পাতা:ব্যঙ্গকৌতুক - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৭৬ ব্যঙ্গকৌতুক স্ত্রী । তিনি কে ? বাড়িওয়ালা । আগে বশ মানাই, তা’র পরে সাহস ক’রে নাম ব’লবো । মাতাজির প্রবেশ ■ মাতাজি । এ বাড়িতে আমার থাকার সুবিধা হ’চ্চে না । এর চেয়ে বড়ো বাড়ি আমাকে দিতে হবে । বাড়িওয়াল । এ বাড়ি ছাড়া আমার আর একটিমাত্র বড়ো বাড়ি আছে । সেট। বড়ে বটে, কিন্তু— মাতাজি । তা ভাড়া বেশি দেবো, কিন্তু সেই বাড়িতেই আমি কাল যেতে চাই । বাড়িওয়ালা। সবে পশু দিন সেখানে একটি ভাড়াটে এসেচে। একটি কোন সদর আলার বিপবী স্ত্রী,—পশ্চিম থেকে মেয়ের জন্যে পাত্র খুজতে এসে আমার সেই উনপঞ্চাশ নম্বরের বাড়িতে উঠেচে । মাতাজি । উনপঞ্চাশ নম্বর । ঠিক আমি যা চাই ! তোমার এ বাড়ির নম্বর ভালো নয় । বাড়িওয়ালা । বাইশ নম্বর ভালো নয় মাতাজি ? কারণটা কী বুঝিয়ে বলুন। 顧 جیتی۔ মাতাজি । বুঝতে পারচে। ন-—দুয়ের পিঠে দুই— বাড়িওয়ালা । ঠিক বলেচেন মাতাজি, দুয়ের পিঠে দুইই তো বটে । এতোদিন ওটা ভাবি নি । মাতাজি । দুইয়েতে কিছু শেষ হয় না, তিন চাই। দেখো না, আমরা কথায় বলি, দু’ তিন জন— н বাড়িওয়ালা। ঠিক ঠিক, তা তো ব’লেই থাকি। মাতাজি। যদি দুই বল্লেই চুকে যেতো, তাহলে তা’র সঙ্গে আবার তিন ব’লবো কেন ? বুঝে দেখো !