পাতা:মহাত্মা কালীপ্রসন্ন সিংহ.djvu/৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ه/* ভিত্তির উপর জাতীয় ইতিহাসের সুদৃঢ় স্তম্ভ নির্মিত হইতেছে, জাতীয় কাব্যের সুচারু কারুকার্য্য খচিত হইতেছে, দেশানুরাগরঞ্জিত তুলিকাস্বারা মন্দির-গাত্রে জাতীয় চিত্র অঙ্কিত হইতেছে, তত্ত্ববিদ্যার মন্দির-চুড়া গগন স্পর্শ করিতে চলিয়াছে, জাতীয় সাহিত্যের স্বর্ণবেদীর উপরে জাতীয়জীবনপ্রদায়িণী মাতৃমূৰ্ত্তিপ্রতিষ্ঠার আয়োজন হইতেছে, কে বলিতে পারে এই মহাকার্য্যে শিল্পিগণের সহায়তা করিবার জন্য ভারবাহী মুটে মজুরেরও প্রয়োজন নাই ? জাতীয় জাগরণের এই আনন্দকোলাহলে সকলের হৃদয়েই এক অভূতপূৰ্ব্ব চাঞ্চল্য ও উত্তেজনা পরিদৃষ্ট হইতেছে, তাহাদের হৃদয়ে এক অভিনব ভাবের ও অপূৰ্ব্ব আনন্দের সমাবেশ হইয়াছে, মাতৃমন্দির নিৰ্ম্মাণার্থ সকলেই যথাশক্তি চেষ্টা করিতে প্রস্তুত হইয়াছেন ; কিন্তু শিল্পীর প্রতিভা নাই বলিয়া অনেকেই অগ্রসর হইতে ভীত ও সঙ্কুচিত হইতেছেন। কিন্তু তাহারা সামান্ত ভারবাহীর কাৰ্য্য করিতেও কি অক্ষম ? সাহসে ভর করিয়া আমি এই ক্ষুদ্র প্রস্তরখণ্ড লইয়া বাণীমন্দিরের সম্মুখে উপস্থিত হইলাম । যে শিল্পিগণ আমাদের জাতীয় জীবনের ইতিহাসরূপ স্তম্ভনিৰ্ম্মাণে ব্যাপৃত আছেন, তাহারা যদি ইহা ব্যবহারযোগ্য মনে করেন, তবে আমার শ্রম সার্থক হইবে। ভারবাহীর কার্য্যের সমালোচনা নাই, তাহার কার্য্য প্রশংসা ও নিন্দার বহু নিয়ে। কিন্তু যখন আমাদের জাতীয় জীবনের ইতিহাসরূপ স্তম্ভ নিৰ্ম্মিত হইয়া জগৎবাসীর শ্রদ্ধা আকৃষ্ট করিবে, তখন উহার নির্মাণে ব্যবহৃত এই ক্ষুদ্র প্রস্তরখণ্ডের বহনকারী হয়ত সকলের অলক্ষ্যে শিল্পীর অপেক্ষ অধিকতর আনন্দ অনুভব করিবে। কারণ, অৰ্দ্ধশতাব্দীর ধূলির নিয়ে প্রোথিত এই প্রস্তরখণ্ডখানি সে যথাশক্তি সুসংস্কৃত করিয়া মাতৃমন্দির নিৰ্ম্মাণে ব্যবহারযোগ্য মনে করিয়াই শ্রদ্ধার সহিত বহন করিয়া আনিয়াছিল।