পাতা:বৌ-ঠাকুরাণীর হাট-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৪ বৌ-ঠাকুবাণীব হাট আসিয়! থাকিতে পাবিবে।” মেযেটি একবাব জিজ্ঞাস কবিল, “ককা, কাকীমা কোথায ?” উদযাদিত্য রুদ্ধকণ্ঠে কহিলেন—“একবাব তাহাকে ডাক ন৷ ” মেযেটি “কাকী ম' কাকী ম৷” কবিয ডাকিতে লাগিল । উদযাদিত্যেব মনে হইল, ঐ কে যেন সাড। দিল। দুব হইতে ঐ যেন কে বলিয়। উঠিল, “এই যাই বে।” যেন স্নেহেব মেযেটিব ককণ আহবান শুনিষ স্নেহময়ী মাব থাকিতে পাবিল না, তাহাকে বুকে তুলিয। লইতে আসিতেছে। বালিক। কোলেব উপব ঘুমাইয পড়িল । উদযাদিত্য প্রদীপ নিভাইয। দিলেন। একটি ঘুমন্ত মেযেকে কোলে কবিয অন্ধকাব ঘবে একাকী বসিয়া বহিলেন । বাহিবে হুহু কবিয বাতাস বহিতেছে । ইতস্তত খটু খটু কবিয শব্দ হইতেছে । ঐ ন পদশব্দ শুনা গেল ? পদশব্দই বটে। বুক এমন দুডদুড কবিতেছে যে, শব্দ ভাল শুনা যাইতেছে না । দ্বার খুলিযা গেল, ঘবেব মধ্যে দীপালোক প্রবেশ কবিল। ইহাও কি কখন সম্ভব । দীপ হন্তে চুপি চুপি ঘবে একটি স্ত্রীলোক প্রবেশ কবিল। উদযাদিত্য চক্ষু মুদ্রিত কবিয কহিলেন, “স্ববম কি ?” পাছে স্ববমাকে দেখিলে মুবম চলিযা যায । পাছে সুবম না হয । বমণী প্রদীপ বাখিয কহিল, “কেন গ, আমাকে কি আবে মনে পড়ে ন! ?” বজ্রধ্বনি শুনিষ যেন স্বপ্ন ভাঙ্গিল । উদযাদিত্য চমকিয। উঠিয়া চক্ষু চাছিলেন। মেযেটি জাগিয উঠিয কাক বলিষ কাটি উঠিল। তাহাকে বিছানাব উপবে ফেলিয়া উদযাদিত্য উঠিষ দাডাইলেন। কী কবিবেন কোথায় ঘাইবেন যেন ভাবিষ পাইতেছেন না। কষ্মিণী কাছে আসিয়া মুখ নাডিযা কহিল, "বলি, এখন মনে ত পডিবেই না। তবে এককালে কেন আশা দিয আকাশে তুলিষাছিলে ?” উদয়াদিত্য চুপ করিয়৷ গাড়াইয়া রছিলেন, কিছুতেই কথা কহিজে বিলেন না।