পাতা:ব্যবসায়ে বাঙালী.djvu/৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ব্যবসায়ে বাঙালী উহার সুবিধা-অস্থবিধা বুঝিয়াই আপনার ছাপাখানা খুলিতে পারিতেন। প্রথমেই বুঝিয়াছি, আপনাদের উদ্দেশু রথ দেখা ও কলা বেচা-চুই কাজ একসঙ্গে চালানো। ওকালতী-বিদ্যা ত আপনাদের হাতেই রহিল, তাহার উপর ছাপাখানার ব্যবসায়ে অতিরিক্ত আয় করিবেন, ব্যবসায় এত সহজ নহে ।" কিয়ৎক্ষণ তর্কবিতর্কের পর আমার ; উহাতে সমর্থন নাই বুঝিয় তাহারা চলিয়া গেলেন। খুব সন্তুষ্টচিত্তে যে যান নাই, সে কথা বলাই বাহুল্য। যাহা হউক, কয়েকদিন পরে উক্ত ছাপাখানার কাজ আরম্ভ হইল। আট নয় মাস পরে একদিন সংবাদ পাইলাম, আট হাজার টাকার প্রেস আট শত টাকায় বিক্রয় হইতেছে। উহার অনেক টাইপ, এবং মেসিনের কোন কোন অংশ ( parts ) কম্পোজিটরগণ চুরি করিয়া লইয়া গিয়াছে। তত্ত্বাবধায়ক উকিলবাবুরা আদালত হইতে বাড়ী ফিরিবার পথে ছাপাখানার কাজকৰ্ম্ম পরিদর্শনে চা খাইয়া বাড়ী যাইতেন । ভথাকথিত শিক্ষা যাহারা ব্যবসায় করিতে ইচ্ছুক, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রীর মোহ তাহাদের না পাইয়া বসিলেই ভাল হয় । ইহাতে থানিকটা সময় নষ্ট হয় মাত্র, তারপর একটুখানি অহমিকাও বাড়ে। কাজেই ব্যবসায়ের নিমন্তরের কাজ লইয়া আরম্ভ করিতে তাহারা লজ্জিত, সঙ্কুচিত হন। অথচ ব্যবসায় করিতে হইলে নিম্নস্তর হইতেই আরম্ভ করিতে হয়। যাহারা সেই শিক্ষা পায়, ব্যবসায়ে নামিয়া তাহারাই উন্নতি লাভ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সনদ প্রাপ্ত হইলে যুবকদের মধ্যে একটুখানি বিলাসিত ও সন্মানবোধ বেশী জন্মে। অবশ্য বেকার-সমস্তার চাপে बूबक-अष्धनात्बन्न भन इहेरउ मै खोजैब अब ८श्न चानको डुन পাইয়াছে, এবং বর্তমান জীবন-সংগ্রামে তাহার যে-কোন কাজ করিতে