পাতা:ব্যঙ্গকৌতুক - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বগীয় প্রহসন - 이 বৃহস্পতি । আমিও জননী বীণার অনুগমন করি । ( প্রস্থান ) অশ্লেষ ও মঘার সভাপ্রবেশ অশ্লেষ ও মঘা । ( চন্দ্রের একাসনে শীতলাকে দেখিয়া ) আজ অপরূপ অভিনব সপ্তদশম কলায় দেব শশধরকে সমধিকতর শোভমান দেখিতেছি । 譬 চন্দ্র । দেবীগণ, এই হতভাগ্যকে অকরুণ পরিহাসে বিড়ম্বিত করিবেন না । পুরুষরাহু আমাকে কেবল ক্ষণমাত্রকাল পরাভব করিতে পারে সেই আক্রোশে ঈর্ষান্বিত ভগবান একটি স্ত্রীরাহু স্বজন করিয়াছেন ইহার পূর্ণগ্রাস হইতে আমি বহু চেষ্টায় আপনাকে মুক্ত করিতে পারিতেছি না । অশ্লেষ। আর্য্যপুত্র, এই ভদ্র ললনা অনতিপূৰ্ব্বে তোমার অন্তঃপুরে প্রবেশপূর্বক তোমার শ্বশুরকুলকে উৰ্দ্ধতন চতুর্দশ পুরুষ পৰ্য্যন্ত অশ্রুতপূৰ্ব্ব কুৎসা দ্বারা লাঞ্ছিত করিয়া আসিয়াছেন। দেবীর সেই আশ্চৰ্য্য ব্যবহারকে আমরা অধিকারবহির্ভূত উপদ্রব জ্ঞান করিয়া বিস্ময়ান্বিত হইয়াছিলাম এক্ষণে স্পষ্ট বুঝিতে পারিতেছি সৌভাগ্যবতী তোমারই হস্তে সেই অবমাননের অধিকার প্রাপ্ত হইয়াছেন। এখন, আর্য্যপুত্রকে তাহার নবতর শ্বশুরকুলে বরণ করিয়া আমরা নক্ষত্ৰলোক হইতে বিচ্যতিলাভের জন্য চলিলাম ! ( শীতলার প্রতি ) ভদ্রে, কল্যাণি, তোমার সৌভাগ্য অক্ষয় হৌক । ( প্রস্থান ) শচীর প্রবেশ ইন্দ্র । ( সসন্ত্রমে আসন ত্যাগ করিয়া) আর্য্যে, শুভ আগমন হৌক । ঘেটু (উত্তরীয় ধরিয়া ইন্দ্রকে সবলে আসনে উপবেশন করাইয়া) ঈস্! ভারি খাতির যে ! মাইরি ; দাদা ঢের টের পুরুষ মানুষ দেখেচি কিন্তু তোর মতো এমন স্ত্রৈণ আমি দেখিনি !