পাতা:ব্যঙ্গকৌতুক - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রত্নতত্ত্ব প্রাচীন ভারতে গ্যালভ্যানিক ব্যাটারি ছিল কি না ও অক্সিজেন বাম্পের কী নাম ছিল ? S বিষয়টি অত্যন্ত গুরুতর সন্দেহ নাই, কিন্তু তাই বলিয়া ঘে একেবারেই এ সম্বন্ধে কোনো প্রমাণ সংগ্রহ করা যাইতে পারে না, ইহা আমরা স্বীকার করি না। প্রাচীন-ভারতে ইতিহাস ছিল না, এ কথা অশ্রদ্ধেয়। প্রকৃত কথা, আধুনিক ভারতে অনুসন্ধান ও গবেষণার নিতান্ত অভাব । বৰ্ত্তমান প্রবন্ধ পাঠ করিলেই পাঠকেরা দেখিবেন, আমাদের অনুসন্ধানের ক্রটি হয় নাই, এবং তাহাতে যথেষ্ট ফললাভও হইয়াছে। প্রাচীন-ভারতে গ্যালভানিক ব্যাটারি ছিল কি না ও অক্সিজেন বাম্পের কী নাম ছিল, তাহার মীমাংসা করিবার পূৰ্ব্বে কীট্রক ভট্ট ও পুণ্ডবৰ্দ্ধন মিশ্রের জীবিতকাল নিৰ্দ্ধারণ করা বিশেষ আবশ্বক । প্রথমত, কীট্রক ভট্ট কোন রাজার রাজত্বকালে বাস করিতেন, সেইটি নিঃসংশয়রূপে স্থির করা যাউক । এ সম্বন্ধে মতভেদ আছে । কেহ বলেন, তিনি পুরন্দর সেনের মন্ত্রী, অন্য মতে তিনি বিজয়পালের সভাপণ্ডিত ছিলেন। দেখিতে হইবে, পুরন্দর সেন কয় জন ছিলেন, এবং তাহাদের মধ্যে কে মিথিলায়, কে উৎকলে এবং কে-ই বা কাশ্মীরে রাজত্ব করিতেন। এবং তাহাদের মধ্যে কাহার রাজত্বকাল খ্ৰীঃ শতাব্দীর পাচ শত বৎসর পূর্বের, কাহার নয় শত বৎসর পরে কাহারই বা খ্ৰীষ্ট শতবীর সমসাময়িক কালে । বোধনাচাৰ্য্য তাহার রাজাবলী গ্রন্থে লিখিয়াছেন,—“পরম্পারম্প্রথিতপথিকেী ( মধ্যে পুথির দুই পাতা পাওয়া যায়