পাতা:ব্যক্তিত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হারিয়ে ফেলে। কারণ মানুষের ব্যক্তিত্বের একটি প্রয়াস হল— যার সঙ্গে তার কোনো সত্য সম্বন্ধ অাছে তাকে সে মানবিক ক্ষেত্রে পরিবর্তিত করে ফেলা। আর্ট উদ্ভিদেব বিস্তারের মতো, মানুষ মরুভূমির কতটা উদ্ধার করে নিজের কবতে পেরেছে তা-ই এর দ্বারা বোঝা যায় । আমরা পূর্বেই বলেছি যে যেখানেই জগতের সঙ্গে আমাদের হৃদয়-সম্পর্কে অতিরিক্ত উপাদান আছে, সেখানেই আর্টেব জন্ম । অন্য কথায়, যেখানে আমাদের ব্যক্তিত্ব তার সম্পদকে অনুভব করে, সেখানেই তা বাধ ভেঙে আত্মপ্রকাশ করে । যা আমরা নিজেদেব জন্য ভোগ করি, তা সম্পূর্ণরূপে খরচ হয়ে যায়। যা আমাদের প্রয়োজনকে ছাপিয়ে ওঠে তাই ব্যক্ত হয়। বিশুদ্ধ উপযোগিতার স্তর কালে উত্তাপের অবস্থার মতো । তা যখন নিজেকে অতিক্রম করে যায়, তখন শাদ উত্তাপে পরিণত হয়, এবং তখনই সে নিজেকে ব্যক্ত করে। উদাহরণস্বরূপ আহারে আমাদের উল্লাসকে গ্রহণ করা যাক । এটি শীঘ্রই শেষ হয়ে যায়। অনন্তের কোনো ইঙ্গিত তা দেয় না। সুতরাং যদিও বিস্তৃতির ক্ষেত্রে এই উল্লাস অন্য যে কোনো প্রবৃত্তি অপেক্ষা সর্বজনীনতর, তথাপি আর্ট একে বর্জন করেছে। আটলান্টিক মহাসাগরের এই উপকূলে যে বিদেশী এসেছে অথচ নগদ অর্থের সঙ্গতি দেখাতে পারছে না, তারই মতো এই উল্লাস । t= আমাদের জীবনে একটি দিক আছে যা সান্ত, যেখানে প্রতি পদেই আমরা নিজেদের ব্যয় করি। আমাদের অপর একটি দিক আছে যেখানে আমাদের আকাজক্ষা, আনন্দ ও ত্যাগ অন্তহীন । মানুষের এই অনন্তের দিকটি অবশ্যই এমন-কিছু প্রতীকের মধ্যে নিজেকে প্রকাশ করে যেখানে অমরতার উপাদান আছে। ૨૯: