পাতা:ভারতবর্ষের ইতিহাস (নীলমণি বসাক) দ্বিতীয় ভাগ.djvu/৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

भङ्घूम शंछनईौ । ११ ক্ষরিত তথন জাহারা পিপীলিকার শ্রেণীর ন্যায় গমন কবিত, এবং অগ্রসারী সেনাগণ ঠিকানায় পৌছিলে পরেও পশ্চাদ্বতী সেনাদের আয়ু ভাঙ্গ হইত না । যৎকালে মহমুদ কানাকুৰুজে উপস্থিত হইলেন, যৎ, -শলে কুণ্ডর রায় তথৗকার রাজা ছিলেন । তিনি মুসলমানদিগের বীরত্ব এবং তৎকর্তৃক অরিখ হিম্মুরাজ্যের দুৰ্গতি দৃষ্টি করিয়াছিলেন, অতএব দুৰ্জ্জয় মুসলমানসেনাগণ ভখায় উপস্থিত হইলে তাহাদিগের সহিভ যুদ্ধের কোন উদ্যোগ না করিয়া সপরিবাধে আক্রমণকারির শরণাগত হইলেন । তাহাতে মহমুদের অন্তঃকরণে দয়া জন্মিল, তিনি উiহার প্রতি কিছুমাত্র অত্যাচার করিলেন না । তিনি তিন দিবস মাত্র তথায় অবস্থিতি করিলেন, তদনন্তর মিরটে যাইয়। ঐ স্থান অধিকার করিলেন ।

  • তৎপরে মহমুদ কুবের-পুরীর তুল্য শ্ৰীকৃষ্ণের মধুর। পুরীতে যাত্রা করিলেন.... ঐ স্থান হিম্মুদিগের পুণ্যক্ষেত্র, এবং দেবালয়ে পরিপূর্ণ ছিল। মহমুদ পুরী প্রবেশ করিয়া মন্দির সকলের শোভা ও তন্মধ্যে স্বর্ণ ও রজত নিৰ্ম্মিত রত্নাক্ষি ও নানা রত্বে বিভূষিত বৃহৎ ৱহৎ বিগ্রহ দেখিয়া অতিশয় চমৎকৃত হইলেন । তিনি এভাদুশ স্বর্ণ ও রত্বরাশি কখন চক্ষেও দেখেন নাই । অতএব অবিলন্ধে ঐ সকল বিগ্ৰহ ভগ্ন করাইয়।