া রাজকোষে কিঞ্চিৎ অর্থাগম হয়। যুবরাজ তাহাতে নমুঘাত করিলেন। ऊांश जझेम्ना ऊर्शौ कङ ?” রাবালিতে যুগিলেন, কহিলেন "বাট!" o बगैँ कहिंजन, “মহারাজ, শুনিতে পাই, প্রতাপাদিত্য আজকাল,