পাতা:ময়ূখ - রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়.djvu/১৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।

১৫২

ময়ূখ

করিলেন, কেবল উজীর আসফ্‌ খাঁ, শাহ্‌নওয়াজ খাঁ, আসদ্‌ খাঁ, কাসেম খাঁ, ইনায়েৎ উল্লা খাঁ, বহাদর খাঁ কাম্বোহ ও দেওয়ান হরেকৃষ্ণ রায়, দেওয়ান-ই-আমের পশ্চাৎস্থিত দ্বার দিয়া দেওয়ান-ই-খাসের চত্বরে প্রবেশ করিলেন। শ্বেতমর্ম্মরনির্ম্মিত দেওয়ান-ই-খাসের পশ্চাতে গোসলখানা। গোসল্‌খানা মোগল সাম্রাজ্যের মন্ত্রগৃহ, দরবার আমের পরে বাদশাহ্‌ এইখানে বসিয়া প্রধান অমাত্যগণের সহিত পরামর্শ করিতেন, ভিন্ন ভিন্ন সুবার শাসন সম্বন্ধে আদেশ দিতেন এবং রাজ্যতন্ত্রের গোপনীয় কার্য্যের ব্যবস্থা করিতেন।

 সকলে গোসলখানায় প্রবেশ করিয়া দ্বারের দুই পার্শ্বে সারি দিয়া দাঁড়াইলেন, বাদশাহের নাল্‌কী আসিয়া দুয়ারে দাঁড়াইল, বাদশাহ্‌ নামিলেন। সমস্ত সভাসদ্‌ এক সঙ্গে কুর্ণীশ করিলেন। বাদশাহ্‌ গদীতে উপবেশন করিলে, উজীর আসফ্‌ খাঁ ও শাহ্‌নওয়াজ খাঁ তাহার নিকটে উপবেশন করিলেন, অপর সকলে তাহাদিগকে বেষ্টন করিয়া দাঁড়াইলেন। উপবেশন করিয়াই বাদশাহ আসফ্‌ খাঁকে জিজ্ঞাসা করিলেন, “সাহেব, নূতন মন্‌সবদার কোথায়?” আসফ্‌ খাঁ বিপদে পড়িলেন, মন্ত্রণা সভায় উপস্থিত সভাসদগণের মধ্যে ময়ূখের কথা প্রকাশ করিবার ইচ্ছা থাকিলেও, তাহা তাঁহার পক্ষে অসম্ভব। বৃদ্ধ উজির অনায়াসে একটা মিথ্যা কথা বলিলেন, তিনি কহিলেন, “জহাঁপনা, নূতন হাজারী মনসবদার ময়ূখ নারায়ণকে খুঁজিয়া পাওয়া যাইতেছে না।” বাদশাহ্‌ অত্যন্ত