পাতা:ব্যঙ্গকৌতুক - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৬২ ব্যঙ্গকৌতুক সমাজের ভিতরে যে সমস্ত দোষ প্রবেশ করেচে সেগুলো দূর করবার জন্যে আমাদের বদ্ধপরিকর হওয়া উচিত । আপনার স্বর্গাঙ্গনারাও যদি এ সকল বিষয়ে শৈথিল্য প্রকাশ করতে থাকেন তা হ’লে আপনাদের স্বামীদের চরিত্রের অবস্থা ক্রমশই শোচনীয় হ’তে থাকবে । ওঁদের সম্বন্ধে যে সকল অপযশের কথা প্রচলিত অাছে সে আপনাদের অবিদিত নেই-— মধ্যে মধ্যে যদি সভা আহবান ক’রে এ সকল বিষয়ে আলোচনা হয়— আপনার যদি সাহায্য করেন তা হ’লে—কোথায় যান ? গৃহকৰ্ম্ম আছে বুঝি ? ( শচীকে উঠিতে দেখিয়া সকল দেবতার উত্থান এবং অকালে সভা ভঙ্গ ) ৷ মহা মুদ্ধিলে পড় গেল—কাউকে একটা কথা ব’ল্লে কেউ শোনেও না—বুঝতেও পারে না ; ( ইন্দ্রের নিকট গিয়া কাতর স্বরে ) ভগবন সহস্ৰলোচন শতক্রতো, আমার সাড়ে পাচ কোটি সাড়ে পনর লক্ষ বৎসরের মধ্যে আর কতো দিন বাকি আছে ? ইন্দ্র । ( কাতর স্বরে ) সাড়ে পাচকোটি পনরলক্ষ উনপঞ্চাশ হাজার নয় শ নিরেনকবই বৎসর । ( গোকুলনাথ এবং তেত্রিশকোটি দেবতার এক সঙ্গে সুগভীর দীর্ঘ নিশ্বাস পতন ) স্বগীয় প্রহসন I ইন্দ্রসভা বৃহস্পতি । হে সৌম্য, তেত্রিশকোটি দেবতাতেও কি ইন্দ্রলোক পূর্ণ হয় নাই ? আরো কি নূতন দেবতা আমন্ত্রণের আবশ্বক আছে ? அ | হে প্রিয়দর্শন, স্মরণ রাখিয়ে, জন্ম মৃত্যুর দ্বারা মৰ্ত্ত্যলোকে লোকসংখ্যা ! # নিয়মশাসনে থাকে, কিন্তু স্বৰ্গলোকে মৃত্যুর অভাবে দেবসংখ্যা হ্রাস