পাতা:ব্যবসায়ে বাঙালী.djvu/১৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশিষ্ট न्विन्विश्च =वप्रत्वञ्नांश्च থালের ব্যবসা—ফসলের সময় মাঘ-ফাঙ্কন মাসে জমিদার ও মহাজনের ঋণ শোধের জন্য চাষীরা সস্তায় ধান বিক্রয় করে। ঐ সময় পল্লী-অঞ্চলের অনেক লোক ধান খরিদ করিয়া গোলায় মজুত রাখে। আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে প্রায়ই ধানের মূল্য বৃদ্ধি পায়। তখন তাহা বিক্রয় করিলে ৬৭ মাসে প্রতি টাকায় wo-e/s হিসাবে লাভ হয়। এক শ্রেণীর ব্যবসায়ীরা ধান খরিদ করিয়া কলিকাতার আড়তে কিম্বা চাউল-কলে বিক্রয় করিয়া থাকে । ইহাতে প্রতি মণে ve-ye লাভ হয়। যদি এক সময়ে বেশী মাল আমদানী হইয়া পড়ে, তাহা হইলে হয়তো পড়তা দামেই বিক্রয় করিতে হয়। এই ব্যবসায়ে মুনাফা অল্প হইলেও বেশী পরিমাণ ধান আমদানি করিতে পারিলে, গড়ে বেশ লাভ হয়। কোন দেশে যদি ফসল অজন্ম হয়, অ-বাঙালীরা তাহার সংবাদ লইয়া ধান হইতে চাউল প্রস্তুত করাইয়া মজুত রাখিয়া দেয়। পরে যে দেশে দুর্ভিক্ষ হয়, সেই দেশে উহা বিক্রয় করিয়া লাভ করে। * * চাউলের ব্যবসা-মাঘ হইতে চৈত্র মাস পর্য্যস্ত সাধারণতঃ চাউলের দর সস্তা থাকে। ঐ সময় অনেকে উহা খরিদ করিয়া মজুত .রাখিয়া দেয় । চৈত্র মাসের মধ্যে যে সমস্ত চাউল বিক্রয় হয়, উহাতে ক্রেতা প্রতি মণে এক সের ঢলতা পায়। বৈশাখ হইতে ঐ ‘ঢলতা' প্রতি মণে /u• সের হয়, ইহাই চাউলের ব্যবসায়ের নিয়ম।