পাতা:মহাত্মা গান্ধীর কারাকাহিনী - অনাথ নাথ বসু.pdf/৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

(দ্বিতীয় বার)

প্রস্তাবনা।

 জানুয়ারী মাসে আমার একবার জেল হইয়াছিল। সেবারকার অভিজ্ঞতা অপেক্ষা আমার মনে হয় এবারের অনুভূতি অনেক সুন্দর। আমি ইহা হইতে অনেক শিক্ষাই লাভ করিয়াছি। আমার মনে হয়, আমার এই অনুভূতি অন্য ভারতবাসীর পক্ষেও উপযোগী।

 সত্যাগ্রহ সংগ্রাম—নিষ্ক্রিয় প্রতিরোধ—অনেক ভাবেই করা যায়। কিন্তু দেখা যাইতেছে যে রাজ্যশাসন, সম্বন্ধীয় দুঃখ দূর করিবার উপায় শুধু জেল। আমার মনে হয়, আমাদের বার বার জেলে যাইতে হইবে। ইহা শুধু এই আন্দোলনের জন্য নয়, উপরন্তু ভবিষ্যতে অন্যান্য বিপদ আসিতে পারে, তাহার প্রতীকারেরও উত্তম উপায়। অতএব জেলের বিষয় যাহা কিছু জ্ঞাতব্য তাহা হিন্দুস্থানবাসীদের জানা কর্তব্য।

গ্রেপ্তার।

 যখন মিঃ সোরাবজী জেলে গেলেন, তখন মনে হইল যে তাঁহার সঙ্গে সঙ্গে আমিও চলিয়া গেলে ভাল হয়; নতুবা যেন তাঁহার কারামুক্তির আগেই এ আন্দোলন সার্থক হইয়া উঠে। আমার আশা ব্যর্থ হইল। কিন্তু যখন নেটালের বীর নেতৃবৃন্দ জেলে গেলেন, তখন আবার এই ইচ্ছা প্রবল হইয়া উঠিল এবং পরে তাহা পূর্ণ হইল। ডারবান হইতে প্রত্যাবর্ত্তন কালে ৭ই অক্টোবর আমি বোকসরষ্ট ষ্টেশনে ধৃত হইলাম, কারণ আমার কাছে আইন অনুযায়ী সার্টিফিকেট ছিল না এবং আমি আঙ্গুলের টিপসহি দিতে অস্বীকার করিয়াছিলাম।